সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ১১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৩ মে, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কমলগঞ্জে ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ, মুচলেখায় মুক্ত

01.-daily-sylhet-Kamalgonj-news2-1কমলগঞ্জ সংবাদদাতা:: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌর এলাকার ভানুগাছ বাজারে লাইসেন্স না নিয়ে দোকানে চা পাতা বিক্রির অভিযোগে এক মোদী ব্যবসায়ীকে আটক করার প্রতিবাদে ভানুগাছ বাজারের ব্যবসায়ীরা দোকানপাঠ বন্ধ করে কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল সড়ক আধা ঘন্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদের মুখে অবশেষে মুচলেখা নিয়ে থানা পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) বিকাল সাড়ে পাঁচটায় এ ঘটনাটি ঘটে।

কমলগঞ্জের ভানুগাছ পৌর বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন, ভানুগাছ ভিতর বাজারের মোদী দোকানদার অভি পালের দোকানে কয়েক কেজি চা পাতা রেখে বিক্রি করছিলেন। কমলগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক কিম্মত আলী মঙ্গলবার বিকাল পাঁচটায় এ দোকানে গিয়ে লাইন্সে না নিয়ে চা পাতা বিক্রির অপরাধে মোদী দোকানী অভি পালকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ভানুগাছ বাজারের সকল ব্যবসায়ীরা দোকানপাঠ বন্ধ করে ভানুগাছ চৌমুহনীতে অবস্থান নিয়ে কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল সড়ক অবরোধ করে ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে আটক ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেয়ার দাবি জানায়। ঘটনাটি জানা জানি হলে কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়্রাম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক ও কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জুয়েল আহমদ বিষয়টি নিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করলে ও সামাজিক বৈঠকে বিষয়টির নিষ্পত্তি হবে বলে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এর আধা ঘন্টা পর ৬টায় কমলগঞ্জ থানার পুলিশ সাদা কাগজে আটক মোদী ব্যবসায়ী অভি পালের স্বাক্ষর রেখে থাকে ছেড়ে দেয়। এর পর বিক্ষুদ্ধ ব্যবসায়ীরা নিজ নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ফিরে যায়।

লাঞ্চিত ব্যবসায়ী অভি পাল বলেন, প্রায় দোকানে কয়েক কেজি করে চা পাতা রেখে বিক্রি করছিলেন। বিষয়টি থানার উপ-পরিদর্শককে বুঝিয়ে বললেও তিনি কোন কথা না শুনে জোর পূর্বক দোকানের ক্যাশ থেকে তুলে নিয়ে আটক করে থানায় নিয়ে গেছেন।

ভানুগাছ পৌর বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. সানোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়রের হস্তক্ষেপে বিষয়টি আজ (বুধবার) সামাজিক বৈঠকে দেখার আশ্বাসে বিক্ষুদ্ধ ব্যবসায়ীরা ধর্মঘট তুলে নেয়।

কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র জুয়েল আহমদও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাজারে নির্বাচিত ব্যবসায়ী প্রতিনিধি আছেন। তাদের সাথে কথা বলে পুলিশ ঐ ব্যবসায়ীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত না নিয়ে একক ক্ষমতা বলে প্রকাশ্যে হাতকড়া লাগিয়ে দোকান থেকে একজন ব্যবসায়ীকে ধরে নেওয়ায় ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ প্রদর্শণ করেছে। তিনি (পৌর মেয়র) উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান প্রতিবাদী ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদে একাত্মতা প্রকাশ করে বিষয়টি সামাজিক বৈঠকে সমাধানের আশ্বাস দিলে ব্যবসায়ীরাও অবরোধ প্রত্যাহার করে দোকানে ফিরে যায়। আর পুলিশও আটক ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দিয়েছে।

অভিযুক্ত উপ-পরিদর্শক কিম্মত আলী বলেন, শুল্ক বিভাগের লাইসেন্স না নিয়ে মোদী দোকানে রেখে চা পাতা বিক্রিও করছিলেন বলে, প্রায় ১৫ কেজি চা পাতাসহ দোকানীকে আটক করা হয়েছিল।পরে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম বলেন, আসলে লাইসেন্স ছাড়া চা পাতা বিক্রির দায়ে চা পাতাসহ মোদী ব্যবসায়ীকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছিল। পরবর্তীতে উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পৌর মেয়র আলোচনা করে ব্যবসায়ীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেই তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে একটি মুচলেখায় স্বাক্ষর নেওয়া হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: