সর্বশেষ আপডেট : ২২ মিনিট ৩২ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২১ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জাতির জনক ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিকৃতি অবমাননাকারীদেরকে গ্রেফতারের দাবীতে সুনামগঞ্জে সংবাদ সম্মেলন

downloadসুনামগঞ্জ সংবাদদাতা:: সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে জঙ্গী হামলা ভাংচুর লুটতরাজ এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতিকৃতি অবমাননাকারীদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতারের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করে সুনামগঞ্জে সংবাদ সম্মেলন হয়েছে। শনিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান,বাউল শিল্পী ও ভূক্তভোগীদের উদ্যোগে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা শাখার কার্যকরী কমিটির সদস্য মোবারক হোসেন। লিখিত বক্তব্যে গত ২৭ ফেব্রুয়ারী সোমবার একই স্থানে সংবাদ সম্মেলন করে মামলার আসামী আব্দুল করিম ও তার পুত্র মাওলানা আলী আহমদ জুলহাসগং কর্তৃক উদ্দেশ্যমূলকভাবে দেয়া ভিত্তিহীন তথ্য অনুযায়ী বিভিন্ন অনলাইন টেলিভিশন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার রঙ্গারচর ইউনিয়নের ছমেদনগর গ্রামের আওয়ামীলীগ নেতা মৃত আব্দুল মনাফ ওরফে মনু মিয়ার পুত্র অব: সেনা সদস্য আব্দুল মালেক,পীর বাহাউদ্দিন চিশতি,মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমুজ আলী,বাউল আব্দুল কাইয়্যুম ও তার ভাগ্নি শিশু শিল্পী আলফা আক্তার জুইসহ যেসব নিরীহ নিরপরাধ লোকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট ও অপপ্রচারমূলক সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।

রমনার বটমূলে উদীচি শিল্পীগোষ্ঠী ও ছায়ানটের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে জঙ্গীদের বোমা হামলার ঘটনার কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, সংস্কৃতি বিরোধী জঙ্গী অপশক্তি এখনও সমাজের বিভিন্ন রন্দ্রে রন্দ্রে জগদ্দল পাথরের মতো ঘাপটি মেরে বসে আছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে পরিকল্পনা মোতাবেক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রীয় জঙ্গীদের প্রেতাত্মারা নানাভাবে হুমকী ও হামলা চালাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৬ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১২টায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার রঙ্গারচর ইউনিয়নের ছমেদনগর গ্রামের বাউল শিল্পী আব্দুল কাইয়্যুমের বাড়ীতে পূর্বঘোষিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে স্থানীয় কান্দি ছমেদনগর গ্রামের মৃত রুশমত আলীর পুত্র আব্দুল করিম (৫০),আব্দুল করিমের পুত্র মাওলানা আলী আহমদ ওরফে জুলহাস মিয়া (২৮),তাহের মিয়ার পুত্র হারুন (২০), আমিন মিয়ার পুত্র বুলবুল (৩৫), ছমেদনগর গ্রামের ওয়াজিদ মিয়ার পুত্র আতিক (২০),আশরাফ আলীর পুত্র জুয়েল (২০),মৃত আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র রফিক মিয়া (৩০),মৃত মোবারক হোসেনের পুত্র আশরাফ আলী (৪৫),উপুড় বনগাও গ্রামের মৃত আকবর আলীর পুত্র দেলোয়ার হোসেন (৩৫),মোল্লাপাড়া ছমেদনগর গ্রামের মৃত আব্দুল শহীদের পুত্র খোকন মিয়া খোকা (৪৭) গংসহ আরোও নাম অজ্ঞাত লোকজন “হিলফুল ফুজুল (ইসলামী সংঘ)” নামে একটি অনিবন্ধিত সংগঠণের ব্যানারে বেআইনী জনতাবদ্ধে একজোট হয়ে বাউল শিল্পী আব্দুল কাইয়্যুম এর বাড়ীর সামনের জমিতে পরিচালিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে পরিকল্পিত হামলা করে অনুষ্ঠানের মঞ্চ,মাইক,চেয়ার টেবিল ভেঙ্গে তছনছ করে দেয়। মঞ্চের উপরে রাখা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাউল স¤্রাট শাহ আব্দুল করিমসহ পঞ্চরতœ বাউল শিল্পীর ছবিসমেত ডিজিটাল ব্যানার টেনে ছিড়ে জমিতে ফেলে পা দ্বারা মাড়ায় এবং সভাস্থলে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। জঙ্গী মনোভাবাপন্ন সন্ত্রাসীদের এহেন বেআইনী কাজে বাধা দিলে তারা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান সমুজ আলীকে মারপিঠ করত: তার পকেট থেকে নগদ টাকা,অতিথি শিল্পী বাউল আমজাদ পাশার বেহালা, শিল্পী আব্দুল কাইয়্যুম এর হারমোনিয়াম এবং একজন যন্ত্রশিল্পী নিজাম উদ্দিনের ঢোল জোরপূর্বক ছিনতাই করে নেয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উল্লেখ করা হয়, জঙ্গী হামলার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ বাউল শিল্পী আব্দুল কাইয়্যুমের দায়েরকৃত অভিযোগে ১১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৫ জনকে আসামী করে সদর থানায় ১টি এজাহার দাখিল করিলে সেটি নিয়মিতভাবে এজাহারগণ্যে মোকদ্দমা রুজু হয়। প্রথমদিকে মামলাটি এফআইআর না করলেও পরবর্তীতে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ২৬/২/২০১৭ইং তারিখের ৪৪২নং স্মারকাদেশ এবং জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের গত ২/৩/২০১৭ইং তারিখের ৩২৭ নং স্মারকাদেশ বলে বাংলাদেশ দন্ডবিধি আইনের ১৪৩/৪৪৭/৪৪৮/৩২৩/৩০৭/৩৭৯/৪২৭/৫০৬ দ:বি: ধারায় গত ৮/৩/২০১৭ইং তারিখে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ০৬ নং মামলা হিসেবে (যাহার জিআর নং ৮৮/২০১৭ সদর) এফআইআর করা হয়। কিন্তু সদর থানার পুলিশ প্রশাসন,এফআইআরকৃত মামলায় যথাযথ ধারা প্রয়োগ না করায় আসামীরা ১৩/৩/২০১৭ইং সহজেই জামিন পেয়ে যায়। এজাহারের মূল অভিযোগে আসামীগন কর্তৃক চাঁদা দাবী,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহোদয় ও বাউল স¤্রাট শাহ আব্দুল করিমসহ পঞ্চরতœ বাউল শিল্পীর ছবিসমেত ডিজিটাল ব্যানার অবমানার মর্মে অপরাধ সংগঠনের বিবরণ সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করলেও বিষয়টি কৌশলে এড়িয়ে যান সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন-অর রশীদ চৌধুরী ও ওসি তদন্ত মাসুক মিয়া এবং তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নূর উদ্দিন সাহেবগং। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহোদয়ের প্রতিকৃতি অবমাননাকারীদেরকে যেখানে নিজ দায়িত্বে আটক করার কথা সেখানে কেন এবং কি কারণে স্থানীয় জঙ্গী তৎপরতায় জড়িত আসামীদেরকে পুলিশ সমীহ করছে তা খতিয়ে দেখারও দাবী করা হয়।

আত্মস্বীকৃত আসামীরা গত ২৭/০২/২০১৭ইং রোজ সোমবার সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলন এবং ১৯/২/২০১৭ইং রোজ রবিবার বিকেল ৪ টায় বনগাঁও বাজারে তথাকথিত প্রতিবাদ সভায় হিলফুল ফুজুল ইসলামী সংঘের নামে নিজেদের দ্বারা সাংস্কৃতিক কর্মসুচিতে নাশকতা পরিচালনার কথা অকপটে স্বীকার করেছে উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আসামীরা রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের প্রতিকৃতি অবমাননামূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমে বাংলাদেশ দন্ডবিধি আইনের ৩৮৫/১২০-খ ধারার অপরাধ সংগঠন করিয়াছে। আমরা বিষয়টি বিজ্ঞ আদালতে লিখিত আবেদনে জানিয়েছি। আত্মসীকৃত আসামীদের স্বীকারোক্তির ভিডিও বক্তব্য তদন্ত কর্মকর্তার কাছে প্রদান করা হয়েছে। তাই সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার মামলা নং ০৬ তাং ৮/৩/২০১৭ইং (মামলা নং জিআর ৮৮/২০১৭ সদর) ধারা ১৪৩/৪৪৭/৪৪৮/৩২৩/৩০৭/৩৭৯/৪২৭/৫০৬ দ:বি: এর সাথে ৩৮৫/১২০-খ ধারা সংযুক্ত করত: সকল আসামীদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানানো হয়। অন্যথায় সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা ঘেরাও ব্যতিত কোন উপায় থাকবেনা বলেও জানানো হয়।
মামলার আসামীদের একের পর এক অপতৎপরতায় এলাকার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিসহ আমাদের সংস্কৃতানুরাগী ব্যক্তিবর্গের ও তাদের পরিবার
পরিজনের জানমালের ক্ষতির সমুহ সম্ভাবনার প্রেক্ষিতে শিল্পী আব্দুল কাইয়্যুমের দায়েরকৃত মামলার এফআইআরে যথাযথ ধারা প্রয়োগ করার পাশাপাশি অনতিবিলম্বে এচক্রকে গ্রেফতার করার দাবী স্থানীয় জনগণের প্রাণের দাবীতে পরিণত হয়েছে। গণদাবীর প্রেক্ষাপটে উক্ত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে স্বরাস্ট্রমন্ত্রীর কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভুক্তভোগীরা।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: