সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ২৭ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

যে প্রযুক্তিগুলো কন্টেন্ট নতুন বছরের মার্কেটিংয়ের ধরণ বদলে দিবে

tech_1তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ::
কনটেন্ট মার্কেটিং খুব দ্রুত বদলে যাচ্ছে। বেশ কয়েকবছর ধরে নামি-দামি ব্র্যান্ডগুলো প্রযুক্তির অগ্রগতিকে কাজে লাগিয়ে সফল কনটেন্ট মার্কেটিং কৌশলের সুবিধা নিচ্ছে।

জরিপে দেখা গেছে, ২০১৩ সালে ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহারকারীদের সময় ব্যয় হয়েছে মোবাইলে ৫৩ শতাংশ এবং ডেস্কটপে ৪৭ শতাংশ। আর ২০১৫ সালে ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহারকারীরা ৩৫ শতাংশ ডেস্কটপে এবং ৬৫ শতাংশ সময় মোবাইলে ব্যয় করেছেন। আর এই হার থেকে বোঝা যায়, কনটেন্টের জন্য বর্তমান সময়ে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে মোবাইল।
আর এ বিষয়গুলো কনটেন্ট মার্কেটিং এবং সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং বিকশিত হওয়ার ইঙ্গিত করে, যেখানে চালকের ভূমিকায় রয়েছে প্রযুক্তি। এবার দেখে নেওয়া যাক ২০১৭ সালে যেসব প্রযুক্তি বদলে দেবে কনটেন্ট মার্কেটিং।

আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স (এআই) : বর্তমান প্রযুক্তি ট্রেন্ডের মধ্যে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স অন্যতম। এ মেশিন লার্নিং প্রযুক্তির মাধ্যমে কনটেন্ট ডেভলপার এবং বিপণনকারীরা ব্যাপক সুবিধা পাবে। এমনকি আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স (এআই) কনটেন্ট মার্কেটিংকে আমূল পরিবর্তন করে দিবে। কেননা এআই কনটেন্টকে আরও ভালোভাবে বুঝতে পারবে এবং সেই অনুযায়ী ব্যবহারকারীর চাহিদা মেটাতে পারবে। এ ছাড়া এসইওদের কনটেন্ট ফরম্যাটে সাহায্য করবে এআই এবং স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রাসঙ্গিক বিষয়বস্তু আবিষ্কার করবে ও ব্যবহারকারীর কাছে সরবরাহ করবে।

আইওটি (ইন্টারনেট অব থিংস) : প্রতিদিনই নতুন নতুন ডিভাইস আসছে যেগুলো ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারে। আর তাই ব্যবহারকারীরা এখন আর পিসি, ল্যাপটপ এবং স্মার্টফোনের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, স্মার্ট রেফ্রিজারেটর এখন ব্যবহারকারীর সাথে যোগাযোগ করতে পারে। আর তাই এখন কনটেন্ট প্রস্তুতকারীদের চ্যালেঞ্জ এমন কনটেন্ট তৈরি করা যা কি না আইওটি প্ল্যাটফর্মে সকল ডিভাইসে রেসপন্স করতে পারে। আর এই উপায়ে কনটেন্ট মার্কেটাররা লোকেশন ভিত্তিক কনটেন্ট কাস্টমাইজ করতে পারবে, ডেটা মনিটর করতে পারবে এবং ডিভাইসে রিয়েল টাইম অ্যালার্ট পাঠাতে পারবে।

ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি (ভিআর) এবং অগমেন্টেড রিয়্যালিটি (এআর) : ২০১৬ সাল ছিল ভিআর এবং এআর এর বছর যা কি না ফেসবুক কিংবা ইন্সটাগ্রামের চাইতে পোকেমন গো-কে জনপ্রিয় করেছে। আর এই প্ল্যাটফর্মটি ভিজুয়াল কনটেন্টের চাহিদা মেটাবে।

লাইভ স্ট্রিমিং : লাইভ স্ট্রিমিং বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় ফিচার। আর এই প্ল্যাটফর্মটিতে কনটেন্ট ডেভলপাররা লাইভ কনটেন্টের চাহিদা মেটাবে। তবে এটি এখনও ব্যবহারকারীদের বিশাল একটি অংশ জুড়ে অনুপস্থিত। তাছাড়া ফেবুকের লাইভ স্ট্রিমিং এ দেখা গেছে, ব্যবহারকারীরা সেসব কনটেন্ট বেশি পছন্দ করছে, যেগুলো লাইভ অভিজ্ঞতার জন্যই মডেল করা হয়েছে।

সার্চ ইঞ্জিন অ্যালগরিদম : সার্চ ইঞ্জিন অ্যালগরিদম চূড়ান্তভাবে স্বয়ংক্রিয় করা হয়েছে। তবে এখনও বেশিরভাগ কনটেন্ট মার্কেটার ম্যানুয়াল সার্চ ইঞ্জিন অ্যালগরিদম অনুযায়ী তাদের অনলাইন মার্কেটিং প্রচারণার ডিজাইন করেছেন। তারা মনে করছেন, অনলাইন মার্কেটিং-কে উন্নত করতে হলে এর ডিজাইনেও পরিবর্তন আনতে হবে।

ই-কমার্স এবং সোশ্যাল মিডিয়া : বিগত কয়েক বছর ধরে কনটেন্ট মার্কেটিংয়ে ই-কমার্স এবং সোশ্যাল মিডিয়া নিজস্ব জায়গা করে নিয়েছে। ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম এবং পিন্টারেস্টের মতো ওয়েবসাইটগুলো কনটেন্ট এর জন্য বহুল ব্যবহৃত হচ্ছে।

সূত্র: দ্য নেক্সট ওয়েব

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: