সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রজাপতি ধরে গ্রেপ্তার, বিচার চলছে

full_1902522318_1490002388আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: এক ব্রিটিশ ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়েছে। ব্রিটেনের বিরল প্রজাতির দুটি প্রজাপতি ধরা এবং তাদের মেরে ফেলার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিলুপ্তপ্রায় প্রজাপতিটি হলো ‘লার্জ ব্লুজ’। সেই ভিক্টোরিয়ান আমল থেকে এই প্রজাপতি বিরল হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

ব্রিস্টলের দক্ষিণ-পশ্চিমের এক শহরের এক আদালতের বিচারক লার্জ ব্লুজ মারার অভিযোগে ৫৭ বছর বয়সী ফিলিপ কুলেনকে দোষী সাব্যস্ত করেন। বিরল এই প্রজাপতির অস্তিত্ব সংরক্ষণে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে আগেই। সেই নির্দেশনা ভঙ্গ করেছেন তিনি।

প্রসিকিউটর কেভিন হুইটনি আদালতকে বলেন, এটা এক অনন্য মামলা। অতীতে কোনো প্রাণি ধরা এবং মেরে ফেলার অভিযোগে আদালত কোনো বিচারকার্য পরিচালনা করেননি।

ইংল্যান্ডের দক্ষিণ-পশ্চিমের গ্লোউসেস্টারশায়ার এবং সামাসেট দুই সংরক্ষিত এলাকা। সেই কনজারভেশন এলাকায় ফিলিপকে ছোট একটি জাল দিয়ে এই প্রজাপতি ধরতে দেখা যায়। কনজারভেশন এলাকার কর্মকর্তারা পরে তাকে আটক করেন।

পুলিশ অভিযুক্তের ব্রিস্টলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মৃত মথ এবং প্রজাপতির ৩০টি ট্রে জব্দ করে। তার মধ্যে লার্জ ব্লুজও ছিল।

তদন্তকারীরা দেখেন, ফিলিপ অনলাইন স্টোর ইবে-তে প্রজাপতিগুলো বিক্রি করতেন। যদিও ফিলিপের দাবি, ফ্রান্সের একটি প্রতিষ্ঠান থেকেই তিনি প্রজাপতি ধরার অনুমতি পান।

লার্জ ব্লুজের প্রথম দেখা মেলে ১৭৯৫ সালে। ১৯৭৯ সাল থেকে দেশ থেকে যেন হারিয়ে যায় এই প্রজাপতি। পরে ১৯৮৩ সালে সুইডেনের এক এলাকায় তাদের পাওয়া যায়।

‘বাটারফ্লাই করজারভেশন’ হলো এক বেসরকারি সংগঠন। তারা জানায়, কারোবাজারে বিরল প্রজাতির লার্জ ব্লুজ বিক্রি চলে। এগুলো প্রতিটি ৩০০ পাউন্ডে বিক্রি হয়।
সূত্র: এমিরাটস

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: