সর্বশেষ আপডেট : ৩৪ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

লিটনের খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

full_890418829_1485092430নিউজ ডেস্ক:: গাইবান্ধার সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যার জন্য বিএনপি-জামায়াতকে দায়ী করে খুনিদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘লিটন গোলাম আযমকে তার এলাকায় যেতে দেয়নি। এছাড়া সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করছে, স্বাধীনতাবিরোধী চক্র হত্যার মধ্য দিয়ে এসব ঘটনার প্রতিশোধ নিয়েছে।’

সংসদে সরকারি দলের সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যায় আনা শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘মাঝে মাঝে শোনা যায়, সংসদ সদস্য, আওয়ামী লীগ নেতা কোথায় কে একটু শক্ত হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদেরকে শেষ করে দেয়া হচ্ছে, তাদেরকেই হত্যা করা হচ্ছে। এসব হত্যা পরিকল্পনাই বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলন ও কর্মকাণ্ড। এ ধরনের ঘটনা মেনে নেয়া যায় না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যেমন জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছি তখন লিটনের হত্যার সাথে যারা জড়িত তাদের ঠিকই খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিল এবং গাইবান্ধা থেকে সুন্দরগঞ্জ পর্যন্ত মানুষের মনে স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছিল। এটাই ছিল তার অপরাধ। এ জন্যই তাকে জীবন দিতে হয়েছে। লিটনের মৃত্যুতে আমরা একটি সম্ভাবনাময় নেতৃত্বকে হারিয়েছি।’

গত ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে তিন বাড়িতে গুলি করে হত্যা করা হয় লিটনকে। এই ঘটনায় এরপর থেকেই জামায়াত-শিবিরকে দায়ী করে আসছে আওয়ামী লীগ এবং লিটনের স্বজনরা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এই ঘটনার জন্য জামায়াতের প্রতি ইঙ্গিত করেছিলেন এর আগে।

শেখ হাসিনা বলেন, ছাত্রলীগ থেকে রাজনীতি শুরু করে সে এ পর্যায়ে এসেছে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে বলেই তাকে সুন্দরগঞ্জ আওয়ামী লীগের সভাপতি মনোনীত করা হয় এবং সেখানকার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। যতদিন তিনি বেঁচে ছিলেন ততদিন সুন্দরগঞ্জের মানুষের মনে একটা স্বস্তি ছিল।

আলোচনায় অংশ নেন সরকারি দলের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, মীর শওকত আলী বাদশা, শামীম ওসমান, মাহবুব আরা বেগম গিনি ও জাহাঙ্গীর কবির নানক।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: