সর্বশেষ আপডেট : ১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৭ মে, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জঙ্গিবাদ রুখতে শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন দরকার

Raseda-K-Chy20170701143207নিউজ ডেস্ক:: তত্ত্বাবধারক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী বলেছেন, জাতির বিবেককে ধাক্কা দিয়ে গেছে হলি আর্টিসানের জঙ্গি হামলা। এক বছর ধরে তদন্ত হচ্ছে।

তিনি বলেন, ওই দিন কতক বিপথগামীর সশস্ত্র হামলায় মারা গেলো আমাদের সন্তানেরা। আমরা কিন্তু এর বিচার পাইনি। এ হামলার নেপথ্যে কারা তাদের পরিচয়ও কিন্তু পাইনি।

আজ (শনিবার) গুলশানের হলি আর্টিসানে জঙ্গি হামলায় নিহতদের শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

রাশেদা কে চৌধুরী বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থার মধ্যেই তো ভূত। মাঝে মধ্যে অনাকাঙ্খিতভাবে শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তন করা হচ্ছে। কিন্তু এর দ্বারা অসাম্প্রদায়িকতা ও নৈতিকতার শিক্ষা এবং ধর্মান্ধ বিরোধী শিক্ষা পাচ্ছে না শিক্ষার্থীরা।

তিনি বলেন, জাতি হিসেবে আমাদের কিছু বিষয় নির্ধারণ করা দরকার। আসলে আমরা কোন পথে যাবো। প্রাইমারি ও মাধ্যমিকে সাম্প্রদায়িকতা ও ধর্মীয় গোঁড়ামির শিক্ষা এখনো রয়েছে। জঙ্গিবাদ ও ধর্মান্ধতাকে উস্কে দিতে পারে এমন পাঠ শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বাতিল করতে হবে।

‘জঙ্গিবাদে শুধু গ্রামের কিংবা মাদরাসার ছাত্ররা নয়, ইংরেজি লেভেলের ছাত্ররাও এখন জড়াচ্ছে’- বিষয়টি স্বীকার করলেও তিনি বলেন, কিন্তু ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থীই তো মূল ধারার শিক্ষা ব্যবস্থার অধীনে পড়াশুনা করছে। এ ক্ষেত্রে তো আগে সেখানে কুঠারাঘাত করা এবং পরিবর্তন আনা দরকার।

হলি আর্টিসানে জঙ্গি হামলার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে রাশেদা কে চৌধুরী বলেন, `ইতালিয়ান নাগরিক সিজারে তাভেলা হত্যার বিচার সঠিক প্রক্রিয়ায় হলে হলি আর্টিসান হামলা হয়তো ঘটতো না।

রাজনৈতিক বিবেচনায় জড়িত কেউ যেন ছাড় না পায় কিংবা নিরাপরাধ কেউ যেন হযরানি না হয় সেজন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী ও গবেষক ড. চঞ্চল চৌধুরী বলেন, অসাম্প্রদায়িক শিক্ষাব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। পরিবর্তন আনতে হবে সামগ্রিক শিক্ষা ব্যবস্থায়। কিন্তু প্রাইমারি মাদরাসা শিক্ষার দিকে তাকিয়ে আমি আমার জন্মভূমি বাংলাদেশকে চিনতে পারি না।

তিনি বলেন, ভবিষ্যতে হলি আর্টিসানের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সেজন্য সকলকে চেষ্টা করতে হবে, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে আরো সজাগ থাকতে হবে।

ফ্লাক্স ওয়ানের সহকারি পরিচালক ও গ্রামীণফোনের সাবেক কমিউনিকেশন প্রধান রুবাবা দোলা মতিন বলেন, হলি আর্টিসানে হামলাকারীরা এ দেশের ইতিহাসে কলঙ্ক লেপন করেছে। হামলার নেপথ্যের কারিগররা দেশি নাকি বিদেশি তা আমরা জানতে চাই।

হলি আর্টিসান হামলায় নিহত ফারাজের আত্মীয় মনিকা চৌধুরী বলেন, গুলশানে হামলা করে যারা বোঝাতে চেয়েছে বাংলাদেশ জঙ্গিবাদী রাষ্ট্র, তাদের ধারণা ভুল। বাংলাদেশ কখনো জঙ্গিবাদী রাষ্ট্র নয়, ছিল না, হবেও না।

তিনি বলেন, ফারাজদের মতো নিরাপরাধ তরুণদের যারা হত্যা করতে পারে তাদের চেতনা আমরা বুঝে গেছি। এমন ধংসাত্মক ও মানবতা বিরোধী চেতনাধারীদের যে কোনো মুল্যে মোকাবেলা করতে হবে।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: