সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে সামরিক সম্পর্ক পুনরায় স্থাপিত হবে’

1483618473আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ইন্দোনেশিয়া যৌথ সামরিক মহড়াসহ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে সব ধরনের সামরিক সহযোগিতা স্থগিত করার একদিন পরেই অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী মেরিস পেইন বলেছেন, তারা এখনো আশাবাদী যে দুই দেশের মধ্যে সামরিক সহযোগিতা পুনরায় স্থাপিত হবে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, তিনি এখনো বিশ্বাস করেন , ইন্দোনেশিয়া তাদের সঙ্গে সামরিক সহযোগিতা পুনরায় প্রতিষ্ঠা করবে। মেরিস পেইন বৃহস্পতিবার বলেন, পশ্চিম পাপুয়া নিয়ে যে স্পর্শকাতর বিষয়গুলো রয়েছে তা ইন্দোনেশিয়া আবার তুলে ধরবে। তিনি বলেন, এ নিয়ে সরকারি কর্মকর্তাদের তদন্ত শীঘ্রই সম্পন্ন হবে।

একপর্যায়ে তিনি বলেন, এতো কিছুর পরও আমরা আশা ছেড়ে দিচ্ছি না। আমরা মনে করি ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ফের নতুন মাত্রা পাবে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, তদন্তের শেষ ধাপে আমাদের প্রত্যাশা থাকবে দুই দেশের মধ্যে যে দূরত্বের সৃষ্টি হয়েছে তা দূরীভূত হবে। সম্পর্ক পুন:প্রতিষ্ঠা নিয়ে আমরা আবার আলোচনা শুরু করবো এবং তার ভিত্তিতেই সম্পর্কের নতুন উচ্চতা পাবে। অস্ট্রেলিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশনকে (এবিসি) দেওয়া সাক্ষাতকারে এদিন তিনি এসব কথা বলেন।

গত বুধবার ইন্দোনেশিয়ার সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল উরিয়ান্তো বলেন, অনেক বিষয়ে নতুন করে সমঝোতা হওয়া দরকার। আর এসব কারণ দেখিয়েই দুইদেশের মধ্যে সামরিক সম্পর্ক সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়। তবে মূল কারণ হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার একটি প্রশিক্ষণ ঘাঁটিতে ‘আক্রমণাত্মক উপাদান’ দেখার পর সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে বলে রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে। এরপরেই সবধরনের সামরিক সম্পর্ক স্থগিত করা হয়। ইন্দোনেশিয়ার পক্ষ থেকে তখন বলা হয়,আমাদের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার সম্পর্কের বাধার নানা বিষয়কে চিহ্নিত করা উচিত। আর এগুলো ঠিক করা গেলেই সম্পর্ক সহবস্থানের দিকে যাবে।

ইন্দোনেশিয়ার স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, যৌথ প্রশিক্ষণে অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়া ইন্দোনেশীয় সেনারা একটি অস্ট্রেলীয় ঘাঁটির আপত্তিকর প্রশিক্ষণ উপাদান দেখার পর ক্ষুব্ধ হয়। এরপরেই এ সিদ্ধান্ত আসে যা ডিসেম্বর থেকে কার্যকরের কথা বলা হয়। যদিও ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো বলেছেন,একে কেন্দ্র করে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কে কোন প্রভাব ফেলবে না।

তিনি বলেন, আমি মনে করি, আমাদের মাঝে সম্পর্ক একটা ভালো পর্যায়ে রয়েছে। যা নিয়ে বর্তমানে টানাপড়েন চলছে তা যথার্থভাবে শনাক্তের মাধ্যমেই সংকটের সমাধান হবে। একটি বিষয় আমাদের সকলকে ভাবতে হবে যে পরিস্থিতি এমন দিকে নিয়ে যাওয়া হবে না যাতে করে বৈরিতার উত্তাপ ছড়ায়। তবে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে যে অভিযোগের তীর উঠানো হয়েছে তাকে অস্বীকার করে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, অস্ট্রেলিয়া আগের মতোই ইন্দোনেশিয়া থেকে সেনাদের নিবে। বিবিসি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: