সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
শনিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

একটি সাঁকো, দুর্ভোগে আট গ্রামের মানুষ!

news dailysylhetএম.এ আহমদ আজাদ, নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) ::
নবীগঞ্জ উপজেলার করগাওঁ ইউনিয়নের সাকুয়া, সর্দারপুর, জৈনপুরসহ প্রায় ৮ গ্রামের মানুষের চলাচলের একমাত্র ভরসা শাখা বরাক নদীতে স্থাপিত বাঁশের সাঁকো। একটি সেতুর অভাবে আট গ্রামের মানুষ চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। চিকিৎসা, শিক্ষা, বিদ্যুৎসহ আধুনিকতার ছোঁয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ওই গ্রামের মানুষ। একটি সেতুর অভাবে নিজেদের শ্রমে-ঘামে উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা। অনেক সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদীর ওপর বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হতে হয় গ্রামের শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের।

pic 13 (1)উপজেলার ভাটি এলাকার কৃষিভান্ডার হিসেবে খ্যাত দুটি ইউনিয়ন বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ও করগাও। কুশিয়ারা ও শাখা বরাক নদী ঘেষা দুটি অঞ্চলের অবস্থান। এক সময়ে বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নের মানুষ শাখা বরাক নদী দিয়ে নৌকায় যাথায়াত করতেন। প্রয়াত অর্থমন্ত্রী শাহ এমএস কিবরীয়া সাহেবের বদৌলতে নবীগঞ্জ-মার্কুলী পর্যন্ত সড়ক নির্মিত হওয়ায় ওই অঞ্চলের মানুষ এখন গাড়ী দিয়ে যাতায়াত করতে পারে। তবে করগাওঁ ইউনিয়নের ইউপি কমপ্লেক্স সংলগ্ন স্থানে একটি ব্রীজের অভাবে ওই অঞ্চলের প্রায় ৮টি গ্রামবাসী জীবনের ঝুকিঁ নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। এখানে একটি সেতু নির্মিত হলে করগাওঁ ইউপির ৫টি এবং বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নের ৩টি গ্রামের মানুষের যোগাযোগ ব্যস্থা সুগম হবে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। এসব গ্রামের মানুষকে জীবিকা নির্বাহ ও খাদ্যের চাহিদা মেটাতে নিভর্র করতে হয় কৃষির ওপর ।

একমাত্র কৃষিই এ এলাকার মানুষের প্রধান পেশা। আর কৃষির সাথে জড়িয়ে ভাগ্য পরিবর্তন করতে গিয়ে বারবার তারা বাধাগ্রস্থ হচ্ছেন একটি সেতুর কারণে। সেতুর জন্য তারা সব সুবিধা ও সঠিক মূল্যপ্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ওই এলাকা থেকে বিভিন্ন প্রয়োজনে উপজেলা সদর নবীগঞ্জ বাজারে যাওয়া-আসা এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, কৃষিজাত সবজি বিক্রয়ের জন্য বাজারে যাওয়া-আসা করতে আট গ্রামের কৃষক ও সাধারণ মানুষের ওই বাঁশের সাঁকোটিই একমাত্র ভরসা।

বাঁশের সাঁকোতে চলাচলে স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীদের পোহাতে হয় দুর্ভোগ। বইপত্র নিয়ে প্রায়ই সাঁকোর নিচে পড়ে যায় কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। কাঁধে সাইকেল নিয়ে পারাপার করার সময় সাঁকো থেকে পড়ে গিয়ে প্রায়ই লোকজন আহত হন। এ অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি ওই বাঁশের সাকোর স্থলে একটি সেতু তৈরি করে দেয়া। একটি সেতু নির্মাণ করা হলে আট গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: