সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘শেষ দৃশ্যটি এত আবেগঘন ছিল, সত্যিই কেঁদে ফেলেছিলাম’

1505365278বিনোদন ডেস্ক:: এবার ঈদে ছোটপর্দার দারুণ আলোচিত হয়েছে তরুণ নির্মাতা মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘বড় ছেলে’ টেলিছবি। অপুর্ব-মেহজাবিন অভিনীত নাটকটি ইউটিউবে ইতিমধ্যে ৩৪ লাখেরও বেশিবার প্রদর্শিত হয়েছে। পরিচালনার পাশাপাশি নাটকটির গল্প, চিত্রনাট্যও আরিয়ানের নিজের।

ঈদ টেলিছবি ‘বড় ছেলে’-তে অভিনয় করার পর থেকে আলোচনার নতুন মাত্রায় চলে এসেছেন অভিনেত্রী মেহজাবীন। বিশেষ করে তার সাবলীল অভিনয় আর কান্নার দৃশ্যে যেন মুগ্ধতার নতুন সিড়িতে পা রাখলেন মেহজাবীন।

টেলিছবিটি নিয়ে মেহজাবীন বলেন, ফেসবুকে ‘বড় ছেলে’ টেলিছবিটি নিয়ে অনেক আলোচনা হচ্ছে। টেলিছবিটি দর্শকদের ওপর বেশ প্রভাব ফেলেছে বলে মনে হয়। এটি আমার অভিনয়জীবনের শ্রেষ্ঠ উপহার। তবে এই ঈদে আমার অভিনীত আরেকটি নাটক আমার জন্য বিশেষ ছিল। সেটি হচ্ছে মেয়েটির হাতে যাদুর প্রদীপ। বিশেষ এ জন্য বলছি যে, এখানে কোনো নায়ক নেই। তাই চরিত্রটি আমার জন্য চ্যালেঞ্জিং ছিল। এ ধরনের চরিত্রে কাজের সুযোগ খুব একটা পাওয়া যায় না। টেলিছবিটিতে কাজ করার সময় মনে হয়েছে, এটা দর্শকরা পছন্দ করবে।

তিনি আরো বলেন, এতটা আলোচনা হবে, সেটা ভাবিনি। পরিচিতদের অনেকেই ফোনে ও ইনবক্সে বলেছেন, টেলিছবিটি দেখে তারা কেঁদেছেন। বেশ কয়েকটি কান্নার দৃশ্য ছিল। প্রথমদিকে চোখে গ্লিসারিন নিয়ে কান্নার অভিনয় করেছি। শেষ দৃশ্যটি এত আবেগঘন ছিল যে সংলাপ বলতে বলতে গ্লিসারিন ছাড়া সত্যি সত্যিই কেঁদে ফেলেছিলাম।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: