সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ২২ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভাল সুযোগ দেখছেন মুশফিক

স্পোর্টস ডেস্ক:: দলের সাম্প্রতিক পারফরমেন্স এবং প্রতিপক্ষের বেশ কিছু তারকা খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আসন্ন দুই টেস্ট সিরিজে ভাল কিছু করার সুযোগ দেখছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

আসন্ন সিরিজে প্রোটিয়া দলের দুই তারকা পেসার ডেল স্টেইন ও ভারনন ফিলান্ডার এবং অন্যতম ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স না থাকা টাইগারদের আরো বেশি উজ্জীবিত করবে কিনা- জানতে চাইলে মুশফিক বলেন, ‘সম্ভবত’।

ফাস্ট বোলার স্টেইন, ফিলান্ডার এবং ক্রিস মরিস দলে না থাকাটা বাংলাদেশ দলের জন্য অবশ্যই একটা বড় সুযোগ।

এ সকল তারকা খেলোয়াড় না থাকায় টাইগাররা অবশ্যই এগিয়ে থাকবে বলে মনে করছেন ২৯ বছর বয়সী মুশফিক। তবে স্বাগতিক হিসেবে প্রোটিয়ারা শক্তিশালী দল মনে করছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

তিনি বলেন, ‘বেশ কিছু ভাল বোলার ও ব্যাটসম্যান থাকায় দক্ষিণ আফ্রিকা এখনো শক্তিশালী দল বলে আমি মনে করি।

‘এটা দলগত খেলা এবং এখনো তাদের দলটি খুবই ভারসাম্যপূর্ণ ও শক্তিশালী। তারপরও সিরিজটি চ্যালেঞ্জিং হবে। স্টেইন এবং ফিলান্ডার না থাকায় আমরা সম্ভবত কিছুটা এগিয়ে থাকব।’

তিনি আরো বলেন, ‘নিজ কন্ডিশনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলাটা মোটেই সহজ হবে না। সুতরাং এটা আমাদের জন্য একটা পরবর্তী ধাপ। আমরা দেশের বাইরে ভাল করতে চাই এবং এটা আমাদের জন্য একটা বড় সুযোগ।’
সাম্প্রতিক সময়ে টেস্ট ক্রিকেটে দারুণ নৈপুণ্য দেখাচ্ছে বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজ মাঠে ১-১ ব্যবধানে সিরিজ ড্র করে উজ্জীবিত টাইগাররা। গত দুই বছরে সব ফর্মেটেই ভাল করছে মুশফিকের দল। নিজ মাঠে ইংল্যান্ডকে হারানোর পর শ্রীলংকার মাটিতে হারিয়েছে লংকাকে।

একই ধারাবাহিকতা দক্ষিণ আফ্রিকায়ও অব্যাহত রাখতে চায় বাংলাদেশ।

মরনে মরকেল ও কাগিসো রাবাদার গতি গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে ভাল করেই জানেন মুশফিক।

তিনি বলেন, ‘আপনি জানেন দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে খেলা সব দলের জন্যই কঠিন। ফাস্ট বোলাররা এবং আমরা তাদের বিরুদ্ধে মানিয়ে নেয়াটাই হবে আমাদের মূল চ্যালেঞ্জ।’

‘দল হিসেবে বিদেশের মাটিতে আমরা খুব বেশি টেস্ট খেলিনি। তবে গত আড়াই বছরে আমরা দল হিসেবে উন্নতি করছি। এটা আমাদের পরবর্তী ধাপ।’

টেস্ট ক্রিকেট থেকে কিছু দিনের জন্য বিশ্রাম চাওয়ায় দলের তারকা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই মাঠে নামতে হচ্ছে টাইগারদের। যে কারণে দলের শক্তি কিছুটা হলেও কমে গেছে।

বিষয়টি স্বীকার করে মুশফিক বলেন, ‘তিনি একজন বিশেষ খেলোয়াড় এবং কাউকে দিয়ে তার স্থান পূরণ করা সম্ভব নয়। কিন্তু নিজেদের দক্ষতা প্রমাণে দলে জায়গা পাওয়াদের একটা সুবর্ণ সুযোগ।’ পচেফস্ট্রুমে ২৮ তারিখ প্রথম টেস্ট শুরু হবে। দ্বিতীয় ম্যাচ শুরু হবে ব্লোয়েমফন্তেইনে ৬ অক্টোবর। বাসস।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: