সর্বশেষ আপডেট : ১৪ মিনিট ১৮ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২১ মে, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে চেয়ারম্যান-মেম্বারের বিরোধ থামাতে গিয়ে ইউপি সদস্যের মৃত্যু

taj-300x200বিশ্বনাথ সংবাদদাতা:: সিলেটের বিশ্বনাথের রামপাশায় সোমবার বিকালে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও মেম্বারের বিরোধ থামাতে গিয়ে মধ্যস্থতাকারী মেম্বার (ইউপি সদস্য) তাজ উল্যাহর মৃত্যু হয়েছে। পরিষদের বিভিন্ন বরাদ্দ বন্টন, আধিপত্য বিস্তার ও ইমাম উদ্দিন মেম্বারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার জেরে এ ঘটনা ঘটে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নিহত তাজ উল্যাহর আত্মীয়-স্বজনের দাবি তাকে (তাজ) হত্যা করা হয়েছে। অন্যদিকে, ঘটনাস্থলে থাকা পরিষদের একাধিক ইউপি সদস্য ও পুলিশ জানায়, দুপক্ষের ধ্বস্তাধ্বস্তির সময় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তাজ উল্যাহ। এরপর তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ধারণা করা হচ্ছে, স্ট্রোকে মারা গেছেন ওই ইউপি সদস্য।

সোমবার রাত ৮টার দিকে তাজ উল্যাহ’র লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়।
স্থানীয় সূত্র জানায়, বন্যার্তদের মধ্যে পরিষদের উদ্যোগে মঙ্গলবার চাল বিতরণের কর্মসূচি রয়েছে। এর প্রস্তুতি হিসাবে সোমবার বিকেলে রামপাশা ইউপি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে পরিষদের সভা ডাকা হয়। সভা চলাকালে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এডভোকেট মো: আলমগীর চেয়ারম্যান-মেম্বারদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্থানে ‘মিথ্যা’ অভিযোগ এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পায়তাঁরা সম্পর্কে জানতে চান ইউপি সদস্য ইমাম উদ্দিনের কাছে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা ও উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালান একই পরিষদের মেম্বার তাজ উল্যাহ, ইছাক আলী, আবুল কাশেমসহ আরো কয়েকজন।

যোগাযোগ করা হলে ইউপি সদস্য ইমাম উদ্দিন বলেন, চেয়ারম্যান পূর্ব পরিককল্পনা অনুযায়ী সন্ত্রাসীদের নিয়ে তার ওপর হামলা চালিয়েছেন। চেয়ারম্যানের পক্ষের আবুল কাশেম মেম্বারের চেয়ারের আঘাতে তার হাত ভেঙ্গে গেছে বলে জানান ইমাম উদ্দিন।
নিহত তাজ উল্যাহর ভাগ্নে স্বপন রাজ বলেন, হাসপাতালে নেওয়ার পথে মামা (তাজ) আমাকে বলেছেন চেয়ারম্যান আলগমীর ও কাশেম মেম্বার তাকে শেষ করে দিয়েছে।

রামপাশা ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, ইমাম উদ্দিন মেম্বারের সাথে আমার বাকবিতন্ডা হয়েছে। কোন মারামারি বা চেয়ার দিয়ে মারামারির ঘটনা ঘটেনি। আমার ও পরিষদের সদস্য/সদস্যাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ উত্থাপন করায় ও মামলা করার পায়তাঁরার কারণ জানতে গিয়েই ইমাম উদ্দিনের সাথে এই বাকবিতন্ডা হয়। এর বাইরে তিনি আর কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(মিডিয়া) সুজ্ঞান চাকমা জানান, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারের বিরোধ চলাকালে তাদেরকে থামানোর চেষ্টা চালান তাজ উল্যাহ। এক পর্যায়ে তিনি স্ট্রোক করে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি। লাশ ময়না তদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: