সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যার প্রতিবাদে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ সমাবেশ

Pic-4ডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
মিয়ানমারের রাখাইন (আরাকান) রাজ্যে মুসলিম গণহত্যার প্রতিবাদে ও গণহত্যা বন্ধের দাবিতে সিলেট মহানগরসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন অব্যাহত রয়েছে। এ সব সমাবেশ ও মানববন্ধনে বক্তারা জাতিসংঘ, ওআইসি ও ইউরোপী ইউনিয়নকে মিয়ানমারের এই সাম্প্রদায়িক ও জাতিগত নিপীড়ন বন্ধের জন্য বাংলাদেশ সরকারকে জোরালো ভূমিকা রাখার এবং সীমান্ত খুলে দেয়ার আহবান জানান। বক্তারা বলেন, রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর বৌদ্ধদের এমন নির্যাতন আইয়্যামে জাহেলিয়াতকে হার মানিয়েছে। খুন, ধর্ষণ, জ্বালাওপোড়াও, নির্বিচারে গণহত্যাসহ সর্বপ্রকারে জুলুম-নিপীড়ন চলছে। কিন্তু বিশ্ববিবেক নির্বিকার। সুতরাং ঐ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জিহাদ করা সময়ের অপরিহার্য দাবি।
Pic-5দক্ষিণ সুরমা : মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যার প্রতিবাদে ও গণহত্যা বন্ধের দাবিতে দক্ষিণ সুরমার তৌহিদি জনতার উদ্যোগে ও অ্যাডভোকেট সামসুজ্জামান জামানের আহবানে এক বিক্ষোভ মিছিল গতকাল শুক্রবার বাদ জুমআ ভার্থখলা জামে মসজিদের সামন থেকে বের হয়। মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে খোজারখলা মার্কাজ পয়েন্টে গিয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সমাজসেবী দেওয়ান নিজাম খানের সভাপতিত্বে ও ইমরানুল ইসলাম জাসিমের পরিচালনায় বিক্ষোভ পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবী সুমন শিকদার, মল্লিক আহমদ, এনামুল হক টিপু, ইশরাকুল হোসেন, মো. নুরুল আমিন, তোফায়েল আহমদ তুহিন, ওয়াজিহ উদ্দিন তারেক, নুরুল ইসলাম রুহুল, খায়ের পারভেজ, আব্দুল মুকিত মুকুল, সাইফুল ইসলাম জয়, রাসেল আহমদ, শামীম আহমদ, আলাল আহমদ, আলম রহমান, তোফায়েল আহমদ রাফি, জাহেদুর রহমান, সুমন আহমদ আনছার, মর্তুজ আলী, জুবেল আহমদ, শাহীন আহমদ, রুহেল আহমদ জয়, খান সবুর, রাসেল আহমদ, আজমল আলী, রাহাত হোসেন শিপুর, জুয়েল রানা, সুহেল আহমদ, মঞ্জুর আহমদ, লিটন আহমদ, রনি আহমদ, দেওয়ান আবু সাঈদ খান, সিদ্দিক আহমদ। এছাড়াও বিভিন্ন মসজিদ থেকে অসংখ্য মুসল্লি বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহণ করেন।
পথসভায় বক্তারা মিয়ানমারে মুসলিম শিশু, নারী-পুরুষ, বৃদ্ধ মানুষ গণহত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, রাখাইনে মুসলিম গণহত্যা সভ্য জগতের কোনো মানুষ মেনে নিতে পারে না। অনতিবিলম্বে মুসলিম গণহত্যা বন্ধ করা না হলে মুসলিম তৌহিদি জনতা, যুবসমাজ ঐক্যবদ্ধ হয়ে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে। বক্তারা জাতিসংঘ, ওআইসি ও ইউরোপী ইউনিয়নকে মিয়ানমারের এই সাম্প্রদায়িক ও জাতিগত নিপীড়ন বন্ধের জন্য জোরালো ভূমিকা রাখার এবং বাংলাদেশ সরকারের প্রতি সীমান্ত খুলে দেয়ার আহবান জানান।
মাদানী কাফেলা : মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যা বন্ধের দাবিতে গতকাল শুক্রবার বাদ জুমআ সিলেট নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছে মাদানী কাফেলা বাংলাদেশসহ বিভিন্ন সংগঠন। বন্দরবাজার জামে মসজিদ থেকে মাদানী কাফেলার বিক্ষোভ মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশে মিলিত হয়। কাফেলার সভাপতি মাওলানা রুহুল আমীন নগরীর সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তৃতা করেন জামিয়া দারুল কোরআন সিলেটের প্রিন্সিপাল সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মাওলানা শাহীনূর পাশা চৌধুরী, জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগরীর সভাপতি মাওলানা হাবীব আহমদ শিহাব, জামেয়া হেদায়াতুল ইসলাম সিলেটের প্রিন্সিপাল মুফতি মুতিউর রহমান, যুব জমিয়ত নেতা মাওলানা কবির আহমদ খান, সিলেট জেলা মাদানী কাফেলার আহবায়ক হাফিজ মাওলানা মাসউদ আজহার , জমিয়ত নেতা মাওলানা আব্দুস সালাম, জামিয়া ফরিদাবাদের শিক্ষক মাওলানা লোকমান হাকিম, মাওলানা কবির আহমদ, মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, হাফিজ আব্দুল করিম হেলালী, মাওলানা সালিক আহমদ,জামিল আহমদ, কারি আব্দুর রহিম, হাফিজ আশরাফ আলী, হাফিজ নাজমুল ইসলাম, মাওলানা মাহমুদ হোসাইন।
বক্তারা মিয়ানমারের মুসলমানদের পক্ষে বাংলাদেশের সর্বস্তরের জনগনকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, প্রয়োজনে মিয়ানমারের সাথে সব ধরনের সর্ম্পক বিচ্ছিন্ন করতে হবে। সমাবেশ শেষে বিক্ষুব্ধ জনতা অংসান সুচির কুশপুত্তলিকা দাহ করেন। শাহীনুর পাশা তার বক্তব্যে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর সিলেট থেকে টেকনাফ অভিমুখী রোর্ডমার্চ করে তোলার জন্য সর্বস্তরের জনতার প্রতি আহবান জানান। সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা রুহুল আমীন নগরী বলেন, বাংলাদেশ থেকে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আরো কঠোর হতে হবে। মিয়ামারের দূতাবাস বন্ধের আহবান জানান। অপর এক প্রস্তাবে তুরস্কের ফার্সলেডি আমিনা এরদোয়ানকে বাংলাদেশের মুসলমানদের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। বক্তারা অংসান সুচিকে বিশ্ব সন্ত্রাসী ও অশান্তির জননী হিসেবে আখ্যায়িত করে নোবেল পুরস্কার প্রত্যাহারের দাবি জানান।
জমিয়তে তালাবা : মিয়ানমারে মুসলমানদের উপর পৈশাচিক গণহত্যা এবং বর্বরোচিত জুলুম-নির্যাতনের প্রতিবাদে জমিয়তে তালাবা বাংলাদেশ সিলেট জেলা ও মহানগরের উদ্যোগে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর বন্দরবাজার জামে মসজিদ থেকে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি সিলেট বন্দরবাজার জামে মসজিদ থেকে আরম্ভ হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিটি পয়েন্টে পথসভায় মিলিত হয়।
জমিয়তে তালাবা সিলেট জেলা কমিটির আহ্বায়ক মাওলানা ইমাদ উদ্দিন লাহিনের সভাপতিত্বে এবং কেন্দ্রীয় জমিয়তে তালাবার প্রচার সম্পাদক ছাত্রনেতা জুনায়েদ শামসী ও মহানগর জমিয়তে তালাবার সাধারণ সম্পাদক হাফিজ একরাম মাহমুদের পরিচালনায় বক্তারা বলেন, ইতিহাসের মধ্যে সবচেয়ে বর্বরোচিত মুসলিম হত্যা মিয়ানমারে চলছে। আর বিশ্ব মোড়লরা বসে বসে আঙুল চুষছেন। বক্তারা বলেন, রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর বৌদ্ধদের এমন নির্যাতন আইয়্যামে জাহেলিয়াতকে হার মানিয়েছে। বক্তারা বলেন, খুন, ধর্ষণ, জ্বালাওপোড়াও, নির্বিচারে গণহত্যাসহ সর্বপ্রকারে জুলুম-নিপীড়ন চলছে। কিন্তু বিশ্ববিবেক নির্বিকার। সুতরাং ঐ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জিহাদ করা সময়ের অপরিহার্য দাবি। বক্তারা বলেন, তারা জাতিগত বিদ্বেষের কারণে নির্বিচারে মুসলিম হত্যা করছে, সুতরাং ঐ দেশের পণ্য বর্জন করতে হবে। বক্তারা অনতিবিলম্বে আন্তর্জাতিক চাপ প্রয়োগ করে অং সাং সুচির সরকারকে পরিস্থিতি সামাল দিতে বাধ্য করতে হবে। বক্তারা মিয়ানমারের মুসলমানদের পক্ষে শক্ত অবস্থান গ্রহণের জন্য তুরস্কের প্রেসিডেন্ট আসসুলতান এরদোগানকে ধন্যবাদ জানান।
সভায় বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামা বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মুখলিসুর রহমান রাজাগঞ্জী, সহকারী মহাসচিব মাওলানা আবুল হোসাইন চতুলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা কারি হারুনুর রশীদ চতুলী, সিলেট মহানগর জমিয়তে উলামার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হাফিজ আহমদ সগীর, জমিয়তে তালাবা বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা তোফায়েল গাজালি, সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা আসাদ আহমদ, ছাত্রনেতা নজরুল ইসলাম, মাওলানা রফি উদ্দিন শাহীন, মাওলানা হাফিজ এহসান-এ এলাহী, মাওলানা হাফিজ ফয়সল আহমদ, হাফিজ সিদ্দিক বিন মুহাম্মদ, মাওলানা আরিফ রব্বানী, হাসান আহমদ, দেলওয়ার হোসেন, কবির আহমদ, মাওলানা হারিছ উদ্দিন, মাওলানা হাফিজ বদরুল ইসলাম, মাওলানা জয়নাল আবেদীন, মাওলানা হাফিজ নজির আহমদ, মাওলানা বদরুল ইসলাম আল ফারুক, হাফিজ মারুফ আহমদ, হাফিজ মাহদী আল হামজা।
দারুল কিরাতের মানববন্ধন : মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যা বন্ধের দাবিতে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর কোর্ট পয়েন্টে মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে ‘দারুল কিরাত আল মাদানিয়া কুরআন প্রশিক্ষণ বোর্ড। দারুল কিরাত আল মাদানিয়া বোর্ডের প্রতিষ্ঠাতা মহাপরিচালক মাওলানা কারি হুমায়ূন কবীর বাবরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হিউম্যানিটি ফর রোহিঙ্গা বাংলাদেশের চেয়ারম্যান সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী।
শাহিদ হাতিমীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন হিউম্যানিটি ফর রোহিঙ্গা বাংলাদেশের প্রচার সচিব মাওলানা রুহুল আমীন নগরী,মুফতি মাওলানা কারি ইজাদুর রহমান, মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, কারি মাওলানা জাকারিয়া আল আযাদ, কারি মাওলানা কায়সান মাহমুদ আকবরী, কারি ইয়াসিন আহমদ। বক্তারা মিয়ানমারে গণহত্যা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে বাংলাদেশ সরকারসহ আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহবান জানিয়ে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর সিলেট থেকে টেকনাফ অভিমুখী রোর্ড মার্চ সফলের আহবান জানান।
ইসলামী ঐক্যজোট : রোহিঙ্গাদের উপর ইতিহাসের জঘন্যতম জুলুম-নির্যাতন, রাখাইনে মুসলমানদের গণহত্যার প্রতিবাদে গত বৃহস্পতিবার ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার উদ্যোগে সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রফিক বিন সিকন্দরের পরিচালনায় দোয়া মাহফিলে বক্তব্য রাখেন ২০ দলীয় জোটের কেন্দ্রীয় নেতা, ইসলামী ঐক্যজোটের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী, কেন্দ্রীয় সহকারি মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা জহুরুল হক, সুনামগঞ্জ জেলার আহবায়ক মাওলানা মুজ্জামিল হোসাইন, হাফিজ মাওলানা মুশাহিদ আলী।
বক্তারা বলেন, জঘন্যতম জুলুম-নির্যাতন বন্ধ করা মুসলমানদের জানমালের নিরাপত্তায় প্রতিবেশী মুসলিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশের দায়িত্ব সবচেয়ে বেশি। দীর্ঘদিন যাবৎ আরাকানের মুসলমানরা নির্যাতিত হয়ে দেশছাড়া হচ্ছেন। শত শত মাইলব্যাপী মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় মায়নমার সরকারের সেনাবাহিনী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় মুসলমানদের বাড়িঘর জালিয়ে পুড়িয়ে দিচ্ছে। হাজার হাজার মা-বোন শিশুসন্তানদেরকে গলাকেটে হত্যা করা হচ্ছে। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন এক মুসলমান আরেক মুসলমানের ভাই হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। তাই জাতিসংঘ, ওআইসিসহ সার্কের অন্তর্ভুক্ত রাষ্ট্রসমূহের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা নিয়ে আরাকানের মুসলমানদের তাদের জন্মস্থানে স্বদেশে নিরাপদে বসবাস করার নিশ্চয়তা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ সরকারের জরুরিভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবি করে বাংলাদেশ সীমান্ত খুলে দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন বিয়ানীবাজার উপজেলা আহবায়ক মুফতি আব্দুল করিম হক্কানী, ইলিয়াস বিন রিয়াছত, হাফিজ নূরুল হক, মাওলানা সাইফুল ইসলাম, মাওলানা সালেহ আহমদ, হাফিজ আজিম উদ্দিন । শেষে সারা বিশে^র মজলুম মুসমানদের জন্য মোনাজাত পরিচালনা করেন সভার সভাপতি হাফিজ মাওলানা নওফল আহমদ।
যুব উলামা পরিষদ : গত বৃহস্পতিবার বাদ এশা সিলেট সদর উপজেলার খাদিমপাড়ায় স্থানীয় কার্যালয়ে যুব উলামা পরিষদ জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়।
আরাকানে মুসলিম গণহত্যার পতিবাদে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা বলেন, মিয়ানমার আরাকানে মুসলমানের রক্ত নিয়ে ছিনিমিনি খেলা করছে। মুসলমানদের উপর চালাচ্ছে নির্মম গণহত্যা। বক্তারা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। অবিলম্বে নির্যাতন ও গণহত্যা বন্ধের দবি জানান। পাশাপাাশি সর্বস্তরের জনতাকে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গা মজলুম মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানোর আহাব্বান জানান।
যুব উলামা পরিষদের সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাইয়ূমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আশরাফ আহমদের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন সহসাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মালিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফয়সল আহমদ, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আব্দুল হামিদ, সহপ্রচার সম্পাদক হাফিজ মাওলানা আব্দুর রব।
বিশ্বম্ভরপুর : প্রতিনিধি জানান, মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযাগ ও শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ধনপুর ইউপির ধনপুর বাজারে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ধনপুর বাজার মুসলিম জনতার উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার ধনপুর বাজারে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা অং সান সূচির শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বাতিল ঘোষণা ও মিয়ানমারে রোহিঙ্গা হত্যাযজ্ঞ বন্ধ, জড়িতদের ফাঁসি দাবিসহ বাংলাদেশে আশ্রয় ইচ্ছুক রোহিঙ্গাদের শরণার্থী হিসেবে বাংলাদেশের মাটিতে আশ্রয় দিতে সরকারের কাছে দাবি জানান।
বিক্ষোভ পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য দেন সহকারী অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, ধনপুর বাজার জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা নুরুল আমিন, মমিনুল ইসলাম মানিক, হাফেজ ইউনুছ, দ্বীন ইসলাম, শাহীন আলম, রকিব হাসান, মোর্শেদ আলম, মতিউর রহমান, আবু হানিফ, নুুরুল হক চৌধুরী।
বালাগঞ্জ : প্রতিনিধি জানান, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর নির্যাতন ও হামলার প্রতিবাদে বালাগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বুধবার বাদ আছর উপজেলার মোরারবাজারে তাওহিদি জনতার উদ্যোগে এ বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল পরবর্তী পথসভায় সভাপতিত্ব করেন শায়খুল হাদিস মাওলানা আব্দুস শহিদ। মাওলানা শিহাবুদ্দিন খানের পরিচালনায় সভায় বক্তৃতা করেন গহরপুর জামেয়ার শিক্ষক মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম হাজীপুরি হুজুর, হাফিজ মাওলানা আতিকুর রহমান, মাওলানা আব্দুস সালাম, হাফিজ আব্দুল কুদ্দুস, হাফিজ খালেদ আহমদ ও মাওলানা সুহাইল আহমদ। সভায় পবিত্র কুরআন পাক থেকে তেলায়াত করেন মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন। পরে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
প্রতিবাদ সভায় বক্তারা নিরীহ মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর বর্বর হামলার তীব্র নিন্দা জানান। বক্তারা অমানবিক হত্যা, নির্যাতন ও ধর্ষণ বন্ধ করতে জাতিসংঘসহ বিশ^ মুসলিমদের এগিয়ে আসার আহবান জানান। পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দান এবং তাদের নিরাপত্তা প্রদানের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি দাবি জানান।
বিশ্বনাথ : প্রতিনিধি জানান, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলামনাদের অমানবিক নির্যাতন, ধর্ষণ, নির্মমভাবে হত্যা ও গণহত্যার প্রতিবাদে গতকাল শুক্রবার বিশ্বনাথের হাবড়া বাজারে তৌহিদি জনতার ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাবেক ইউপি সদস্য লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে ও লোকমান আল সাদির পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মাওলানা আব্দুল কাদির। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন ডা. কাওছার আহমদ। বিশেষ অতিথি বক্তব্য রাখেন মাওলানা ফখরুল ইসলাম, সমাজসেবক আরাফাত আলী, হাফিজ ইসলাম উদ্দিন, আতিকুর রহমান, খায়রুল আহমদ, রমজান আলী,জাকারিয়া,সুন্দর আলী,আবু সাইদ।
ছাতক : প্রতিনিধি জানান, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যা-নির্যাতন, ধর্ষণ বন্ধের দাবিতে ছাতকের বিভিন্ন এলাকায় গতকাল শুক্রবার বাদ জুমআ মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শহরে জাগ্রত ছাতকবাসীর উদ্যোগে ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাগ্রত ছাতকবাসীর আহবায়ক অ্যাড. সুফী আলম সুহেলের সভাপতিত্বে ট্রাফিক পয়েন্টের প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন নাজমুল হোসেন, আলী আমজদ, আব্দুল মুনিম মামনুনসহ বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, ব্যবসায়ী ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। নোয়ারাই ইউনিয়নের লক্ষ্মীবাউর বাজারে জাগ্রত মুসলিম জনতার ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে মাও. ইসলাম উদ্দিন, মাও. জুবায়ের আহমদ, মাও. জুয়েল আহমদ, মাও. এখলাছুর রহমান, মাও. ফজলুর রহমান, মাও. খালেদ আহমদ, ডা. রেদওয়ানুল হক আরজু, ইউপি সদস্য লিয়াকত আলী, মনির উদ্দিন, আসাদ আলী মেম্বার, আশকজর আলী মেম্বার, আব্দুর রহিম, মাও. শামীম আহমদ, মোহাম্মদ আলী, হাজী আব্দুল জব্বার, এনামুল হক, মামুন আহমদ, আব্দুল কাইয়ূম নিজাম উদ্দিন, কুতুব উদ্দিন, শফিক মিয়া, আহমদ হাসান, মাও. জুবেদ মিয়া, শাহিন তালুকদার,আফজাল হোসেন, জামাল আহমদ, মছব্বির মেম্বার, আইয়ুব আলী উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়াও উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্ট, দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: