সর্বশেষ আপডেট : ১৮ মিনিট ৬ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেট-এর ১৩তম অভিষেক অনুষ্ঠান

রোটারী ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ তৈয়ব চৌধুরী বলেছেন, মানুষের প্রতি ভালোবাসা এবং সহমর্মিতা নিয়ে রোটারিয়ানদেরকে আরো বেশি মানবতার কল্যাণে এগিয়ে আসতে হবে। ভিন্ন কিছু সমাজকে দেওয়ার মাধ্যমে সমাজকে পরিবর্তনের চিন্তা করতে হবে। দেশ ও জাতির কল্যাণে রোটারিয়ানরা যদি আরো বেশি আন্তরিকতা এবং দক্ষতার সাথে কাজ করে, এদেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষগুলো নিজেদের আশ্রয় খুঁজে পাবে।
রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেট-এর ১৩তম অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনাড়ম্বরপূর্ণ আয়োজন এবং জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে গত শনিবার নগরীর মির্জাজাঙ্গালস্থ একটি অভিজাত হোটেলের কনফারেন্স হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পিডিজি ডা. মনজুরুল হক চৌধুরী, পিডিজি ইঞ্জিনিয়ার এম এ লতিফ, ডিজিই দিলনাশীন মহসিন, ডিজিএন লে. কর্নেল (অব.) এম. আতাউর রহমান পীর, ডেপুটি গভর্নর পিপি ফারুক আহমদ, পিপি মোশাররফ হোসেন জাহাঙ্গীর।

১৩তম অভিষেক অনুষ্ঠানের চেয়ারম্যান পিপি নজীর আহমদের সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে দুই পর্বে সভাপতিত্ব করেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান ইয়াকুতুল গণি ওসমানী এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট রোটাারিয়ান তৌফিক বক্স লিপন। অনুষ্ঠানে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান ইয়াকুতুল গণি ওসমানী দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান তৌফিক বক্স লিপনের কাছে কলার হস্তান্তর করেন এবং বিদায়ী সেক্রেটারী রোটারিয়ান রেহান উদ্দিন রায়হান দায়িত্বপ্রাপ্ত সেক্রেটারী রোটারিয়ান সাইফুর রহমান খোকনের কাছে ক্লাব চার্টার হস্তান্তর করেন। পরে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান ইয়াকুতুল গণি ওসমানী। দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান তৌফিক বকস লিপন নিয়মিত সাপ্তাহিক সভা আহবান করেন এবং ক্লাব সেক্রেটারী রোটারিয়ান সাইফুর রহমান খোকন সাপ্তাহিক সভার কার্যবিবরণী পেশ করেন। এর আগে ২০১৬-২০১৭ বর্ষের ক্লাবের বার্ষিক কার্যবিবরণী পেশ করেন বিদায়ী সেক্রেটারী রোটারিয়ান রেহান উদ্দিন রায়হান। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এবং বিশেষ অতিথিবৃন্দ রোটারিয়ান আহসান আহমদ খান সম্পাদিত ‘দ্যা জাফলন্স’ সুভেন্যুর মোড়ক উন্মোচন করেন। অনুষ্ঠানে তিনটি প্রজক্ট বাস্তবায়নসহ ক্লাবের সাম্প্রতিক সময়ে বাস্তবায়িত প্রজেক্টগুলো স্লাইডে দেখানো হয়। প্রজেক্টগুলো উপস্থাপন করেন প্রজেক্ট বাস্তবায়ন কমিটির চেয়ারম্যান রোটারিয়ান রাসেল মাহবুব এবং প্রজেক্টগুলো স্পন্সর করেন রোটারিয়ান ইঞ্জিনিয়ার মঈনুল ইসলাম। একজন প্রতিবন্ধীকে ব্যবসার জন্য ১ লক্ষ টাকার নগদ চেক, একজন শিক্ষার্থীকে কম্পিউটার প্রদানসহ ৬টি সেলাইমেশিন বিতরণ করা হয়। এছাড়া নগর প্রিপারেটরী স্কুলে স্থায়ী প্রজেক্টের জন্য পিপি এম. নূরুল হক সোহেলের কাছে অনুদানের চেক হস্তান্তর করেন। অনুষ্ঠানে তিনজন নতুন সদস্য ক্লাবে অন্তর্ভূক্ত হন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এবং বিশেষ অতিথিবৃন্দ তাদেরকে রোটারীর লেভেল পিন পরিয়ে দেন। তিনজন নতুন সদস্য হলেন রোটারিয়ান মির্জা এম বেলাল আহমদ, রোটারিয়ান মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান রনি, মোছাম্মাৎ আছমা বেগম। এছাড়া অনুষ্ঠানে আগত অতিথিবৃন্দের পরিচয় তুলে ধরেন রোটারিয়ান পিপি কবির উদ্দিন। অনুষ্ঠানের শেষে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন রোটারিয়ান পিপি এম. নূরুল হক সোহেল, সার্জেন্ট অব আর্মসের রিপোর্ট পেশ করেন রোটারিয়ান এডভোকেট আজিম উদ্দিন এবং পরবর্তী সাপ্তাহিক সভার ঘোষণা করেন সেক্রেটারী সাইফুর রহমান। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ইঞ্জিনিয়ার মঈনুল ইসলাম এবং রোটারী প্রত্যয় পাঠ করেন রোটারিয়ান আবু সুফিয়ান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্লাবের প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারী, সদস্যসহ প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিক্টস মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথিকে ফুল দিয়ে বরণ করেন রোটারিয়ান কাজী হেলাল এং বিশেষ অতিথিবৃন্দকে অন্যান্য রোটারিয়ানরা ফুল দিয়ে বরণ করেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রোটারী ক্লাব মেট্রোপলিটন সিলেট-এর চার্টার প্রেসিডেন্ট পিপি আব্দুল মান্নান, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, রোটারী ক্লাব অব ফেনী সেন্ট্রালের পিপি ড. বেলাল উদ্দিন আহমদ, রোটারী ক্লাব অব কুমিল্লা সানসাইন-এর পিপি আজমল খান পাঠান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন পিডিজি ডা. মনজুরুল হক চৌধুরী বলেন, রোটারী মানবতার কল্যাণে যা করছে তা সাধারণ মানুষকে জানাতে হবে। কোনো জিনিসকে সঠিকভাবে না জানা পর্যন্ত, বিবেচনা করা উচিত নয়। রোটারিয়ানদেরকে দক্ষতা এবং প্রজ্ঞার সাথে সমাজের কল্যাণে এগিয়ে আসতে হবে।
পিডিজি ইঞ্জিনিয়ার এম এ লতিফ বলেন, মানবতার জন্য রোটারিয়ানরা নিবেদিত। মানুষের প্রতি ভালোবাসা ও দায়বদ্ধতা তাদেরকে উৎফুল্লিত ও অনুপ্রাণিত করে।

ডিজিই দিলনাশীন মহসিন বলেন, শান্তির এবং ভালোবাসাময় দেশ ও সমাজ গড়তে রোটারিয়ানরা কাজ করে যাচ্ছেন। রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেটের অগ্রযাত্রা আরো বেশি দ্রুতগতিতে চলবে এটাই প্রত্যাশা করি। ডিস্ট্রিক্টে তাদের প্রথম অবস্থান অনবদ্য সম্মানে ভূষিত করেছে।
লে. কর্নেল (অব.) এম. আতাউর রহমান পীর বলেন, রোটারী ক্লাব অব মেট্রোপলিটন সিলেট ডিস্ট্রিক্টে ভালো সৃষ্টি করেছে। আশা করি তারা তাদের অবস্থানকে ভালোভাবেই ধরে রাখবেন। – বিজ্ঞপ্তি

 

 

 

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: