সর্বশেষ আপডেট : ৩৪ মিনিট ২০ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২৪ মে, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শ্রীমঙ্গলে বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনে বিরল বাঁশ ভালুক

eeeee-1-copyমৌলভীবাজার সংবাদদাতা ::
অবশেষে শ্রীমঙ্গলস্থ বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনে আশ্রয় পেয়েছে বাঁশ-ভালুক। এখানে গুরুত্বর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে বিলুপ্তপ্রায় এই প্রাণীটি। রয়েছে গভীর পর্যবেক্ষণে। প্রাণীটির ইংরেজি নাম বিন্টুরং। দেশের বিরল ও বিলুপ্তপ্রায় একটি প্রাণী। যাকে বাঁশ-ভালুক নামে ডাকা হয়ে থাকে।
বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের ব্রাহ্মণগাঁওয়ে প্রাণীটি ধরা পড়ে। গুরুতর আহত অবস্থায় প্রাণীটিকে সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তার কার্যালয়ে আসার পর প্রাণীটি বিভাগীয় বন কর্মকর্তা শ্রীমঙ্গল বন্যপ্রাণী বিভাগকে হস্তান্তর করেন।
গত মঙ্গলবার রাতে শ্রীমঙ্গল বন্যপ্রাণী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মিহির কান্তি দো বাঁশ-ভালুকটিকে আহত অবস্থায় বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনে হস্তান্তর করেছেন। বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সিতেশ রঞ্জন দেব জানান, বিন্টুরং একটি বৃহদাকৃতির দুষ্প্রাপ্য ও ভিভারিডি পরিবারভুক্ত স্থন্যপায়ী প্রাণী। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ঘন বনাঞ্চল এদের আবাসস্থল। বিন্টুরংকে ভালুক-বাঁশ (বিয়ারক্যাট) বলা হয়। কারণ এ প্রাণীটি ভালুকের মতো দেখতে। বর্তমানে এটি শুধু বিরল নয়, বিপদগ্রস্ত একটি প্রাণী হিসেবে আইইউসিএনের লাল তালিকায় রয়েছে।
বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের পরিচালক সজল দেব বলেন, ধারণা করা হচ্ছে প্রাপ্তবয়স্ক বিন্টুরংটি সীমান্তের ওপারে পাহাড়ি এলাকা থেকে এসেছে। এ প্রাণীটি বেশিরভাগ ফল, মধু ও ছোট পাখি খায়। তিনি জানান, এটিকে বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: