সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৪০ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ট্রাম্প-মোদী বৈঠকে পাকিস্তানকে সতর্ক বার্তা

1498673234আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রথম সাক্ষাতের অনেকটা জুড়েই ছিল সন্ত্রাসবাদ প্রসঙ্গ। গত সোমবার সন্ধ্যায় বৈঠক শেষে হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনের লনে দাঁড়িয়ে দু’জনে যৌথভাবে তেমনটাই জানিয়েছেন। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

সন্ত্রাসবাদের মোকাবেলা করা ছাড়াও বাণিজ্য, প্রতিরক্ষা জাতীয় বিষয়ে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা বাড়ানোর দিকেও জোর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে দু’দেশ। সীমান্তের ওপার থেকে জঙ্গি হামলা যে শুধু ভারতের নয়, গোটা দক্ষিণ এশিয়ার কাছেই উদ্বেগের কারণ, তাও আলোচিত হয়েছে মোদী-ট্রাম্পের ওই বৈঠকে। পরে বিবৃতি দিয়ে সমস্তটাই জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। সন্ত্রাসের মোকাবেলায় এবং জঙ্গিদের নিরাপদ আশ্রয়স্থলগুলো ভেঙে দেওয়ার কাজে দু’দেশই যৌথভাবে কাজ করবে বলে বৈঠক শেষে জানিয়েছেন মোদী। তার পাশাপাশি ট্রাম্পও বলেন, জঙ্গি সংগঠন ও মৌলবাদী মতাদর্শে মদতকারীদের উপড়ে ফেলতে উভয় দেশই দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। কট্টরপন্থী ইসলামিক সন্ত্রাসবাদকে আমরা ধ্বংস করবই। সন্ত্রাসবাদ কোনো আঞ্চলিক সমস্যা নয়। তা গোটা বিশ্বের জন্যই উদ্বেগের। এই যুক্তিতে ভারতের মাটিতে অতিসক্রিয় জয়শ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তৈয়বা এবং ডি-কোম্পানির বিরুদ্ধে লড়াইতেও দু’দেশের গোয়েন্দারা মিলিত হয়ে কাজ করবে বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ওই বৈঠকে।

মোদী-ট্রাম্প বৈঠক নিয়ে ভারতীয় পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শংকর জানিয়েছেন, দুই নেতার বৈঠকে মূলত সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের বিষয়টি বারবার ঘুরে ফিরে এসেছে। তিনি বলেন, বৈঠকে পাকিস্তান নিয়ে সবিস্তার আলোচনা হয়েছে। এটা যে শুধু ভারতের একার সমস্যা নয়, তা নিয়ে দু’দেশই ঐকমত্য হয়েছে। আলোচনায় আফগানিস্তান প্রসঙ্গও উঠেছে। হিজবুল মুজাহিদিন প্রধান সৈয়দ সালাউদ্দিনকে ‘আন্তর্জাতিক জঙ্গি’ ঘোষণা করে আমেরিকা যে ইতিবাচক বার্তা দিয়েছে, তা মনে করিয়ে দিয়েছেন জয়শংকর। পাশাপাশি, পাকিস্তানের মাটি ব্যবহার করে প্রতিবেশি দেশগুলোতে যাতে জঙ্গি হামলা চালানো না হয়, ইসলামাবাদকে তা নিশ্চিত করতে বার্তা দেওয়া হবে। শুধু তাই নয়, মুম্বাই ও পাঠানকোট হামলাসহ পাকিস্তান মদতপুষ্ট একাধিক জঙ্গি হামলায় অভিযুক্তদের বিচার দ্রুততার সঙ্গে মেটাতে হবে বলেও সরব হয়েছে ভারত-আমেরিকা। যুক্তরাষ্ট্রে প্রথমবারে হোয়াইট হাউসের বাসিন্দাদের জোড়া ভারত সফর নিশ্চিত করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তো ভারতে আসছেনই। আলাদা করে ভারত সফরে আসছেন প্রেসিডেন্টের মেয়েও। গ্লোবাল এন্টারপ্র্রেনরশিপ সামিটে যোগ দিতে ভারতে আসার জন্য ইভাঙ্কা ট্রাম্পকে নিমন্ত্রণ করেছেন মোদী। ইভাঙ্কাকে নিমন্ত্রণ করে বাবা-মেয়ে দু’জনের কাছ থেকেই ধন্যবাদ পেয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদীর তিন দিনের এই সফর সম্পর্কে প্রবীন কূটনীতিকেরা বলছেন, দু’পক্ষ থেকেই বন্ধুত্বের উষ্ণতার দীর্ঘ ঘোষণা আছে। কিন্তু ট্রাম্প আমলের এইচ ওয়ান বি ভিসা নীতি অথবা প্যারিস জলবায়ু চুক্তির মতো বিষয়গুলো তুলতে ব্যর্থ হয়েছে ভারত।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: