সর্বশেষ আপডেট : ২০ মিনিট ৩৩ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

একদিন শুধু উচ্চবিত্তরাই শহরে থাকবেন !

15193451_1258941147498218_8671937789713963961_n copyঅহী আলম রেজা :: 
শহরে একদিন শুধু উচ্চবিত্তরাই থাকবেন! পুঁজিবাদীদের দখলে চলে যাবে শহর-নগর। বড় বড় অট্টালিকার মালিক হবেন তাঁরাই। প্রকাশনা, ঠিকাদারি, দরপ্তর, ব্যবসা-বাণিজ্যের নিয়ন্ত্রণ থাকবেই কতিপয় ব্যক্তির হাতে। শতাধিক মানুষের সম্পদের ভোগ করবেন একজন!

বাড়িভাড়া, গ্যাসবিল, বিদ্যুৎবিল আর দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত আর নিম্নবিত্তরা শহর ছেড়ে পালাবেন। নাগরিক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে গ্রামে ফিরে যাবে মানুষ। মধ্য ও নিম্ন আয়ের মানুষ আবার ধানের গোলায়, মাটির ব্যাংক বা বালিশের নিচে ভরে রাখবেন তাদের সঞ্চয়।
বাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি আর অসহনীয় বিদ্যুৎ বিলের কারণে অতিষ্ঠ নগরজীবন। পয়লা জুন থেকে গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে নাভিশ্বাস উঠেছে মানুষের। এর মধ্যে আছে, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি, বিদ্যুৎ বিভ্রাট, ফুটপাত দখল, দুর্গন্ধ, ময়লা, ছিনতাই- এসবই নগরজীবনের অনুষঙ্গ।

গত বৃহস্পতিবার বাজেট প্রকাশের পর পরই বেড়ে গেছে সব ধরনের পণ্যের দাম। যেসব জিনিসের দাম কমার কথা, সেসব জিনিসের দামও বাড়ছে হু হু করে। বাজেটের পরদিন গতকাল শুক্রবার সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)র পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কর কাঠামোয় জীবনযাত্রার ব্যয় বাড়বে।
সংবাদ সম্মেলনে সিপিডির সম্মাননীয় ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, ভ্যাট আইনসহ সামগ্রিক কর কাঠামো বাস্তবায়নের ফলে উৎপাদন ব্যয় ও ভোক্তা ব্যয় বাড়বে। এছাড়া চালের দামও বাড়ছে। গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে রপ্তানি আয় ও রেমিট্যান্স কম আসায় টাকার বিপরীতে ডলারের দাম আরও বেড়ে যাবে। এর ফলে আগামী অর্থবছরে মূল্যস্ফীতি অনেক বেড়ে যাওয়া আশঙ্কা রয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেটের কারণে মধ্যব্ত্তি ও নিম্ম মধ্যবিত্তদের উপর করের চাপ বেশি পড়বে।

এমনিতে প্রতি বছর রমজান আসলে এক শ্রেণির ব্যবসায়ী দাম বাড়ানোর ধান্ধায় থাকেন। বাজেটের পর তাদের এ সুযোগটা যেন হাতের নাগালে চলে এল।
আমাদের নাগরিক জীবনের অন্যতম সঙ্গী এখন মোবাইলফোন। প্রস্তাবিত বাজেটে মোবাইলফোন সেটের আমদানি শুল্ক ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করা হয়েছে। এতে মোবাইল কিনতে হলে বেশি অর্থ খরচ করতে হবে।
শহরের মানুষের বাড়তি খাবারের নাম ফাস্টফুড। এসব ফাস্টফুডের উপরও ভ্যাট বসানো হয়েছে এবার। চিকেন ফ্রাই, বার্গারের ওপর ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক বসানো হয়েছে। এতে এ ধরনের ফাস্টফুডের দাম বাড়বে।

স্বর্ণের দাম বেশি হওয়ায় নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত নারীদের প্রিয় ইমিটেশন জুয়েলারির দাম বাড়বে। এ পণ্যটির সম্পূরক শুল্ক ২০ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করা হচ্ছে। এ ছাড়া ভ্যাটহারও বাড়ানো হয়েছে।
বাজেটে লিথিয়াম, লেড এসিড, ম্যাঙ্গানিজ ডাইঅক্সাইডসহ সব ধরনের ব্যাটারির সম্পূরক শুল্ক ২০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। তাই ব্যক্তিগত গাড়িতে ব্যবহৃত ব্যাটারিসহ, আইপিএস, ইউপিএসে ব্যবহৃত ব্যাটারির দাম বাড়বে।

রান্নাঘরে ব্যবহৃত টেবিলওয়্যার ও কিচেনওয়্যারের সম্পূরক শুল্ক ২০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এতে পণ্যটির দাম বাড়বে। ডেন্টাল প্লেট ব্রাশসহ সব ধরনের টুথব্রাশের শুল্ক ২০ থেকে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এ কারণে এ জাতীয় পণ্যের দাম বাড়বে।
ব্যাংকে এক লাখ টাকা পর্যন্ত জমা বা উত্তোলনের ওপর থেকে কোনো ধরনের এক্সাইজ ডিউটি বা আবগারি শুল্ক নেবে না সরকার। তবে বছরের যেকোনো সময় যেকোনো ব্যাংক হিসাবে এক লাখ এক থেকে ১০ লাখ পর্যন্ত যেকোনো অঙ্কের টাকা জমা বা তোলা হলে বছর শেষে ওই হিসাব থেকে আবগারি শুল্ক বাবদ ৮০০ টাকা কাটা হবে। প্রতিবছর ৩১ ডিসেম্বর এই শুল্ক কর্তন করে সরকারি কোষাগারে জমা দেয় ব্যাংকগুলো।

নতুন অর্থবছরের বাজেটে ১০ লাখ এক টাকা থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত লেনদেনের ওপর দুই হাজার ৫০০ টাকা আবগারি শুল্ক আরোপ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে একই অঙ্কের ওপর এক হাজার ৫০০ টাকা নিচ্ছে সরকার।
আগামী অর্থবছরে এক কোটি এক টাকা থেকে পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত লেনদেনের ওপর ১২ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক প্রস্তাব করা হয়েছে। একই অঙ্কের লেনদেনের ওপর চলতি অর্থবছরে সাত হাজার ৫০০ টাকা আবগারি শুল্ক দিতে হচ্ছে। আগামী অর্থবছরে পাঁচ কোটি এক টাকা থেকে এর ওপরে যেকোনো অঙ্কের লেনদেনে ২৫ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে। বর্তমানে একই অঙ্কের লেনদেনে আবগারি শুল্ক বাবদ দিতে হচ্ছে ১৫ হাজার টাকা।

লেখক : শিক্ষক, সাংবাদিক।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: