সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রোহিঙ্গাদের ফেরত : কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মামলা করবে পশ্চিমবঙ্গ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের কেন্দ্রীয় সরকার ফেরত পাঠানোর যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকার এর বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রাজ্যের শিশু অধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তী বলেন, একজন রোহিঙ্গা শিশুও যদি পুশ ব্যাকের শিকার হয়, তা মেনে নেয়া হবে না। সে জন্যই আমরা সুপ্রিম কোর্টে মামলা করব।

কেন্দ্র সরকার সোমবার সুপ্রিম কোর্টে হলফনামা দিয়ে দাবি করেছে, রোহিঙ্গারা এ দেশে ‘বেআইনি অনুপ্রবেশকারী’ এবং জাতীয় সুরক্ষার পক্ষে ‘বিপজ্জনক’। কিন্তু রাজ্য সরকার কেন্দ্রের এই বক্তব্যে একমত নয়।

পশ্চিমবঙ্গে শিশু অধিকার কমিশন মনে করে, মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত এবং এ দেশে শরণার্থী রোহিঙ্গা শিশু, নাবালক-নাবালিকাদের জোর করে ফের সে দেশে ফেরত পাঠানো অমানবিক। সেই কারণে তাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষা করতে দেশের সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হতে চায় কমিশন।

সুপ্রিম কোর্টে ওই মামলা করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে অনুমতিও চেয়েছে তারা। মুখ্যমন্ত্রী কমিশনকে অনুমতি দিয়েও দিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী সোমবার বলেছিলেন, ‘আমি মনে করি, সকল কমনার্স জঙ্গি নয়। কেউ কেউ জঙ্গি থাকতে পারে। কোনও জঙ্গি থাকলে সরকারের উচিত ব্যবস্থা নেয়া। কমনার্সরা যেন সাফার না করে। ইউএন ভার্ডিক্ট অনুযায়ী মানবিকতার সঙ্গে সমঝোতা করা উচিত হবে না বলে মনে করি।’

ক্ষমতাসীন বিজেপি অবশ্য শুরু থেকেই বলে আসছে, তারা কেন্দ্রের সঙ্গে সহমত। দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ মঙ্গলবার বলেন, ‘রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে উপদ্রব করেছে। তাই সরকার তাদের বিতাড়ন করেছে। এ রকম বিপজ্জনকদের আমরা জায়গা দেব কেন? মুখ্যমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে রোহিঙ্গারা যদি দলে দলে পশ্চিমবঙ্গে ঢুকতে শুরু করে, উনি সামলাতে পারবেন তো?’

রাজনৈতিক অঙ্গনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর প্রশ্নে রাজ্যের বিরোধী কংগ্রেস, সিপিএম, এসইউসিআই-সহ বিভিন্ন দল ও সংগঠন কেন্দ্রীয় সরকারের পদক্ষেপের বিরোধিতা করেছে।

সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সুজন চক্রবর্তী প্রধানমন্ত্রীকে টার্গেট করে বলেছেন, ‘জোর করে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠালে এই জনতা আপনাকেও ফেরত পাঠাবে।’

কংগ্রেসের পশ্চিমবঙ্গের সভাপতি অধীর চৌধুরীর মতে, পীড়িত লোকজনদের ভারতে আশ্রয় দেয়ার যে পুরোনো ঐতিহ্য আছে কেন্দ্রীয় মোদি সরকার সেই ঐতিহ্যকে ভেঙে দিতে চাচ্ছে। তিনি রোহিঙ্গাদের জন্য শরণার্থী কার্ড দেয়ার ওপর জোর দেন।

জাতিসংঘের নীতি মেনে রোহিঙ্গাদের শরণার্থীর স্বীকৃতি দেয়ার দাবি জানিয়েছেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীও।

রাজ্যের হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ অবশ্য রোহিঙ্গাদের কোনোভাবেই ভারতে আশ্রয় দেয়ার পক্ষপাতি নন। গতকাল মঙ্গলবার তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে উপদ্রব করেছে। সেজন্য সেখানকার সরকার তাদের বিতাড়ন করেছে। এ রকম বিপজ্জনক লোকদের আমরা জায়গা দেব কেন?’

সূত্র : আনন্দবাজার

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: