সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

খালেদা জিয়ার ‘বাদামি খামে’ ঈদ শুভেচ্ছা নিয়ে বিভ্রান্তি

khalada-zia20170624092535নিউজ ডেস্ক:: বাদামি রঙের খামে কিছু গণমাধ্যমকর্মীকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে ঈদ শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। বিষয়টি জানা নেই সংশ্লিষ্টদের। নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠানোর কথা বলা হলেও এ নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বিভ্রান্তির মধ্যে পড়েছেন গণমাধ্যমকর্মীরাও।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন ধরে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দফতর থেকে কিছু গণমাধ্যমকর্মীকে ফোন করে বলা হয়, ‘আপনার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসনের পক্ষ থেকে ঈদ শুভেচ্ছা বার্তা রয়েছে। নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে এসে তা নিয়ে যান।’

এ খবরে নিজেদের সুবিধা মতো সময়ে গণমাধ্যমকর্মীদের কেউ কেউ বিএনপি চেয়ারপারসনের ঈদ শুভেচ্ছা আনতে গেলে অফিসের কর্মচারীরা তাদের একটি করে বাদাদি রঙের খাম ধরিয়ে দেন। আর সেই খাম খুলে ‘তাজ্জব’ বনে যান অনেকে। কেউ কেউ আবার সেই খাম নয়াপল্টনে ফেরতও পাঠিয়েছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের তথ্য সংক্রান্ত বিষয় সাধারণত তার প্রেস উইং থেকে জানানো হয়। আর চেয়ারপারসনের বিষয় হলে দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরামের সদস্যদেরও জানার কথা।

তবে নয়াপল্টন থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের জন্য চেয়ারপারসনের বাদাদি খামের ঈদ শুভেচ্ছা দেয়ার বিষয়টি জানেন না সংশ্লিষ্ট কেউ, এমনকি স্বয়ং চেয়ারপারসনও।

নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের দেয়া ঈদ শুভেচ্ছা কি চেয়ারপারসন না কি দলের পক্ষ থেকে কোনো নেতা দিয়েছেন- এমন প্রশ্নের উত্তরে দলটির সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু জাগো নিউজকে বলেন, ‘ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে। আর ম্যাডাম মানেই বিএনপি, বিএনপি মানেই ম্যাডাম।’

একই প্রশ্ন করা হয় অপর সহ-দফতর সম্পাদক বেলাল আহমেদকে। তিনি এ প্রতিবেদককে পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘এটা নিয়ে কারো কৌতূহল নেই। আপনার এতো কৌতূহল কেন।’

এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা আলোচনার বিষয় না।’

দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তারা বিষয়টি জানেন না বলে জানিয়েছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার ও শাইরুল কবির খানও ‘বিষয়টি জানেন না’ বলে জানিয়েছেন জাগো নিউজকে।

শাইরুল কবির খান জানান, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্রতি বছর ঈদকার্ডের মাধ্যমে ব্যবসায়ী, রাজনীতিক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন মহলে শুভেচ্ছা জানিয়ে থাকেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন তার সহকারী প্রেস সচিবের দায়িত্ব পালন করেছেন মহিউদ্দিন খান মোহন। বিষয়টি নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বা রাজনৈতিক দলের প্রধানের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের ঈদ শুভেচ্ছা দিতেই পারেন। এটা আমাদের সংস্কৃতি। তবে প্রধানমন্ত্রী তার ডিপিএস বা এপিএস’র মাধ্যমে এটি দেন।

‘বিএনপি চেয়ারপারসনের নামে দলীয় কার্যালয়ের কর্মচারীদের দিয়ে ঈদকার্ড প্রদান দলীয় প্রধানের সৌজন্যতাকে খাটো করা হয়েছে। চেয়ারপারসনের প্রেস উইং বা দলের প্রচার সম্পাদক অথবা দায়িত্বশীল কোনো নেতা এটা দিতে পারতেন’- যোগ করেন তিনি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: