সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১২ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরেও ষাঁড়ের লড়াই

19newspic2017__015


বিশ্বনাথ সংবাদদাতা::
দীর্ঘদিন ধরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার পর অবশেষে মঙ্গলবার বিশ্বনাথে অনুষ্ঠিত হয়েছে ষাঁড়ের লড়াই। উপজেলার সদর ইউনিয়নের হরিকলস ও সেনারগাঁও গ্রামের মধ্য মাঠে এ লড়াই অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৪টায় পর্যন্ত বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে চলে ষাঁড়ের লড়াই। এতে সিলেট বিভাগের ৩০ জোড়া নামকরা ষাঁড় অংশ গ্রহন করে।

প্রতিযোগিতায় স্পেশাল লড়াইয়ে মামু,-ভাগ্না, দশপাইকা, ব্লাক, ষ্টোন লহরী, আন্টার, সৈয়পুর সদুরগাঁও, শাপলা পাড়–য়া, চিতরা ধনপুর, সোনামুখি হাসনাজি, কাটিং মাষ্টার, বিশ্বনাথ, পংকিরাজ, জালালাবাদ, রেড লায়ন, দক্ষিণ সুরমা, শান্তরাজ, সুনামগঞ্জের ষাঁড় বিজয় লাভ করে।

বিজয়ী প্রত্যেক ষাঁড়ের মালিক জিতে নেন ১৪ ইঞ্চি কালার টেলিভিশন। এ ষাঁড়ের লড়াই আয়োজন করেন স্থানীয় সৌখিন ষাঁড়প্রেমী লোকজন। ষাঁড়ের লড়াই’র খবর শুনে সিলেটের বিভিন্ন উপজেলা থেকে লোকজন দেখতে আসেন।

সকাল ৯টা থেকে মানুষজন আসতে শুরু করলে দুপুর ১২টায় কয়েক হাজার মানুষের পদভারে মুখরিত হয়ে উঠে বিশাল এ মাঠটি। বড়দের চেয়ে ছোট ছোট অনেক ছেলে-মেয়েদের মধ্যে ষাঁড়ের লড়াই দেখার আগ্রহ ছিলো লক্ষনীয়। তারা অভিভাবকদের হাত ধরে দেখতে আসে ষাঁড়ের লড়াই।

ছাতক উপজেলা থেকে আসা ফয়ছল মিয়া বলেন, ষাঁড়রের লড়াই দেখার জন্য এখানে এসেছি। দেখতে আমার ভাল লাগে তাই আমি বিভিন্ন জায়গায় ষাঁড়ের লড়াই দেখার জন্য যাই।

ষাঁড়ের লড়াই আয়োজক কমিটির সদস্যরা বলেন, চিরায়ত বাংলার ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য আমরা ষাঁড়ের লড়াইয়ের আয়োজন করেছি।

 

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: