সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ১৯ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সুনামগঞ্জে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ভীড় করেছেন দুর্গাপূজার মন্ডপগুলোতে

জাহাঙ্গীর আলম ভুঁইয়া, তাহিরপুর প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জে দুর্গাপূজায় প্রতিদিনেই বৃহত্তর দু-দলের বর্তমান, সাবেক ও সম্ভাব্য নতুন জনপ্রিয় প্রার্থীরা হাওরপাড়ে প্রতিটি মন্ডপে মন্ডপে হাজির হয়ে সবার সাথে কুশল বিনীময় করছেন। তাদের আগমনে ও পূজা মন্ডপে স্ব শরীলে হাজির হয়ে আনন্দ উৎসবে অংশ নেওয়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে যেন প্রানের সঞ্চার হয়েছিল। সেই সাথে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনাও বিরাজ করছে দ্বীপ সাদৃশ্য জনপদ গুলোতে বসবাসকারী সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের ভোটার সহ দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে।

বিএনপি ও আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী থাকায় দু-দলের প্রর্থীরা প্রতিযোগীতা করেই পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করতে আসছেন। কেউ কাউকে ছাড় দিতে না নারাজ। আর ভোটারদের মাঝে একটাই কথা কে পাবে দলীয় মনোনয়ন নামের সোনার হরিনটি এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠেছে নির্বাচনী এলাকায়। হাওর পাড়ে ঐসব প্রার্থীদের তাদের আগমনে নির্বাচন খুব শীর্ঘই না হলেও হাওর পাড়ে মুসলমানদের ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা পরবর্তিতে ঈদ পূর্ন মিলনীতে এবং সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান উৎসব দুর্গাপূজায় সাম্ভাব্য প্রার্থীদের আগমনে এক মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে আর নির্বাচনের আবাশ দিচ্ছে।

এছাড়াও বিএনপি ও আ,লীগের ঐ প্রার্থীরা সুযোগ বুজে দলের নিজ নিজ সমর্থিত নেতাকর্মীদের নিয়ে স্ব-শরীলে হাজির হয়ে প্রতিদিনেই সুনামগঞ্জ-১আসনের (তাহিরপুর,জামালগঞ্জ,ধর্মপাশা ও মধ্যনগড়) উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের হাওরপাড়ের প্রতন্ত্য গ্রাম গুলোর ভোটারদের কাছে নিজেদের এমপি প্রার্থী হিসাবে চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচার-প্রচারণা, মতবিনিময়, গনসংযোগ, মিটিং আর তারেই অংশ নিজের ও নেতাকর্মীদের ফেইসবুক আইডির মাধ্যমে প্রচার চালাচ্ছেন।

এছাড়াও সার্বক্ষনিক কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ রাখছেন প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্থতার মাঝেও। আবার অনেকেই দলীয় মনোনয়ন নামের সোনার হরিণটি ধরতে সময় পেলেই ছুটে যাচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে। সুনামগঞ্জ-১আসন (তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা ও মধ্যনগর) উপজেলার ভোটার, দু-দলের নেতাকর্মীরা জানায়, দু-দলের ঐসব প্রার্থীদের আগমন গত রোজার পূর্বে শুরু হলেও ঈদুল ফিতর সম্প্রতি ঈদুল আযহা ও ঈদ পূর্নমিলনী পরবর্তি সময়টুকু তারা হাত ছাড়া করেন নি।

এখন হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা শুরু হওয়ায় সবার আগমনে যেন হাওর পাড়ে প্রান ফিরে পেয়েছে আর একটু খুশি দু-দলের নেতাকর্মীদের পাশা-পাশি ভোটারগন। দু-দলের নেতাকর্মীরা কেউ কেউ পুরুনো নেতাকে ভুলে উদিয়মান তরুন নতুন নেতা নির্বাচন করতেও চাইছেন। আবার অনেকেই বলছে পুরান চাল কিন্তু ভাতে ভাড়ে। অন্যদিকে দলের মধ্যে দূদির্নে অর্থ,শ্রম ও সময় দিয়ে দলকে শক্ত হাতে ধরে রেখেছেন সেই পরীক্ষিত নেতাকেও জাতীয় নির্বাচনে গুরুত্বের সাথে সমর্থন দাবী করছে অনেকেই। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে নতুন উদিয়মান ও জনপ্রিয় সাম্ভাব্য প্রার্থীরা এগিয়ে চলছে জোরছে। পিছিয়ে নেই বর্তমান ও সাবেক জনপ্রিয় এমপিরা। হাল ছাড়ে নি তারাও তাদের সকল সফলতা, সহযোগীতা ও দলের সমর্থন স্মরন করিয়ে দিয়ে তুলে ধরছেন দল ও দলের ভবিষত্ব্য পরিকল্পনা নেতাকর্মী ও ভোটারদের সামনে।

দূদির্নে অর্থ, শ্রম ও সময় দিয়ে দলকে শক্ত হাতে ধরে রেখেছেন সেই পরীক্ষিত নেতারাও আছেন মাঠে। দল বেধেঁ সবাই সবার মত করে প্রতিদিন ভোটারদের কাছে হাজির হয়ে দলে তাদের অবস্থান কতটুকু বুজিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে নিজের অবস্থান শক্ত করার চেষ্টা করছে।

হাওর পাড়ের দু-দলের ভোটারগন দাবী জানান,যাদের কে সব সময় আমাদের কাছে পাব। শুধু নিজের আখের গোছাবার জন্য কাজ না করে আমাদের ও এলাকার উন্নয়নের জন্য কাজ করবে এবং দলের সুখের সময় না দু-সময়ে যারা পাশে থেকে দলের নেতাকর্মীদের কষ্ট করে ধরে রেখেছে আর ভবিষত্বেও আকড়ে ধরে রাখবেন তাদের মধ্য থেকে পরীক্ষিত নেতাকেই দলীয় মনোনয়ন দেওয়া প্রয়োজন। না হলে সঠিক জবাব নির্বাচনেই দেওয়া হবে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগ দু-দলের একাধিক প্রার্থী রয়েছে।

আ,লীগের প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন-আওয়ামী লীগের সুনামগঞ্জ ১আসনের বর্তমান এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন,সাবেক এমপি সৈয়দ রফিকুল হক সুহেল, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কৃষক লীগের মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামীমা শাহরিয়ার, সিলেট আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রিয়া সম্পাদক অ্যাড. রঞ্জিত সরকার, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা বিণয় ভূষন তালুকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম সামীম, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাড. আক্তারুজ্জামান আহমেদ সেলিম ও রফিকুল ইসলাম তালুকদার প্রমুখ।

অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন, সাবেক এমপি নজির হোসেন, উদীয়মান জনপ্রিয় সাম্ভাব্য প্রার্থী, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আনিসুল হক, উদীয়মান জনপ্রিয় সাম্ভাব্য প্রাথী তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাংগঠানিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল, ডাক্তার রফিক চৌধুরী, যুক্তরাজ্য প্রবাশী ব্যারিষ্টার হামিদুল হক আফিন্দি লিটন ও মোতালেব খাঁন প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: