সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

হলি আর্টিজানে হামলা পরবর্তী দেশব্যাপী অভিযানে ৫৭ জঙ্গি নিহত

1498882214নিউজ ডেস্ক:: রাজধানীর হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার পর দেশব্যাপী পরিচালিত জঙ্গি বিরোধী অভিযানে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জিত হয়েছে। গত এক বছরে দেশের বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি বিরোধী অভিযানে নিষিদ্ধ ঘোষিত জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) ও নব্য জেএমবির ৫৭ জঙ্গি নিহত ও ৪১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে পুলিশের অ্যাসিস্ট্যান্ট ইন্সপেক্টর জেনারেল (কনফিডেন্সিয়াল) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার পর দেশের বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি বিরোধী বড় ধরনের ২০টি অভিযানে নব্য জেএমবির শীর্ষস্থানীয় নেতা ও সক্রিয় কর্মীসহ ৫৭ জঙ্গি নিহত হয়েছে। এ ছাড়া এসব অভিযানে ৪১ জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, জঙ্গি বিরোধী এই অভিযানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ১১ জন সদস্য নিহত হয়েছে। এসব হত্যাকাণ্ডে ৫০টিরও অধিক মামলা দায়ের হয়েছে।
মনিরুজ্জামান বলেন, হলি আর্টিজান বেকারিতে নৃশংস হামলার আগে আরো ১৩ জন জঙ্গি নিহত ও ২শ’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে, হলি আর্টিজানে হামলার পর ব্যাপক অভিযানে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের মেরুদণ্ড ভেঙ্গে গেছে। জঙ্গিরা বড় ধরনের হামলা চালাতে তাদের সাংগঠনিক ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছে। এদিকে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধির মাধ্যমে জঙ্গিদের অবস্থান ও গতিবিধি সনাক্ত করছেন।

তিনি অবশ্য একথা স্বীকার করেন যে বেকারিতে হামলার পর জঙ্গি বিরোধী সফল অভিযানের প্রেক্ষিতে অবস্থার পরিবর্তন হয়। নব্য জেএমবির শীর্ষ নেতারা নিহত ও গ্রেফতার এবং তাদের পুনঃসংগঠিত হওয়া বন্ধ হওয়ায় জঙ্গিরা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে চলে এসেছে বলে জানান ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অ্যাডিশনাল কমিশনার এবং কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইমের (সিসিটিসি) প্রধান মনিরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, তারা হলি আর্টিজানে হামলার সঙ্গে জড়িত প্রায় ২৪ জন নব্য জেএমবিকে সনাক্ত করেছে। এই মামলার তদন্ত এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। শিগগিরই এর চার্জশিট দেয়া হবে। এই হামলায় জড়িত ২৪ জঙ্গির মধ্যে ১৫ জন নিহত, ৪ জন কারাগারে এবং ৫ জন পলাতক রয়েছে।

এদিকে বিভিন্ন মামলায় জেএমবির ৬৪ সক্রিয় নেতা-কর্মীর মৃত্যুদণ্ড, ১৫৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২৪২ জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়া ১৭৯২ জেএমবি সদস্যকে গ্রেফতার এবং বিভিন্ন মামলায় ২০৪৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়া হয়েছে।

মাওলানা শাইখ আবদুর রহমান, তার সেকেন্ড-ইন-কমান্ড সিদ্দিকুল ইসলাম বাংলা ভাই, মিলিটারি কমান্ডার আতাউর রহমান সান্নি, থিঙ্কট্যাঙ্ক আবদুল আউয়াল, মজলিস-ই-সুরা সদস্য খালেদ সাইফুল্লাহ ও সালাহউদ্দিনসহ জেএমবির শীর্ষ নেতাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ায় সংগঠনটি মুখ থুবড়ে পড়ে।

এ ছাড়া ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট দেশব্যাপী বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় জেএমবির ৬৬০ সদস্যকে অভিযুক্ত করে দায়েরকৃত ১৬১টি মামলার মধ্যে ইতোমধ্যে ১০৩টি নিষ্পত্তি হয়েছে এবং অবশিষ্ট ৫৮টি বিচারাধীন রয়েছে বলে এর আগে র‌্যাবের মিডিয়া উইং ডাইরেক্টর কমান্ডার মুফতি মাহমুদ জানান। এই মামলায় ১৫ জনের মৃত্যুদণ্ড, ১১৮ জনের যাবজ্জীবন, ১১৬ জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও ১১৮ জনকে খালাস দেয়া হয়েছে। এই মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছে জেএমবি প্রধান মাওলানা শাইখ আবদুর রহমান, হরকাতুল জিহাদ আল ইসলাম বাংলাদেশের অপারেশনাল চীফ মাওলানা আবদুল হান্নান। বাসস।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: