সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে ভোটারা যেন প্রার্থীদের কাছে সোনার হরিণ!

6587420-1মোহাম্মদ আলী শিপন::
সিলেট জেলা পরিষদের নির্বাচন হতে যাচ্ছে আগামী ২৮শে ডিসেম্বর। ইতিমধ্যে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ হয়েছে। প্রতিক পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। আজ সোমবার মধ্য রাত পর্যন্ত প্রচার-প্রচারনা শেষ হচ্ছে। শেষ মুর্হুতে প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত রয়েছেন বিশ্বনাথের সদস্য পদের পদপ্রার্থী। ভোটারা যেন এখন তাদের কাছে সোনার হরিণ! এ নির্বাচনে শুধু এলাকার জনপ্রতিনিধিরা ভোট প্রয়োগ করবেন। তাদের ভোটের মাধ্যমে একজন সদস্য প্রার্থী নির্বাচিত হবে। জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ড হচ্ছে বিশ্বনাথ উপজেলা। এ ওয়ার্ড থেকে ৮জন পুরুষ সদস্য পদে নির্বাচনে লড়ছেন। প্রার্থীরা উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের কাছে চুষে বেড়াচ্ছেন। চাইছেন ভোট ভিক্ষা। ভোটার হচ্ছেন ১০৪জন। তারা সকলেই এলাকার জনপ্রতিনিধি। এক সময় তাদের কাছে ভোটার ছিলেন সোনার হরিণ, এখন তারাও হচ্ছে প্রার্থীদের কাছে সোনার হরিণ। ভোটার কম হওয়ায় প্রার্থীরা ভোটাদের কাছে একাধিক বার ভোট যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। তাই প্রতিক পাওয়ার পরপরই প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারনা ব্যাপক হারে শুরু হয়। কেউ কেউ প্রার্থীদের বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে যাচ্ছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

প্রার্থীরদের প্রচার প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে এলাকা। উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের পথ প্রান্তে মাঠ-ঘাট,দোকান, টি স্টোলসহ সর্বত্রে চলছে এ নির্বাচন নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা।

নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে বিশ্বনাথে প্রার্থীদের প্রচারণায় ব্যস্ততা বেড়েছে। নির্ঘুম প্রচারণা ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। কাক ডাকা ভোর থেকে ভোটারদের কাছে ছুটে বেড়াচ্ছেন। আগামী ২৮শে ডিসেম্বর জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ডে সদস্য পদে লড়ছেন ৮ জন প্রার্থী। গত ১২ ডিসেম্বর প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হয়েছে। জেলা পরিষদ নির্বাচনে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ৮ ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদের ১’শ ৪ জন জনপ্রতিনিধি ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন । উপজেলা সদরের রামসুন্দর অগ্রগামী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

সিলেট জেলা পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে বিশ্বনাথ উপজেলার ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থীরা প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর নির্বাচনী প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এ ওয়ার্ডে এখন প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারনা তুঙ্গে। বসে নেই জেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য প্রার্থীরাও।
জেলা পরিষদের নির্বাচনে শুধুমাত্র নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে পরিষদের চেয়ারম্যান ও প্রতিটি ওয়ার্ডের একজন করে সদস্য নির্বাচিত করবেন। কিন্তু এ নির্বাচনকে ঘিরে ৯নং ওয়ার্ডের অর্ন্তভুক্ত বিশ্বনাথে ৮টি ইউনিয়নে সর্বত্র নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করছে। ৯নং ওয়ার্ড থেকে পুরুষ সদস্য পদে ৮জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের কদর বেড়েছে। নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী সদস্য প্রার্থী ও তাদের সমর্থক ও শুভাকাংখিরা প্রতিদিন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দ্বারস্ত হয়ে উন্নয়নের বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি তুলে ধরে ভোট চাচ্ছেন।

এদিকে নির্বাচনকে ঘিরে কালো টাকার ছড়াছড়িও শুরু হয়েছে বলে অভিযোগও রয়েছে। এ নির্বাচনে দুইজন সাংবাদিক ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা অংশগ্রহন করছেন। প্রতীক পাওয়ার পর প্রার্থীদের পোস্টারে উপজেলা শহর এবং বিশেষ করে ইউনিয়ন পরিষদের আশপাশ এলাকা একাকার হয়ে গেছে। জেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীরাও পুরোধমে প্রচারনা চালাচ্ছেন।

জেলা পরিষদের নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ড বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজি, খাজাঞ্চি, বিশ্বনাথ, অলংকারি, দৌলতপুর, দেওকলস, রামপাশা, দশঘর ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এ ওয়ার্ডে সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিদ্বতা করছেন, উপজেলার দেওকলস ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও আ.লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম মতছিন (তালা প্রতিক), সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক ও নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর একান্ত সচিব মঈনুল হক (হাতি প্রতিক), আ.লীগ নেতা কিনু মিয়া (অটোরিকশা প্রতিক), বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক প্রনঞ্জয় বৈদ্য অপু (ঘুড়ি প্রতিক), পাক্ষিক বিশ্বনাথ বার্তা সম্পাদক মোসাদ্দেক হোসেন সাজুল (টিউবওয়েল প্রতিক), সমাজসেবক সহল আল রাজি চৌধুরী (বৈদ্যতিক পাখা প্রতিক), যুবলীগ নেতা আবুল কাহার (ক্রিকেট ব্যাট প্রতিক), বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহবায়ক শামছুল ইসলাম (টিফিন ক্যারিয়ার প্রতিক)

জেলা পরিষদের নির্বাচনে এ ওয়ার্ডে আ.লীগ ও বিএনপি সমর্থিত প্রায় অর্ধশতাধিক উপরে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি রয়েছেন। তাদের ভোট যে প্রার্থী বেশি পাবেন সদস্য পদে তিনি নির্বাচিত হবেন ধারন করছেন এলাকাবাসী।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: