সর্বশেষ আপডেট : ৮ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কুইবেকে সরকারি চাকরিতে নিকাব নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: কানাডার কুইবেক প্রদেশে নিকাব নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিতর্কিত এই আইনটি নিয়ে বহুদিন ধরেই সমালোচনা হচ্ছে। সরকারি প্রতিষ্ঠানে সেবা দেয়া বা নেয়ার সময় মুখ ঢেকে রাখার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে আইন পাশ হয়েছে। খবর বিবিসি, গার্ডিয়ান।

নতুন এই আইনের ফলে সরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত নারীদের বোরকা ও নিকাব পরা নিষিদ্ধ করে তাদের মুখ দেখানো বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে।

কুইবেক ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে ‘বিল-৬২’ নামের এই আইনটি পাশ হয়েছে। এই বিলের পক্ষে ভোট দিয়েছে ৬৬ জন এবং বিপক্ষে ৫১টি ভোট পড়েছে।

২০১৪ সাল থেকে ক্ষমতায় থাকা লিবারেল পার্টি দু’বছর আগেই এই বিলটি উত্থাপন করেছিল। যেসব নারীরা বোরকা বা নিকাব পরে তাদের সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে সেবা গ্রহণের সময় অবশ্যই নিজেদের মুখ দেখাতে হবে।

প্রদেশের আমলা, পুলিশ কর্মকর্তা, শিক্ষক, বাস চালক, ডাক্তার, ধাত্রী এবং দাঁতের ডাক্তারসহ হাসপাতাল এবং স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ সরকারি যে কোনো প্রতিষ্ঠানে কর্মরত নারীদের মুখ খুলে রাখতে হবে।

নতুন এই আইনের কারণে প্রদেশের যেসব শিশুকেন্দ্রে ধর্মীয় শিক্ষা দেয়া হতো সেগুলোও বন্ধ হয়ে যাবে। তবে বিল-৬২ নামের এই আইনটিতে কোথাও মুসলিম বিশ্বাসের কথা উল্লেখ নেই।

সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে, যে কোনো ধরনের আচ্ছাদন বা মুখ ঢেকে রাখার ওপর এই নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে এবং এটা শুধুমাত্র মুসলিমদের টার্গেট করার জন্য করা হয়নি। তবে মুসলিম নারীদের ওপরই এই আইনের প্রভাব বেশি পড়বে। কারণ অনেক মুসলিম নারীই সরকারি সেবা, বাস, লাইব্রেরি, স্বাস্থ্য সেবা বা শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রেও নিকাব বা বোরকা ব্যবহার করে থাকেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: