সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ২০ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৮ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ফরমালিনমুক্ত মাছ…!!

fishdsltমোহাম্মাদ রুবেল তালুকদার:: হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলা পুকড়া ইউপির অদুরে অর্ধবেলায় বরাকনদীতে মাছ ধরে ঠিক দুপুর বেলায় আলীগঞ্জের বাজারে খালের পাড়ের খোলা জায়গায় ২.৩০ মিনিটে থেকে ৩.৩০ মিনিটে প্রায় ঘন্টাব্যাপী ফরমালিন মুক্ত ছোট মাছের হাট দেখা গেছে। পুঁটা, বাইম, লাটি,দেশি মাগুর, গুতুমসহ ছোট মাছই পাওয়া যায়। মাঝে মাঝে বড় মাছও দেখা যায়। বিভিন্ন স্থান থেকে আগত ব্যক্তিরা চাহিদামত মাছ কিনে যাচ্ছেন। আর পেয়ে যাচ্ছেন ফরমালিনমুক্ত তরতাজা এবং সুস্বাদু- বিষমুক্ত মাছ।

সুত্রে জানায় যায়, স্থানীয়রা মাছ কিনতে পারলেও বাইরের লোকজনের ক্ষেত্রে মাছ কিনার নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

সরজমিনে দেখা যায়, বরাকনদীর ঘেষা একটি খালে কতগুলো ছোট ছোট ডিঙ্গি নৌকায় জেলেরা মাছ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করছে আবার আরেক পক্ষ ছোট ছোট পাত্র করে পানিসহিত বৈচিত্র্যময় মাছ বাজারে দিকে নিয়ে যাচ্ছে। প্রচন্ড তাপদাহে মধ্যে সেখানে লাইনে দাঁড়িয়েছেন জেলেরা। আর মাছ দর-দামে নিয়ে ব্যস্থ ক্রেতা ও বিক্রেতারা।

শহর থেকে আগত চৌধুরীবাজারের বাসিন্দা আব্দুল মালেক বলেন, শহরের বাজারের ফরমালিনযুক্ত মাছ কিনা থেকে মাঝে মাঝে আলীগঞ্জে বাজারে আসি। ১/২ হাজার টাকার মাছ কিনে নেই। তবে পরিচিত লোকজনে মাধ্যমে কিনতে হয়। বাইরে লোকজন নিকট মাছ বিক্রি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

২০০ টাকায় টেংরা মাছ কিনেচেন দৌলতপুরের নাম না জানা এই লোক জানান, বাইরের লোকদের নিকট মাছ বিক্রি নিষেধ রয়েছে। কারণ তারা এসে দর-দামে না করে যে মাছ ২০০ টাকা বিক্রি হওয়ার কথা সেই মাছ ৪/৫শতটাকা দিয়ে কিনে নেয়। তরতাজা মাছ হওয়ায় তারা বেশি দামে কিনে নেয়। ফলে আমরা মাছ কিনতে পারি না।এর প্রেক্ষাপটে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা এ ব্যাপারে কঠোর হন। যা আজও বলবৎ আছে।

প্রচন্ড তাপদাহে বাবার কাজে সহযোগিতারত ৫ জন জেলে পরিবারে ক্ষুদে শিশুরা জানান,” আরে দাদা, ভোর বেলায় মাছ ধরতে গেছিলাম। সারাদিন মাছ ধরে এখন নৌকায় বসে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতেছি। পাত্র ভর্তি মাছ নিয়ে বাবা গেছে বাজারে। মাছ পরিস্কারের দায়িত্ব দিছে। মাছ বেশি হলে পরিশ্রমটা কাজে লাগে। দু বেলা দুমোটো ভাত সংগ্রহে রীতিমত হিমসিম খাচ্ছেন বাবারা”।

তারা আরও জানায়, “আগের মতো পানি টানি হয় না। মাছ ও ধরা দেয় না । ভাগ্য ভাল হলে কোনো কোনো দিন বেশ বড় বড় মাছ ধরা দেয় আবার অনেক সময় খালি হাতে ফিরতে হয়। আর এইভাবে চলছে আমাদের জীবনযাত্রা”।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: