সর্বশেষ আপডেট : ৩৫ মিনিট ৪০ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২৪ মে, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিজিবি সদস্যদের ক্লোজড, পুরো জেলায় ধর্মঘটের ডাক

1-daily-sylhet-0-6নিজস্ব প্রতিবেদক:: শ্রীমঙ্গলে বিজিবি, পরিবহন শ্রমিক ও ব্যবসায়ীদের হামলার সাথে জড়িত বিজিবি সদস্যদেরকে ক্লোজড করে সরাইল রিজিওনে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন এবং ব্যবসায়ী সমিতির ডাকে শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলছে। রোববার থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত পুরো জেলায় পরিবহন শ্রমিক ধর্মঘটের ডাকা দেয়া হয়েছে।

বিজিবি ৫৫ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার লে: কর্ণেল সাজ্জাদ বিজিবি সদস্যদের ক্লোজড করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
শুক্রবার শ্রীমঙ্গল শহরের বিভিন্ন সড়কে ধর্মঘটের সমর্থনে পরিবহন শ্রমিক ও ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ মিছিল ও টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানায়। বিকেলে চৌমুহনায় পরিবহন শ্রমিক নেতৃবৃন্দ সমাবেশে বিচার বিভাগীয় সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিকে প্রত্যাহার ও শাস্তি নিশ্চিত করা সহ ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। সমাবেশ থেকে আগামী ৮ জানুয়রি পর্যন্ত মৌলভীবাজার পুরো জেলায় পরিবহন শ্রমিকরা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন। তাদের এ দাবি না মানলে সিলেট বিভাগে কর্মসূচি দেয়া হবে বলে তারা হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সঞ্জিত কুমার দেব ও শ্রীমঙ্গল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি শেখ লুৎফুর রহমান সহ অন্যরা।

এদিকে, বিজিবি সরাইল রিজিওয়নের ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্তকারী টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বেশ কিছু আলামত সংগ্রহ করেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত পরিবহন শ্রমিক ও ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলেন।

sequence-13_3-600x400এদিকে, হামলার ঘটনায় মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসন অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট ফারুক আহমদকে প্রধান করে ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি ঘটন করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে বিটিআরআই রেষ্ট হাউসে জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও বিজিবি এক বৈঠকে বসে। এ সময় জেলা প্রশাসক মোঃ তোফায়েল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোঃ শাহজালাল, সরাইল রিজিওজন কমান্ডার, সংসদ সদস্য আব্দুস শহীদ, প্রশাসনের কর্মকর্তা, শ্রমিক ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে শ্রমিক ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে ধর্মঘট প্রত্যাহারের অনুরোধ জানানো হয় এবং তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেয়া হয়।

এদিকে, ধর্মঘটের কারণে শ্রীমঙ্গলে বেড়াতে আসা পর্যটক ও সাধারণ মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছেন। নিরাপত্তার জন্য শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভানুগাছ স্ট্যান্ড এলাকায় বিজিবি চালকের সাথে এক পরিবহন শ্রমিকের কথা কাটাকাটির জের ধরে কিছু বিজিবি সদস্য ও পরিবহন শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পরে বিজিবি হামলা চালিয়ে অন্তত ১০০টি গাড়ী ও প্রায় ৫০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করে।

বিজিবি ও পরিবহন প্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৮ জন গুলিবিদ্ধসহ প্রায় ৫০ জন আহত হয়েছে। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে ঢাকা সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক ও শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সড়ক ২ঘন্টা বন্ধ ছিল।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: