সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জকিগঞ্জে নবাবী মসজিদের কবরস্থানের ভূমি আত্মসাতের অভিযোগ

unnamed (16)ক্ষমতাসীন দলের প্রভাব খাটিয়ে মোঘল আমলে প্রতিষ্ঠিত জকিগঞ্জের খিলগ্রাম নবাবী (গায়েবি) মসজিদের কবরস্থানের ভূমি আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গ্রামের মৃত জোয়াদুর রহমানের ছেলে মুহিবুর রহমান ও খলিলুর রহমান কবরস্থানের ভূমি জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে দখল করে রেখেছেন বলে অভিযোগ করেছেন গ্রামবাসী। বুধবার সিলেট প্রেসক্লাবে খিলগ্রামবাসীর উদ্যোগে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আলহাজ্ব মো. সরফ উদ্দিন চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৮৭০/৭৫ খ্রিস্টাব্দে শরিফাবাদ এলাকার বিশিষ্ট আলেম মরহুম আরজান আলী স্বপ্নযোগে অবগত হয়ে জনসাধারণকে নিয়ে বড় বড় বৃক্ষ জঙ্গল কেটে এই মসজিদটি আবাদ করেন। তখন থেকে এ মসজিদটি গায়েবি মসজিদ হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। ১৯৮৪ খ্রিস্টাব্দে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়ক পর্যন্ত নতুন রাস্তা নির্মিত হলে রাস্তার পশ্চিম পাশের অংশকে এলাকাবাসী কবরস্থান হিসেবে ঘোষণা করেন। রাস্তার পূর্ব পাশে ১৫০৭ দাগে খিলগ্রাম মৌজায় প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপিত হয়। এই দাগে ২২টি তালুকের স্বত্তাধিকারী রয়েছে। এসব তালুকের স্বত্ব কবরস্থানে দান করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে সরফ উদ্দিন বলেন, ২০০৫ সালে নতুন জরিপের কাজ শুরু হলে খিলগ্রামের মুহিবুর রহমান ও খলিলুর রহমান জরিপ কর্মকর্তার সাথে অবৈধ লেনদেনের মাধ্যমে কবরস্থানের অংশ থেকে ২৯ শতক জমি মাঠ জরিপে রেকড করে নেয়। অংশীদারসহ মুহিবুর রহমান ও খলিলুর রহমান তিনটি খতিয়ানে সর্বমোট ১৭ শতকের জমির স্বত্বাধিকারী। এর মধ্যে মুহিবুর রহমানের অংশে দুই শতক পড়ে। মুহিবুর রহমান ও তার অংশীদাররা তাদের জমি পূর্বেই কবরস্থানে দান করে দিয়েছেন। এছাড়া মুহিবুর রহমান জরিপকালে একই দাগে নিজের চলাচলের রাস্তার জন্য ১৪ শতক এবং স্কুলের জন্য ৪৬ শতক শতক রেকর্ড করায়। কবরস্থানের বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকাবাসী বৈঠকে বসেন। এতে মুহিবুর রহমান ওয়াদা করেন সম্পূর্ণ জমি ফেরত দেবেন। এরপর তিনি কালক্ষেপণ করায় ২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে এলাকার বিশিষ্ট আলেম ও জনসাধারণের সমন্বয়ে মসজিদে একটি বৈঠক বসে। এই বৈঠকেও তিনি ওয়াদা করেন ১০ দিনের মধ্যে মসজিদের কবরস্থানের ভূমি ফেরত দেয়া সম্পন্ন করবেন। পরবর্তীতে চক্রান্ত করে তিনি সময় ক্ষেপন করেন।

তিনি বলেন, মুহিবুর রহমান ক্ষমতাসীন দলের ইউনিয়নের নেতা হওয়ায় এলাকাবাসীর কোনো কথার তোয়াক্কা করছেন না। তার বিপক্ষে গেলে তিনি দলের প্রভাব খাটিয়ে সাধারণ মানুষকে নানাভাবে হয়রানি করছেন। সংবাদ সম্মেলনে ঐতিহ্যবাহী মসজিদের কবরস্থান উদ্ধারে ও মুহিবুর রহমান এবং খলিলুর রহমানের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন খিলগ্রামবাসী। সংবাদ সম্মেলনে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। – বিজ্ঞপ্তি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: