সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১২ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শহিদমিনারে মানববন্ধন : শিক্ষকদের বৈশাখিভাতা না দিলে কঠোর কর্মসূচি

10 April 2017_pic 027এমপিওভুক্ত সকল শিক্ষক-কর্মচারীদের এপ্রিল মাসের বেতনের সাথে বৈশাখি ভাতা দেয়া না হলে সিলেট থেকে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন সিলেটের শিক্ষকরা।
গতকাল রোববার বেলা ১২টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদমিনারের সামনে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বৈশাখিভাতা, বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট ও উচ্চতর বেতন স্কেল প্রাপ্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এ হুশিয়ারি দেন। তাঁরা বলেন, একটি কুচক্রী মহল সরকারকে পরামর্শ দিয়ে দেশের শিক্ষকদের মধ্যে বৈষম্য সৃষ্টি করেছে। এ বৈষম্য কীভাবে দূর করা যায় সেটা শিক্ষকরা জানেন। তাদের সকল দাবি মেনে নিয়ে বৈষম্য দূর করতে হবে। অন্যথায় এর পরিণতি ভয়াবহ হবে। তাঁরা বলেন, শিক্ষকরাও আন্দোলন জানেন। আন্দোলনকারীর জন্মদাতা হচ্ছেন শিক্ষকরা। তাই শিক্ষকদের আন্দোলনে নামানো ঠিক হবে না। যদি শিক্ষকরা আন্দোলনে নামেন, তাহলে এর উচিত জবাব সরকারকে দিতে হবে।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলার আয়োজনে ও জেলা সচিব মো. শমসের আলীর পরিচালনায় মানবন্ধনে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতির সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়কারী ও সিলেট জেলা সভাপতি এএইচ এম ইসরাইল আহমদ। তিনি বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী যত সরকার এসেছে, সবাই শিক্ষকদের সাথে বৈষম্য করেছে। অথচ ভোটগ্রহণ, ভোটার তালিকা হালনাগাদ ও আদমশুমারি থেকে শুরু করে সরকারের সকল কাজ শিক্ষকদের দিয়ে করানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরও রাস্তায় নেমে আন্দোলন করে নতুন স্কেল কার্যকর করতে হয়েছে শিক্ষকদের।
তিনি আরো বলেন, ‘বৈশাখি উৎসব’ একটি অসম্প্রদায়িক উৎসব হওয়া সত্ত্বেও দেশেরে একটি বৃহৎ অংশকে এ উৎসব ভাতা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। সরকার যাদেরকে বৈশাখি ভাতা দিয়েছে, তাঁরা বাসার ড্রয়িং রুমে বসে পান্তা ইলিশ খেয়ে উদযাপন করবে। আর আমরা ভাতা না দিলেও প্রতিষ্ঠানে থেকে উৎসব পালন করতে হবে।
মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতি সিলেট জেলার সাংগঠনিক সচিব অধ্যক্ষ মুজাম্মিল আলী, সদস্য ময়ুর আলী, তাহমিনা পারভীন, সিলেট মহানগর শাখার সভাপতি আহমদ আলী, সচিব মো. জিয়াউর রহমান, বিয়ানীবাজার উপজেলা সভাপতি আব্দুদ দাইয়ান, কানাইঘাট উপজেলা সভাপতি মামুন আহমদ, জকিগঞ্জ উপজেলা সভাপতি কুতুব উদ্দিন, গোলাপগঞ্জ উপজেলার অতিরিক্ত সচিব আব্দুল বাছিত, বালাগঞ্জ উপজেলা সভাপদি রফিকুল আলম, ওসমানীনগর উপজেলার সচিব রিপন সূত্রধর, গোয়াইনঘাট উপজেলা সভাপতি আব্দুল মুনিম। শিক্ষকদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন ছাতক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আফজল হোসেন।
উল্লেখ্য, একই দাবিতে সিলেট বিভাগের চার জেলায় একই সময়ে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষকরা। বিজ্ঞপ্তি

fakhrul_islam

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: