সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
সোমবার, ২১ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘আবৃত্তির মাধ্যমে একটি কবিতার রূপ-রস ও মাধুর্য ফুটে ওঠে’

unnamedলেখক-পাঠকদের সরব উপস্থিতির মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ(কেমুসাস)-এর দশম বইমেলার তৃতীয় দিন অতিবাহিত হয়েছে। বুধবার বইমেলা মঞ্চে নানা আয়োজনের মধ্যে ছিল শিশু-কিশোরদের কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা, প্রকাশনা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বিকেল চারটায় বইমেলা মঞ্চে ‘ক’ এবং ‘খ’ গ্রুপের আবৃত্তি প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়াম্যান আ. ফ. ম কামাল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, কবিতা ও শিল্প সাহিত্য চর্চার মাধ্যমে শিশু-কিশোরদের মেধার বিকাশ ঘটে। প্রতিযোগিতামূলক বিশে^ নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করতে প্রতিযোগিতার বিকল্প নেই। প্রতিযোগিতার মাধ্যমেই আজকের শিশু-কিশোররা একদিন দেশ ও জাতির সুনাম বয়ে আনবে। তিনি বলেন, আবৃত্তির মাধ্যমে একটি কবিতার রূপ-রস ও মাধুর্য ফুটে ওঠে। তিনি শিশুদেরকে বেশি করে বই পড়ার আহবান জানিয়ে বলেন, তোমরাই আগামি দিনের সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তুলবে।

কেমুসাসের সহসাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মবনুর পরিচালনায় ও সহসভাপতি সেলিম আউয়ালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, কেমুসাসের কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সাদেক লিপন, কবি লাভলী চৌধুরী, কবি মিলু কাসেম, কবি মাসুক ইবনে আনিস ও কবি আনোয়ার হোসেন মিসবাহ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্যর একটি জীবন্ত স্মারক। এখানে রয়েছে অর্ধ লক্ষাধিক বই ও যাদুঘর। যেখানে শিশু-কিশোরসহ সর্বস্তরের মানুষ এসে নিজেদের জ্ঞানের পরিধির প্রসার ঘটাতে পারেন।
কবি লাভলী চৌধুরী বলেন, আবৃত্তি একটি শিল্প। আবৃত্তিসহ যেকোনো প্রতিযোগিতায় শিশুদের মেধা বিকাশে অসামান্য অবদান রাখে। তিনি অভিভাবকদেরকে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদে তাদের সন্তানদের নিয়ে আসার আহবান জানান।

দু’টি গ্রুপের আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় বিচারক প্যানেলে ছিলেন আনোয়ার হোসেন মিসবাহ, মতিউর ইসলাম মতিন, ফায়যুর রাহমান এবং মিলু কাসেম, মাশুক ইবনে আনিস ও বশির আমিন। প্রতিযোগিতায় নগরীর বিভিন্ন স্কুলের বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী অংশ নেয়। সন্ধ্যা ৭টায় প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে ‘ক’ গ্রুপে ১ম স্থান অর্জন করে তাসনীম যারীন চৌধুরী, ২য় স্থান ঐশ^র্যা কুন্ডু শ্রেয়া, যৌথভাবে ৩য় স্থান অর্জন করে ফাইজা চৌধুরী ও মাত্রিবা রহমান। ‘খ’ গ্রুপে ১ম স্থান অর্জন করে সামিরা সাদেক লিয়া, ২য় স্থান তাসফিয়া জাহান তাহিয়া ও যৌথভাবে ৩য় স্থান অর্জন করে দেওয়ান তাসীন রাজা শাফী ও মাইশা আঞ্জুম অর্পা। আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) বিকেল ৪টায় ‘গ’ গ্রুপের চিত্রংকন প্রতিযোগিতা ও সন্ধ্যে সাড়ে ৬টায় প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। – বিজ্ঞপ্তি

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: