সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ১৮ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২৪ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শ্রীমঙ্গল বাজারে আগাম লিচু, দাম আকাশছোঁয়া

unnamed (1)00তোফায়েল আহমেদ পাপ্পু:: শ্রীমঙ্গলের বাজারে আসতে শুরু করেছে গ্রীষ্মের সবচেয়ে স্বল্পমেয়াদী ফল লিচু। শহরের নতুন বাজার থেকে শুরু করে প্রত্যেকটি ফলের দোকানগুলোয় গত এক সপ্তাহ থেকে আগাম জাতের লিচু বিক্রি হতে দেখা যাচ্ছে। এছাড়াও শহরের ষ্টেশন রোড, হবিগঞ্জ রোড, মৌলভীবাজার রোড, গদার বাজার, পুরান বাজারসহ বিভিন্ন পয়েন্টগুলোতে লিচু ব্যাবসায়ীদের দেখা যায়। তবে মৌসুমের কিছুটা আগেই বাজারে আসা এসব লিচুর দাম আকাশছোঁয়া। সাধারণ, নি¤œবিত্ত ও নি¤œ মধ্যবিত্ত মানুষের এসব লিচু কেনার সামর্থ্য নেই, তাদের নাগালের অনেক বাইরে এসব লিচুর দাম। বাজার ঘুরে দেখা যায়, আকার ও মান ভেদে শ্রীমঙ্গল ফলের দোকানগুলোয় খুচরা দামে প্রতি ১০০ লিচু বিক্রি হচ্ছে ৩০০ টাকা থেকে ৪০০-৬০০ টাকায়। পাইকারি পর্যায়ে এসব লিচুর প্রতিশ’ বিক্রি হচ্ছে ১৭০ থেকে ৩০০ টাকা। আগাম লিচুর দোহাই দিয়ে খুচরা ব্যবসায়ীরা বেশি দামে তা বিক্রি করছে বলে অভিযোগ করেছেন ক্রেতারা। সাধ্যের বাইরে হওয়ায় দাম শুনেই কেনার ইচ্ছা দমন করছেন তারা, খালি হাতেই বাড়ি ফিরছেন বেশিরভাগ ক্রেতা। শ্রীমঙ্গল গদার বাজারে লিচু কিনতে আসা এক মহিলা (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) লিচুর দাম জানতে চাইলে দোকানদার দাম চাইল প্রতি’শ’ ৩০০ টাকা। লিচুর চড়া দামের কারণে হাতেগোনা কয়েকজন ব্যবসায়ীকেই লিচু বিক্রি করতে দেখা গেছে। লিচুর দোকানিরা বলছেন, আগাম জাতের লিচু বলে বাজারে সরবরাহ অনেক কম, তাই এসব লিচুর দাম একটু বেশি।

লিচু বিক্রেতা পরিতোষ রায় জানান শ্রীমঙ্গল বাজারে বিক্রি হওয়া এসব লিচু, দিনাজপুর, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদি, রাজশাহী ও নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থেকে আসছে বলে জানান। এছাড়া বাজারে সাতক্ষীরা থেকেও কিছু পরিমাণ লিচু আসছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এসব এলাকা থেকে আসা মঙ্গল বাড়িয়া জাতের লিচু বাজারে করফি লিচু নামে বিক্রি হচ্ছে। এ লিচুর দাম অন্য লিচুর চেয়ে আবার বেশি। এছাড়াও লিচু ব্যাবসায়ীরা বারি, বেদানা, বোম্বাই ও মাদ্রাজি জাতের লিচু বিক্রি করতে দেখা যায়।
তবে বাজার ঘুরে দেখা গেছে বিক্রি হওয়া বেশিরভাগ লিচুই স্বাধে কিছুটা টক-মিষ্টি এবং আকারে ছোট। বাজারে চড়া দামের কারণে লিচু বাগানের মালিকরা ফল পাকার আগেই বাজারে লিচু নিয়ে আসছেন তাই এসব লিচু কিছুটা টক স্বাদের বলে জানালেন ব্যবসায়ীরা।
শ্রীমঙ্গল শহরের চৌমুহনায় লিচু বিক্রেতা থেকে কলেজ ছাত্রী স্বর্ণা রায় ৩০০ টাকা দিয়ে ১০০ লিচু কিনলেন। কিন্তু লিচু খেয়ে দেখেন লিচু টক। তিনি জানান, ছোট বোন ও আম্মু লিচু খেতে চেয়েছেন , দাম অনেক বেশি হলেও লিচু কিনেছেন তিনি। লিচু টক কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে দোকানদার জানান, বেশি টাকার আশায় বাগান মালিকরা লিচু পাকা ও বড় হওয়ার আগেই তা বিক্রি করে দিচ্ছেন। তাই স্বাদে একটু টক। তবে রাজশাহী, নাটোর এলাকার বড় ও গাছপাকা লিচু এলে এবং আরো দুই-এক সপ্তাহ গেলে বাজারে মিষ্টি লিচু পাওয়া যাবে। মৌসুমের নতুন ফল বলে স্বাদে টক হলেও মানুষ লিচু কিনছে বলে জানালেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: