সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৭ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বরিশালের চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটকে বদলির সুপারিশ

barisal-20170725143806নিউজ ডেস্ক:: বরিশালের চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আলী হোসাইনকে বদলি করার জন্য সুপ্রিম কোর্টে সুপারিশ করেছে আইন মন্ত্রণালয়।

সুপ্রিমকোটের হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার মো. সাব্বির ফয়েজ বিষয়টি জানিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতির অভিযোগে গাজী তারিক সালমনের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলায় তার জামিন শুনানি মোহাম্মদ আলী হোসাইনের আদালতেই অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

তবে আইন মন্ত্রণালয়ের করা সুপারিশের সঙ্গে ইউএনওর ঘটনার কোনো সংশ্লিষ্টতার কথা আনুষ্ঠানিকভাবে কেউ বলেননি।

ইউএনওর নিরাপত্তা দিতে না পারায় ইতোমধ্যে বরিশাল ও বরগুনার জেলা প্রশাসককে (ডিসি) প্রত্যাহার করা হয়েছে। সোমবার দুই ডিসিকে প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়।

তারিক সালমনের বিরুদ্ধে মামলা ও তাকে কারাগারে পাঠানোর ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের কমিটিও গঠন করা হয়েছে গতকাল।

গাজী তারিক সালমন আগৈলঝাড়ার ইউএনও থাকাকালে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে ছাপানো আমন্ত্রণপত্রে পঞ্চম শ্রেণিপড়ুয়া এক শিশুর আঁকা বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করেন।

আমন্ত্রণপত্রটিতে ব্যবহৃত ছবিটি বঙ্গবন্ধুর ‘বিকৃত ছবি’- এমন অভিযোগ এনে ৭ জুন বরিশাল মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে ওই ইউএনওর বিরুদ্ধে ৫ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সৈয়দ ওবায়েদুল্লাহ। মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারক ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে তারিক সালমনকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়ে সমন জারি করেন।

গত জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে তারিক সালমনকে বরগুনা সদর উপজেলায় বদলি করা হয়। গত বুধবার ওই মামলায় আদালতে হাজিরা দিয়ে জামিনের আবেদন করেন তিনি।

আদালত প্রথমে তা নামঞ্জুর করে ইউএনওকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এর দুই ঘণ্টা পর তার জামিন মঞ্জুর করা হয়। জানাজানি হলে বিষয়টি নিয়ে সারাদেশে ব্যাপক সমালোচনা তৈরি হয়।

পরে সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে ইউনওকে কারাগারে পাঠানোর ঘটনার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে রোববার বরিশালের চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আলী হোসাইন সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল বরাবর দুই পৃষ্ঠার একটি চিঠি পাঠান।

চিঠিতে দাবি করা হয়, ইউএনওকে জেল-হাজতে পাঠানো হয়নি।

এ ঘটনায় ছয় পুলিশ সদস্যকে ইতোমধ্যে প্রত্যাহারও করা হয়েছে।

ইউএনওর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাও ইতোমধ্যে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: