সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শান্তকে গ্রেফতারে মাঠে ডিবির ৪ টিম

AC-Rahul-20170813123930নিউজ ডেস্ক:: রাজধানীর জুরাইনে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) রাহুল পাটুয়ারীকে গুলিবর্ষণকারী অস্ত্র ব্যবসায়ী অন্তু ওরফে শান্তসহ তার সহযোগীদের খুঁজছে পুলিশ।

তাদের গ্রেফতারে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে পুলিশ। ডিবির পূর্ব, পশ্চিম, উত্তর ও দক্ষিণ বিভাগ এ জন্য পৃথক অভিযান শুরু করেছে।

ডিবি পুলিশের এসি পদ মর্যাদার এক কর্মকর্তা  বলেন, গুলির ঘটনায় অস্ত্র ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে ডিবি পুলিশের চারটি টিম কাজ করছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার নির্দেশে রাজধানীসহ ঢাকার উপকণ্ঠে সাঁড়াশি অভিযান চলছে। আশা করছি, অল্প সময়ে তাদের গ্রেফতার করা যাবে।

শান্ত ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে ডিবির পশ্চিম বিভাগের এডিসি গোলাম মোস্তফা রাসেলও জাগো নিউজকে জানান।

গত ১২ আগস্ট রাতে জুরাইনে সন্ত্রাসীদের ধরতে অভিযানকালে দুইপক্ষের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গুলিবিদ্ধ হন এসি রাহুল ও আরও দুইজন।

ওই অভিযান সম্পর্কে ডিবির এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা  বলেন, অভিযানের সময় রাহুলের সঙ্গে একজন সোর্স ও একজন এসআই ছিলেন। তার সঙ্গে ডিবির ব্যাকআপ টিম না থাকার সুযোগে গুলি করে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। ওই ঘটনায় সেলিম নামে এক পথচারী আহত হন।

শ্যামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক  বলেন, এ ঘটনায় ডিবি অভিযোগ নিয়ে আসলেই থানায় মামলা রেকর্ড করা হবে।

ডিবির অভিযান ও বন্দুকযুদ্ধ
জুরাইনের ওই অভিযান সম্পর্কে অবগত ছিল ডিবি কার্যালয়। অভিযানের বিস্তারিত জানতে চাইলে কার্যালয় থেকে জানানো হয়, তথ্য ছিল সাভারের অস্ত্র ব্যবসায়ী অন্তু পুরান ঢাকায় দুইজন অস্ত্র ব্যবসায়ীকে অস্ত্র সরবরাহ করতে আসবেন। অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করতে ‘ক্রেতা সেজে’ অস্ত্র কিনতে যায় ডিবির টিম। কিন্তু শুরুতেই অস্ত্র ব্যবসায়ীরা তাদের সন্দেহ করে। ফলে বেশ কয়েকটি স্পটে অস্ত্র হাত-বদলের কথা বলে ডিবির টিমকে ডেকে নিয়েও দেখা করেনি তারা।

এরপর শ্যামপুরে চূড়ান্তভাবে অস্ত্র হাত-বদলের কথা বললে একটি মোটরসাইকেলে করে ঘটনাস্থলে যায় ডিবির সদস্যরা। সেখানে আলোচনার একপর্যায়ে এসি রাহুল এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে জাপটে ধরেন। এ সময় পাশে থাকা অন্য সন্ত্রাসী এসি রাহুলকে গুলি করে পালিয়ে যায়।

এসি রাহুলের শারীরিক অবস্থা
ঘটনার পর রাতেই রাহুলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি শেষে অপারেশন করা হয়। অপারেশনে তার বুকের নিচে এবং পা থেকে গুলি অপসারণ করা হয়। পরে রোববার সকালে দ্বিতীয় দফায় অপারেশন করা হয়। বর্তমানে রাহুল ঢামেকের পোস্ট অবজারভেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, রাহুল এখন শঙ্কামুক্ত। এছাড়া বাকি দু’জনও চিকিৎসা শেষে বাসায় ফিরে গেছেন।

ডিবির এডিসি গোলাম মোস্তফা রাসেল জানান, রাহুল এখন শঙ্কামুক্ত। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতিও সম্পূর্ণ হয়েছে।

কে এই অন্তু ওরফে শান্ত
গোয়েন্দা তথ্য অনুযায়ী কেরানীগঞ্জ, সাভার, আশুলিয়ায় শান্তর অস্ত্র ব্যবসার শক্তিশালী নেটওয়ার্ক রয়েছে। পুরান ঢাকাসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অস্ত্র কেনাবেচা করে অন্তু ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: