সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এবার রিকশায় ঘুরলেন শেখ হাসিনা

image-33039নিউজ ডেস্ক:: প্রধানমন্ত্রী যেখানেই যান সেখানেই নির্ধারিত কর্মসূচির বাইরে এমন কিছু করেন যাতে চমক থাকে। কখনো সাতসকালে ভ্যানে চড়ে পিতৃভূমি ঘুরে দেখেন, কখনো আবার সমুদ্রে খালি পায়ে হাঁটেন। আবার  বিদেশের মাটিতে ছোটবোন শেখ রেহানাকে নিয়ে বরফখেলায় মেতে ওঠেন। তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে এসব চমকে দেয়ার ঘটনার ছবি তো চেপে রাখা যায় না। তাই বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব ছবি ভাইরাল হয়ে যায়।

সম্প্রতি কক্সবাজার সফরে প্রধানমন্ত্রীর সমুদ্রের তীরে পা ভেজানোর ছবি ভাইরাল হয়। এবার বন্যাকবলিত হাওর অঞ্চল নেত্রকোনা সফরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর রিকশায় চড়া একাধিক ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে। অনেকেই তার পছন্দের এই ছবিগুলো শেয়ার করছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে অকাল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওর পরিদর্শনে এবং ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করতে নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে যান প্রধানমন্ত্রী। এর আগে সকাল নয়টার দিকে ঢাকার তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে একটি হেলিকপ্টারে করে নেত্রকোণার উদ্দেশে রওনা হন প্রধানমন্ত্রী। সকাল পৌনে ১০টার দিকে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টরটি খালিয়াজুরী পৌঁছায়।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে থাকা আওয়ামী লীগের ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ ঢাকাটাইমসকে জানান, প্রধানমন্ত্রী খালিয়াজুরী হাসপাতালের সামনে থেকে উপজেলা ডাকবাংলা পর্যজন্ত আধা কিলোমিটারের মতো পথ রিকশায় করে আসেন। ডাকবাংলায় পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী রিকশাচালককে বকশিসও দিয়েছেন।

তবে কত টাকা বকশিস দিয়েছেন তা বলতে পারেননি আওয়ামী লীগের এই কেন্দ্রীয় নেতা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আসা ছবিতে দেখা গেছে, ক্রিম কালারের এবং লাল পাড়ের শাড়ি, চোখে সানগ্লাস পরে রিকশায় বসে আছেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় নিয়োজিত সদস্যরা রিকশার সামনে পেছনে থাকলেও আশপাশে  আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের দেখা গেছে। একটি ছবিতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগকে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী রিকশার ঠিক পেছনে দাঁড়ানো দেখা গেছে।

অন্যদিকে নেত্রকোনার এই রিকশাচালকেও বেশ পরিপাটি দেখা গেছে। তরুণ এই রিকশাচালককে দেখা গেছে টি-শার্ট পরা, পরনে ছিল সাদা পাজামা।

গত ২৭ জানুয়ারি গোপালগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর ভ্যানচালক ছিলেন ওই এলাকার যুবক  ইমাম হোসেন। পরে গণমাধ্যমের কাছে তিনি বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে নিজের চাকরি কথা বলতে চেয়েছিলেন, কিন্তু লজ্জায় বলতে পারেননি। এই খবর চাউর হলে বিমানবাহিনী কর্তৃপক্ষ থেকে তাকে চাকরির ব্যবস্থা করেন।

তবে নেত্রকোনার এই রিকশাচালকের পরিচয় এবং তার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কোনো কথাবার্তা হয়েছে কি না সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: