সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পদ্মাসেতু রেলসংযোগ তত্ত্বাবধানে সেনাবাহিনীর সঙ্গে চুক্তি সই

full_580724090_1483268254নিউজ ডেস্ক:: পদ্মাসেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের পরামর্শক ও তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কন্সট্রাকশন সুপারভিশন কনসালট্যান্ট সেল (সিএসসি) সেল কোর অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। আজ রোববার সকালে রেলভবনে দুই সংস্থার মধ্যে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ও সেনাপ্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হকের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষে প্রকল্প পরিচালক সুকুমার ভৌমিক ও সেনাবাহিনীর পক্ষে প্রকল্প ব্যবস্থাপক কর্নেল আবুল কালাম আজাদ এই চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বলা হয়, পরামর্শক সেবার আওতায় নির্মাণকাজের সুষ্ঠু তদারকিসহ আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে যথাসময়ে কাজ শেষ করার ব্যবস্থা নেবে সেনাবাহিনীর সিএসসি অব কোর অব ইঞ্জিনিয়ারিং।

সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে নির্মীয়মাণ পদ্মা বহুমুখী সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হবে ২০১৮ সালে। এই পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকার সঙ্গে যশোর পর‌্যন্ত ব্রডগেজ রেললাইন নির্মাণ হবে, যার বাস্তবায়নকাল ধরা হয়েছে ছয় বছর। এর মাধ্যমে দেশের রাজধানী ঢাকার সঙ্গে মধ্য ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে নতুন রেল যোগাযোগ স্থাপন হবে।

চুক্তি অনুযায়ী সেনাবাহিনী রেলসংযোগ প্রকল্পের আওতায় ঠিকাদারের দাখিল করা নকশা যাচাই ও অনুমোদন, ভূমি অধিগ্রহণ, সাইট ক্লিয়ারেন্স, রিসেটলমেন্ট প্ল্যান ও নির্মাণকাজে সহায়তা এবং তদারক করবে। আর এর জন্য খরচ ধরা হয়েছে ৯৪১ কোটি টাকা।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক বলেন, ‘আমাদের ঐতিহ্যবাহী সেনাবাহিনীর পরামর্শসেবা নিয়ে আমাদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে দ্রুত পৌঁছাতে পারব। পরামর্শসেবায় অনেকগুলো কাজ রয়েছে- জমি অধিগ্রহণ, সহায়তা করা, সাইট ক্লিয়ারিং, অনেক কিছু আছে। এই কাজগুলো সেনাবাহিনীর মাধ্যমে হলে প্রকল্প বাস্তবায়ন দ্রুত হবে।

রেলমন্ত্রী বলেন, ২০১৮ সালের শেষে একই সময়ে পদ্মায় সড়ক ও রেলসেতু চালু হবে। এটা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দ্রুত কাজ শেষ করা হবে। সেতু দিয়ে একই দিনে চলবে বাস, ট্রেনসহ বিভিন্ন যানবাহন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সেনাপ্রধান আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তাদের সাফল্যের ধারাবাহিকতায় আরো বেশি দক্ষতা ও পেশাদারির মাধ্যমে প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণ, রিসেটলমেন্ট প্ল্যান বাস্তবায়ন, নির্মাণকাজের সুপারভিশন সেবা, নির্দিষ্ট সময়ে আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে সুষ্ঠুভাবে কাজ সম্পন্ন করতে সক্ষম হবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: