সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ২৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কুলাউড়ায় বন্যায় আউশ ধানের ব্যাপক ক্ষতি

1. daily sylhet 0-16মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:: গত এক সাপ্তাহের ভারী বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলা দিয়ে বয়ে যাওয়া মনু, ফানাই, গোগালী, কাপুফা ও শুকনাছড়া নদীর বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয় উপজেলার শাতাধিক গ্রাম। ফলে এসব এলাকার ৬ শতাধিক হেক্টর আউশ ধানের জমি পানিতে তলিয়ে যায়। এছাড়াও ২ শতাধিক হেক্টর জমি রোপণ করা যাবে এমন ধরণের আমন চারাও ঢলের পানিতে নষ্ট হয়ে যায়। বর্তমানে ঢলের পানি চলে গেলেও মুছেনি কৃষকের চোখের পানি। আউশ ক্ষেত ও আমন চারা ছাড়াও উপজেলার রাউৎগাঁও, হাজীপুর, টিলাগাঁও, ব্রাহ্মণবাজার ও জয়চ-ী ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকায় বিভিন্ন ধরণের সবজি ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সম্প্রতি অকাল বন্যায় তলিয়ে যায় বোরো ক্ষেত। সেই রেশ কাটতে না কাটতে নদী ভাঙনে কৃষকের আউশ ধানের ক্ষেত ও আমন চারা বিনষ্ট হয়ে যায়। সবমিলিয়ে গত এক যুগেও এতো ভয়াবহ বিপর্যয় ঘটেনি এ উপজেলায়। প্রাকৃতিক দুর্যোগে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে এ অঞ্চলের জনজীবন। সন্নিকটে ঈদ। কিন্তু এবার ঈদ আনন্দের প্রস্ততিও নেই দুর্গতদের মধ্যে।

উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে ৩ লাখ ৬০ হাজারেরও বেশি লোকজনের বসবাস এ উপজেলায়। একদিকে পাহাড় আর অন্যদিকে এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকি। চৈত্র মাসের মাঝামাঝি সময় অকাল বন্যায় উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের শতভাগ বোরো ধান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেই ক্ষতের দাগ এখনও দগদগে। হাওরতীরের মানুষকে ঘুরে দাঁড়াতে অপেক্ষা করতে হবে আগামী বোরো মৌসুমের অর্থাৎ পুরো একটি বছর। এর ২ মাস অতিক্রম হতে না হতেই সীমান্তের ওপার থেকে আসা কুলাউড়ার দুঃখখ্যাত মনুনদীর ভাঙনে ল-ভ- হয়ে যায় আরও ৬টি ইউনিয়ন। শুধু মনুনদী নয়, পাহাড়ি ঢলে কুলাউড়া উপজেলা দিয়ে প্রবাহিত গোগালী, ফানাই, কাপুফা ও শুকনাছড়া নদীতেও ভাঙন সৃষ্টি হয়। ফলে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের মানুষের ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট আর আউশ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। এ দু’টি বড়ো বিপর্যয়ের মাঝে ছিলো কালবৈশাখীর তা-ব ও শিলাবৃষ্টির আঘাত।

এ বিষয়ে কুলাউড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জগলুল হায়দার জানান, ঢলে নদী ভাঙনের কারণে কুলাউড়ায় অন্তত ৬০০ হেক্টর জমির ফসলের ক্ষতি হয়েছে। এছাড়াও অনেক এলাকায় সবজি ক্ষেতের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে সরকারিভাবে বিভিন্ন ধরণের সহায়তা করা হচ্ছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: