সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রমনা বটমূল হামলা : আসামি পক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শুরু

1484032607নিউজ ডেস্ক:: রমনা বটমূল বোমা হামলা মামলায় যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন শুরু হয়েছে। ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের আপিলের ওপর আজ মঙ্গলবার হাইকোর্টে এই যুক্তি তর্ক উপস্থাপন চলছে। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের ডিভিশন বেঞ্চে এই যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন করছে আসামি পক্ষের আইনজীবীরা।

রাষ্ট্রপক্ষে ৬১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য এবং মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামি মুফতি আব্দুল হান্নানসহ ৩ আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি উপস্থাপনের পর এই যুক্তি-তর্ক শুরু হয়। মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামি আরিফ হাসান সুমনের পক্ষে সুজিত চ্যাটার্জি, যাবজ্জীবন দণ্ড প্রাপ্ত আসামি শাহাদাতুল্লাহ ওরফে জুয়েলের পক্ষে আইনজীবী মো. আজিজুল হক হাওলাদার, দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক ৫ আসামির পক্ষে রাষ্ট্র নিযুক্ত কৌসুলি এসএম শফিকুল ইসলাম যুক্তি উপস্থাপন করেন।

আর এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জাহাঙ্গীর আলম ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোরশেদ উপস্থিত ছিলেন। দুপুরের বিরতির পর এই মামলার মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত প্রধান আসামি মুফতি আব্দুল হান্নানের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করবেন তার আইনজীবী মুহাম্মদ আলী।

রমনা বটমূল বোমা হামলা মামলার বিচারের একটি ধাপ অতিবাহিত হতেই লেগে গেছে ১৪ বছর। ঐ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় হুজি নেতা মুফতি হান্নানসহ ৮ জঙ্গিকে মৃত্যুদণ্ড দেয় ঢাকার দায়রা জজ আদালত। ঐ রায়ের বিরুদ্ধে আসামিদের আপিল ও ডেথ রেফারেন্সের শুনানি চলছে হাইকোর্টে। বিচারিক আদালতের রায় দেয়ার আড়াই বছরের মধ্যেই এ শুনানি শুরু হল।

২০০১ সালের ১৪ এপ্রিল রাজধানীর রমনার বটমূলে বাংলা বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা চালায় জঙ্গিরা। ঐ ঘটনার ১৪ বছর পর ২০১৪ সালের ২৩ জুন ঢাকার দায়রা জজ আদালত মুফতি হান্নানসহ ৮ জঙ্গিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ ও ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন হুজি নেতা মুফতি আবদুল হাই, মুফতি শফিকুর রহমান, মাওলানা তাজউদ্দিন, হাফেজ জাহাঙ্গীর আলম বদর, মাওলানা আবু বকর ওরফে সেলিম হাওলাদার, মাওলানা আকবর হোসাইন ও আরিফ হাসান। তাঁদের মধ্যে পাঁচজন পলাতক। এ ছাড়া এ মামলায় হুজির আরো ছয় জঙ্গিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয় আদালত।

আসামির মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের জন্য এই মামলার নথি ডেথ রেফারেন্স আকারে হাইকোর্টে আসে। পাশাপাশি মুফতি হান্নান সহ কারাবন্দী আসামিরা আপিল দায়ের করেন। আপিলে তারা মৃত্যুদণ্ডের রায় বাতিল চান। বর্তমান প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা এসব ডেথ রেফারেন্স ও আপিল অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিষ্পত্তির জন্য বিশেষ ব্যবস্থায় মামলার পেপার বুক করার নির্দেশ দেন। এরপর এই মামলার পেপার বুক প্রস্তুত করা হয়।

পেপার বুক প্রস্তুতের পরে মামলাটি নিষ্পত্তির জন্য বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চে পাঠান প্রধান বিচারপতি। এরই ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার মামলার যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন শুরু হল।

উল্লেখ্য, ২০০১ সালের ১৪ এপ্রিল রাজধানীর রমনার বটমূলে বাংলা বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা হয়। এ ঘটনায় ১০ জন নিহত হন। আহত হন আরো অনেকে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: