সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ২ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

চালের দাম সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশে, কম ভিয়েতনামে

rice20170530094425আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশেই এখন চালের দাম সবচেয়ে বেশি। এমনকি দেশের মধ্যেও চালের এই দাম নতুন রেকর্ড গড়েছে। সরকারি হিসেবে প্রতি কেজি ৪৮ টাকা দরে চাল বিক্রি হচ্ছে; যা পাকিস্তানের তুলনায় ১০ টাকা বেশি। খবর ব্ল্যাকসিগ্রেইন।

চালের দাম পর্যবেক্ষণকারী তিনটি সংস্থার তথ্য মতে, গত একবছর ধরে চালের দাম বাড়ছে।

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাব অনুযায়ী, গত এক মাসেই চালের দাম ১১ শতাংশ বেড়েছে এবং বিগত এক বছরে বেড়েছে দ্বিগুণ। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, ভুল নীতি গ্রহণ এবং সঠিক পদক্ষেপ না নেয়ায় এভাবে দাম বেড়েছে।

খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম চালের এই বাড়তি দাম নিয়ে সুনির্দিষ্ট করে মন্তব্য করেননি। তিনি বলেন, চাল সংগ্রহের বিষয়ে চুক্তি করে ভিয়েতনাম থেকে কেবল দেশে ফিরেছি। বাংলাদেশে চালের দাম নিয়ে এখনই কিছু বলতে পারব না।

খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত দৈনিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভিয়েতনামে চালের দাম বিশ্বে সবচেয়ে কম। প্রতিকেজি ৩৩ টাকা ৬২ পয়সা দরে দেশটিতে চাল বিক্রি হয়। প্রতিবেশী দেশ ভারতে প্রতিকেজি ৩৪ টাকা ৪৩ পয়সা, থাইল্যান্ডে ৩৭ টাকা ৮১ পয়সা এবং পাকিস্তানে ৩৮ টাকা ৫৪ পয়সা দরে চাল বিক্রি হয়।

এই অঞ্চলের বাইরে, বিশ্বের বৃহত্তম চাল উৎপাদনকারী দেশ চীন, ইন্দোনেশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। দেশগুলো আন্তর্জাতিক বাজারে চাল বিক্রি না করে উল্টোদিকে তারা চাল আমদানি করে থাকে।

আন্তর্জাতিক চালের বাজারে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি দামে চাল বিক্রি হচ্ছে। কিন্তু, এ কথাও সত্য যে, আন্তর্জাতিক বাজারে চালের দাম বাড়তে শুরু করেছে।

খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভিয়েতনাম ছাড়া চাল বিক্রয়কারী সব দেশে গত এক সপ্তাহে চালের দাম বেড়েছে। থাইল্যান্ডে বেড়েছে ৫ দশমিক ১৭ শতাংশ, যেখানে ভারতে ১ দশমিক ৫৪ শতাংশ এবং পাকিস্তানে বেড়েছে ২ শতাংশ।

খাদ্য ও কৃষি সংস্থার এপ্রিল মাসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত বছরের তুলনায় এ বছর বিশ্বে চাল উৎপাদন কমবে ৬ লাখ টন।

২০১৫-১৬ অর্থ বছরে চাল উৎপাদন হয়েছিল একশ ৭৩ দশমিক ৩ মিলিয়ন টন। এ বছর দুই মিলিয়ন টন চাল কম উৎপাদন হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ইন্টারন্যাশনাল ফুড পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট (আইএফপিআরআই) বলছে, ২০১৬ সালের অক্টোবরে চালের দাম ৩৮ টাকা কেজি ছিল।

২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় কেজি প্রতি ৩৬ টাকা দরে চাল বিক্রি হতো। ২০১২ সালে এসে ধানের অধিক ফলনের কারণে চালের দাম কমে ২৬ টাকায় নেমে আসে।

কিন্তু দ্বিতীয় মেয়াদে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০১৪ সাল থেকে চালের দাম বেড়েই চলেছে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিল ৩০ টাকা দরে চাল দেয়ার। কিন্তু ২০১৫ সালে এসেই চালের দাম বেড়ে ৩৩ টাকায় উঠে যায়।

তারপর থেকেই লাগাতার বাড়ছে চালের দর। এখন সারাবিশ্বে বাংলাদেশেই বেশি দরে চাল বিক্রি হচ্ছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: