সর্বশেষ আপডেট : ১৮ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

উমরপুর ইউপি সদস্যদের সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

unnamed (2)ওসমানীনগরের সিকন্দপুর পশ্চিমগাঁওয়ে একটি প্রভাবশালী পরিবারের মদদে প্রণধীর সূত্রধর ও তার পরিবারের সদস্যরা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন উমরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যবৃন্দ। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইউপি সদস্য মাহফুজুল হক আকলু।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সিকন্দরপুর পশ্চিমগাঁওয়ে প্রভাবশালী পরিবারের বাড়িতে বসবাসকারী প্রণধীর সূত্রধর ওই পরিবারের মদদে নিজস্ব একটি বাহিনী গড়ে তুলেছে। তারা এলাকার নিরীহ লোকজনকে মামলা দিয়ে হয়রানি ছাড়াও হামলা, খুন, লুন্ঠন, অপহরণ অগ্নিসংযোগসহ নানা অপরাধ কর্মকান্ড চালাচ্ছে।

লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, উমরপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান জনদরদী ব্যক্তি হিসেবে এলাকায় সুপরিচিত। তিনি গত নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে উপজেলার মধ্যে সর্বাধিক ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে ও বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে ওই কুচক্রি মহল উঠেপড়ে লেগেছে। প্রণধীর ও তার সহযোগীদের ব্যবহার করে চেয়ারম্যান ও মেম্বার আকলুর বিরুদ্ধে ওই মহল অপপ্রচার চালিয়ে গোলাপানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে। প্রণধীর সূত্রধরের নিজস্ব বাড়ি কিংবা জায়গা জমি না থাকায় সে প্রভাবশালী ওই পরিবারের আশ্রিতা হিসেবে তাদের ইশারায় নানা অপকর্ম করে যাচ্ছে। বানাইয়া হাওর থেকে মৎস্যজীবী ও স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ে প্রণধীরের বিরুদ্ধে উপজেলা কর্মকর্তার নিকট ৬ ফেব্রুয়ারি লিখিত অভিযোগ করে গ্রামের সাধারণ মানুষ। ১৭ মার্চ প্রণধীরের এক সহযোগীর বাড়িতে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে র‌্যাবের একটি দল অভিযান চালায়। এজন্য প্রণধীর ও তার ওই সহযোগী গ্রামের মৃত আব্দুর রবের পুত্র শাকিলের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। র‌্যাব চলে যাওয়ার পর প্রণধীর ও তার সহযোগীরা শাকিলের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে ও শাকিলের শিশুকন্যাসহ কয়েকজনকে আহত করে। এ ব্যাপারে প্রণধীরসহ ২২ জনকে আসামি করে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ৪৫/১৭। প্রণধীর ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে এলাকায় মানুষকে আতঙ্কে রাখতে অবৈধ অস্ত্রের মহড়া ও ফাঁকা গুলি বর্ষণের অভিযোগের সত্যতা পেয়ে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। মামলা নং ১০।

সংবাদ সম্মেলনে তারা উল্লেখ করেন, এছাড়াও প্রণধীর ও তার সহযোগীরা প্রকাশ্যে নেশাদ্রব্য সেবনসহ, পরিবারের সদস্যদেরকে দিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে আসছে। প্রণধীরের বিরুদ্ধে ওসমানী নগর থানায় একাধিক মামলা রয়েছে এবং একাধিকবার জেলও কেটেছে। প্রণধীর ও তার সহযোগীদের অপপ্রচার এবং সন্ত্রাসী কার্যকলাপ থেকে এলাকার সাধারণ মানুষ ও জনপ্রতিনিধিদের রক্ষা করতে প্রণধীর ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে ইউপি সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মো. জুয়েল আহমদ, আব্দুল আলিম খোকন, সৈয়দ মাসুদ আলী, মো. সুহেল মিয়া ও আব্দুল খালিক মিয়া। – বিজ্ঞপ্তি

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: