সর্বশেষ আপডেট : ৫৩ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সাবেক স্ত্রীকে আঙ্গুল কেটে উপহার

hand-1-20170714161906নিউজ ডেস্ক:: দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক কলহ চলছিল আহাদ-লাকি দম্পতির মধ্যে। দুই পরিবারের লোকজন মিমাংসা করার চেষ্টা করেছেন বেশ কয়েক বার। কিন্তু আহাদ-লাকি দম্পত্তির সেই কলহ থামেনি। এক পর্যায়ে দুই পরিবারের লোকজনের সিদ্ধান্তে আহাদ-লাকি দম্পতির মধ্যে ডিভোর্স হয়। অবশ্য স্বামী আহাদ স্ত্রী লাকিকে ডিভোর্স না দেয়ার অনুরোধও করেন।

এত কিছুর পরও মন গলেনি স্ত্রী লাকি আক্তারের। স্ত্রীর মন না গললেও লাকিকে নিয়ে আবার সংসার করতে আগ্রহ দেখান স্বামী আহাদ। এরই সূত্র ধরে ওই দম্পতিসহ তাদের উভয়ের পরিবারের লোকজন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের বাসায় জড়ো হন উদ্ভূত পরিস্থিতি সমাধানের জন্য।

কিন্তু স্ত্রী লাকি সংসার না করার পক্ষেই অনড় থাকেন। আর এতে উত্তেজিত ও ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী আহাদ সালিশ চলাকালে চেয়ারম্যান বাড়ির রান্না ঘরে প্রবেশ করেন এবং রান্না ঘরে থাকা বটি দিয়ে নিজের হাতের একটি আঙ্গুল কেটে তা স্ত্রীর ওড়নায় বেঁধে দিয়ে ভালোবাসার প্রমাণ হিসেবে উপহার দিয়ে চলে যান।

শুক্রবার সকালে সাভারের আশুলিয়ার শিমুলিয়া ইউনিয়নের কলতাসূতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম সুরুজ।

স্থানীয়রা জানান, গত ৭-৮ দিন আগে ওই দম্পতির মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায়। পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শুক্রবার সকালে উভয়পক্ষের লোকজন উদ্ভূত পরিস্থিতি সমাধানের জন্য আশুলিয়ার পূর্ব কলতাসূতি গ্রামে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম সুরুজের বাসায় উপস্থিত হন। উভয় পক্ষের উপস্থিতিতে স্বামী আহাদ লাকিকে নিয়ে আবার সংসার করতে আগ্রহ দেখায়।

এ সময় আহাদ এবং আহাদের পরিবারের লোকজনের অনুরোধে লাকিকে আবার নতুন করে সংসার শুরু করার জন্য বুঝানো হয়। কিন্তু লাকিসহ লাকির পরিবার তাদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকে।

পরবর্তীতে উভয় পরিবারের লোকজন দেনা-পাওনা নিয়ে কথা বললে স্বামী আহাদ নিজের একটি আঙ্গুল কেটে স্ত্রী লাকির ওড়নায় বেঁধে দিয়ে ভালোবাসার প্রমাণ হিসেবে উপহার দেন। পরবর্তীতে আহাদকে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় একটি ক্লিনিকে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা আরও জানান, বিগত ১০ বছর আগে আশুলিয়ার কলতাসূতি এলাকার আয়নাল হকের মেয়ে লাকির সঙ্গে গাজীপুরের জয়দেবপুর থানাধীন লতিফপুর গ্রামের বাসিন্দা আহাদ মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক বিষয় নিয়ে আহাদ-লাকির মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকতো। এছাড়া এই দম্পতির ৪ বছর বয়সী এক ছেলেসহ ২ বছর বয়সী এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: