সর্বশেষ আপডেট : ৪৮ মিনিট ৭ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রুয়েট শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন

download (3)রাবি প্রতিনিধি:: বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাকার্যক্রমের কোন অংশ না হওয়া স্বত্ত্বেও শিক্ষার্থীদের ইচ্ছাস্বাধীন দুইদিনের ক্লাস বর্জন করেছে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষকরা ক্লাস নেওয়ার জন্য উপস্থিত হলেও মঙ্গলবার কোন ঘোষনা ছাড়াই ক্লাস বর্জন করে শিক্ষার্থীরা। ছাত্রলীগের পূণর্মিলনীর জন্য শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করেছে বলে দাবি অনেকের। এদিকে বুধবারও ক্লাস বর্জন করে শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, মঙ্গলাবার ২৪ জানুয়ারি ছিলো বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পূণর্মিলনী। পূণর্মিলনীতে অংশ নেয়ার জন্য রুয়েট ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিকট একটি বাস ও ২৪, ২৫ জানুয়ারি রুয়েটের ক্লাস বন্ধের দাবি জানায়। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন নিয়মের কথা বলে তাদের এই দাবি মেনে নেয়নি। এতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ২৪ ও ২৫ জানুয়ারি ক্লাস বন্ধ করার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ২১ জানুয়ারি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হলের অতিথি কক্ষে সকল বিভাগের সকল বর্ষের ক্লাস ক্যাপ্টেনদের নিয়ে একটি বৈঠক করে। এসময় রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি নাইম রহমান নিবিড় ও সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপু উপস্থিত ছিলেন। সেখানে তারা ক্লাস ক্যাপ্টেনের মাধ্যমে সকল শিক্ষার্থীকে ক্লাসে উপস্থিত না হওয়ার জন্য বলেন। এছাড়া সিভিল ১২ সিরিজ এর ফেসবুক গ্রুপে এই দুইদিন ক্লাস না করার জন্যও বলা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, ছাত্রলীগের পূণর্মিলনীতে অংশগ্রহণকারী রুয়েট ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের যাতে ক্লাস মিস না হয় সেজন্য রুয়েট ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্লাস বর্জনের সিদ্ধান্ত নেয়। তাদের জন্য সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকেও ক্লাস বর্জন করতে হলো।
এবিষয়ে জানতে চাইলে রুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরি মাহফুজুর রহমান তপু বলেন, যারা ছাত্রলীগ করে তাদেরকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কারণে ক্লাস মিস করতে হয়। আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে ক্লাস বর্জন করতে বলিনি। তারা নিজেরাই ক্লাস বর্জন করেছে।

রুয়েট ভিসি প্রফেসর রফিকুল আলম বেগ বলেন, আমি শুনেছি শিক্ষার্থীরা ‘অটো সিস্টেমে’ ক্লাস বর্জন করেছে। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ক্লাস ছুটি ও বাসের দাবি সম্পর্কে তিনি জানেন না। এবিষয়ে ছাত্র কল্যাণের পরিচালক বলতে পারবেন বলে জানান তিনি।
অবশ্যই এ বিষয়ে ছাত্র কল্যাণের পরিচালক প্রফেসর কামরুজ্জামান কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

fakhrul_islam

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: