সর্বশেষ আপডেট : ৫৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিপিএল : টিকিট না পাওয়ায় স্টেডিয়ামে ভাঙচুর, পুলিশের লাঠিচার্জ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ::
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)-এর সিলেট পর্বের টিকিট বিক্রির দ্বিতীয় দিনেও ছিল টিকিটের জন্য হাহাকার। গতকাল বুধবার টিকিট না পেয়ে ক্ষুব্দ অনেক দর্শক মারমুখো হয়ে ওঠেন। তাঁরা সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে ভাঙচুর চালান এবং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে জুতা ছুড়েন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ লাঠিচার্জ করে টিকিটপ্রত্যাশীদের উপর। দুপুরের দিকে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আগের রাতের মতো মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকেই জেলা স্টেডিয়ামের সামনে লাইন ধরেন টিকিট প্রত্যাশীরা। গতকাল সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় বিপিএলের টিকিট বিক্রি। বিক্রি হয় ৫ নভেম্বরের ম্যচের টিকিট। তবে যথারীতি সামান্য সংখ্যক টিকিট বিক্রি হয় গতকাল। কালোবাজারির অভিযোগ তোলে টিকেট বিক্রেতারা নারী ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে টিকেট বিক্রি করেননি। তবে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের কাছে টিকেট বিক্রি করা হয়েছে।
বিক্রি শুরুর এক ঘন্টা পরই জানানো হয়, ৫ নভেম্বরের ম্যাচের ২শ’ টাকা মূল্যের টিকেট শেষ। এর কিছুক্ষণ পর ৫শ টাকা মূল্যেরও টিকেট শেষ বলে কাউন্টার থেকে মাইকে ঘোষণা আসে। এ সময় মাইকে ঘোষণা করেণ, কেবল ভিআইপি গ্যালারির (গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড) টিকিট রয়েছে। যার মূল্য দুই হাজার টাকা। এমন ঘোষণায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তীব্র রোদে দিনভর লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা টিকিট প্রত্যাশীরা।
এসময় তারা কাউন্টার লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করেন। ভাঙচুর চালান স্টেডিয়ামের বিভিন্ন জানালার গ্লাসে। পরে পুলিশ লাটিচার্জ করে। দর্শকরাও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। পুলিশের লাঠিচার্জে টিকিটপ্রত্যাশীরা এক সময় স্টেডিয়াম এলাকা ত্যাগ করেন। এরপর দুপুর থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় টিকিট বিক্রি।
কালোবাজারে টিকিট বিক্রির বন্ধের পর সাংবাদিকরা বিক্রয়কারীদের সাথে কথা বলতে চান। এসময় সাংবাদিকদের সাথে কথা বলবেন না জানিয়ে বিক্রয়কারীরা দৌড়ে গিয়ে একটি কক্ষে আশ্রয় নেন।
এ বিষয়ে সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য বিজিত চৌধুরী জানান, বিক্রয়কারী টিকিট নিয়ে কথা বলবেন না। সাংবাদিকরা বিক্রয়কারীদের প্রধান জুয়েলকে পেয়ে টিকিট নিয়ে কথা বলতে বলেন। কী পরিমাণ টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে তা জানতে চান তাঁরা।
এদিকে দর্শকরা দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে টিকিট না পেলেও কালোবাজারে টিকিট মিলেছে। এমনকি স্টেডিয়ামের ভেতরেই টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন আমেরিকা প্রবাসী ভেতর থেকেই টিকিট সংগ্রহ করেন বলে জানিয়েছেন। এসময় তিনি তাঁর হাতে থাকা দু’টি টিকিটও সাংবাদিকদেরকে দেখান।
সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গৌসুল হোসেন বলেন, কিছুসংখ্যক দর্শকেরা বিশৃঙ্খলা শুরু করলে লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ অবস্থায় গতকাল টিকেট বিক্রি বন্ধ রাখা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ৭ ও ৮ নভেম্বরের টিকেট বিক্রি করা হবে।
এদিকে, সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে টিকেট কিনতে গিয়ে এক যুবকের মাথা ফেটেছে। আহত এই যুবকের নাম সুমন। গত মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে রিকাবিবাজারস্থ জেলা স্টেডিয়ামের টিকেট বুথের লাইনে দাঁড়ানো অবস্থায় পড়ে গিয়ে তার মাথা ফেটে যায়। পরে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার থেকে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে বিপিএলের টিকেট বিক্রি শুরু হয়। প্রথম দিন থেকেই টিকেট বিক্রিতে অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ রয়েছে কাউন্টারে বিক্রি না করে বিপিএল সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কালোবাজারে টিকেট বিক্রি করে দেন। এছাড়া ব্যাংকের মাধ্যমে টিকিট বিক্রির কথা বলা হলেও শেষ মুহূর্তে এসে ব্যাংকেও বিক্রি হচ্ছে না টিকিট।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: