সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আবারও পরিবর্তন আসছে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা পদ্ধতিতে

144542_112শিক্ষাঙ্গন ডেস্ক ::
আরও কিছু পরিবর্তন আসছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা পদ্ধতিতে। প্রতিবছর শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা হচ্ছে না। এছাড়াও পরিবর্তন আসছে পাসের নম্বরেও। জাতীয় শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) ৬৭তম বোর্ড সভায় এ বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। নিবন্ধন কর্মকর্তারা এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হওয়া না হওয়া নিয়ে আলোচনা করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। গত বছরের ১৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে নিবন্ধন পরীক্ষায় পাস নম্বর ৬০ করা এবং প্রার্থীদের পুলিশ ভেরিফিকেশনের সুপারিশ করা হয়। ভবিষ্যতের পরীক্ষাগুলোতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্য পদের হিসেব কষে মৌখিক পরীক্ষায় পাস করানোর বিষয়টি আলোচনা হলেও সুপারিশ করা হয়নি।

সংসদীয় কমিটির সুপারিশের আলোকে গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত নিবন্ধন কর্তৃপক্ষের ৬৭তম নির্বাহী বোর্ডসভায় উপস্থিত কর্মকর্তারা পাস নম্বর ৪০ থেকে ৫০ করার বিষয়ে আলোচনা করেছেন। আলোচনার বিষয়বস্তু ও সুপারিশমালা দুএকদিনের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। মন্ত্রণালয় বিষয়গুলো বিশ্লেষণ করে নির্দেশনা দেবে।

বৈঠকে আলোচনার মধ্যে ছিল বছর বছর নিবন্ধ পরীক্ষা না নেয়া, সংসদীয় কমিটির প্রস্তাব অনুযায়ী নিবন্ধন পরীক্ষায় পাস নম্বরের বেজলাইন ৬০ ভাগ নির্ধারণ, প্রথমবারের মতো বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে এনটিআরসিএর সুপারিশের অগ্রগতি ও এ বিষয়ে এনটিআরসিএর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দায়েরকৃত রিটের বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ, নিবন্ধন সনদের ফরমেট পরিবর্তন ছিল উল্লেখযোগ্য।

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এন্ট্রিলেভেলে শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে প্রার্থী বাছাইয়ের দায়িত্ব দেয়া হয় নিবন্ধন কর্তৃপক্ষের হাতে। ১৩তম পরীক্ষা থেকে নতুন পদ্ধতি চালু হয়।

তবে, পুরনো পদ্ধতির শেষ সুযোগ হিসেবে ১ম থেকে ১২তম পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে আবেদন আহ্বান করা হয়। নিবন্ধন পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয়ভাবে বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও মাদরাসায় প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়। মনোনীতদের মধ্যে অনেকেই নিয়োগ পেয়েছেন। প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ভুলে অনেক নন-এমপিও পদও শূন্য দেখানোর ফলে ওইসব প্রতিষ্ঠানে মনোনীতরা ভোগান্তিতে রয়েছেন।

মনোনীত প্রার্থীদের নিয়োগ দিতে গড়িমসি করে অনেক প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও নতুন পদ্ধতি হওয়ার কারণে অনেকেই বুঝে না বুঝে বিরোধীতা করছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: