সর্বশেষ আপডেট : ২৩ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মৌলভীবাজারে ভারতীয় ব্যবসায়ীদের আশ্বস্ত করলেন প্রধান বিচারপতি

183105_131মৌলভীবাজার সংবাদদাতা:: মৌলভীবাজারে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী উৎসব ও ব্যবসায়ী সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ভারতীয় ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, ‘আপনারা এখানে ইনভেস্ট করুন। আপনাদের আশ্বস্থ করছি। এখানে যতই আইনের দীর্ঘসূত্রতা থাকুক। সেটা যাতে বাধা না হয় তা দেখা হবে।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উৎসব ও সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক আদানপ্রদান বৃদ্ধির লক্ষ্যে দি মৌলভীবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি তিনদিনের এই উৎসবের আয়োজন করেছে।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন মৌলভীবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মো. কামাল হোসেন। সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন ভারতের ত্রিপুরার বাণিজ্য, শিক্ষা, শিল্প ও আইনমন্ত্রী তপন চক্রবর্তী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ ও সদস্য মো. রফিকুর রহমান, সিলেটের বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার কামরুল আহসান, জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহ জালাল, মহিলা সাংসদ সাবিহা নাহার বেগম, পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান, নারী উদ্যোক্তা আয়েশা আক্তার ডালিয়া, সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি সালাউদ্দিন আলী আহমদ, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি কামাল উদ্দিন চৌধুরী, দৈনিক উত্তর ত্রিপুরার সম্পাদক ও মৈত্রী উৎসব উদ্যাপন পরিষদের সমন্বয়ক মোহিত পাল প্রমুখ।

প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বৃহস্পতিবার রাতে এই উৎসবে তার দীর্ঘ ইংরেজি ভাষণে ভারত-বাংলাদেশের বাণিজ্য ঘাটতিসহ বিদ্যমান অন্যান্য বিষয় আলোকপাত করে কিছু সুপারিশ তুলে ধরেন। এর মধ্যে ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ আরবিট্রেশন সেন্টার গঠন করা যেতে পারে, যার মাধ্যমে আর্ন্তজাতিক ব্যবসা-বাণিজ্য এবং সমুদ্র সংক্রান্ত বিষয়ের সমস্যা সমাধানে দ্রুততার সাথে উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারে। একটি ট্রেনিং ইন্সটিটিউট স্থাপন করা যেতে পারে যেখানে উভয় দেশের বিচারক, আইনজীবী, ব্যবসায়ী এবং সংশ্লিষ্টদের নতুন আইন সম্পর্কে ধারাবাহিকভাবে প্রশিক্ষণ দেয়া যায়। ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ সম্পর্ক অংশিদারিত্ব ও সহযোগিতার ভিত্তিতে আরো নিবিড় ও উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ বৃদ্ধিতে অভিজ্ঞতা বিনিময় শুধু নয়, বন্ধুপ্রতিম দু-দেশের আরো অন্যান্য বিষয়ে অধিক আগ্রহী করা যেতে পারে। এ ছাড়াও দু-দেশের ব্যবসায়ীদের যাতায়ত সহজ করার জন্য ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা দূর করা। এবং বাণিজ্য ঘাটতিসমূহ দূর করে সমতা আনয়ন।

এর আগে প্রধান অতিথি ও অতিথিবৃন্দ স্থানীয় শহীদ মিনারে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: