সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৫ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২২ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নতুন সঙ্কটে তুরস্ক

164484_1আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গত ১৫ জুলাই তুর্কি সামরিক বাহিনীর একটি অংশ অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা চালানোর পর থেকেই সঙ্কটে পড়েছে দেশটি। এ ব্যর্থ অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার পর থেকে তুর্কি সরকার জনগণের অধিকার ও স্বাধীনতা সীমিত করেছেন।

এর পর থেকে দেশটিতে সহিংসতা ক্রমবর্ধমান হারে বেড়েই চলেছে।

সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় আঙ্কারায় একটি আর্ট গ্যালারি পরিদর্শনেকালে রুশ রাষ্ট্রদূত অ্যান্দ্রে কারলভকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় দেশটিতে নতুন করে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
এছাড়া গত ২৫ জুলাই তুরস্কের পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত ন্যাটোর একটি ঘাঁটির কাছে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। নাশকতামূলক তৎপরতার কারণে আগুন ধরেছে বলে মনে করছে কর্তৃপক্ষ।

গত ১৫ আগস্ট তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর দিয়ারবাকিরের একটি পুলিশ স্টেশনের বাইরে শক্তিশালী গাড়িবোমার বিস্ফোরণে চার পুলিশসহ ৮ জন নিহত হয়েছেন।

গত ২০ আগস্ট তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলের গাজিয়ানটেপ শহরে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলায় ৩০ জন নিহত হয়েছে।

গত ২৫ আগস্ট তুরস্কের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় কিজরেতে পুলিশের সদরদপ্তরে এক গাড়িবোমা হামলায় ৯ জন নিহত হয়েছেন।

গত ২৭ আগস্ট তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় দিয়ারবাকির বিমানবন্দরে রকেট হামলা হয়েছে। এতো কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

গত ১০ অক্টোবর তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলে এক নিরাপত্তা চৌকিতে গাড়ি বোমা হামলায় ১০ তুর্কি সৈন্যসহ ৮ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে।

গত ২৪ নভেম্বর তুরস্কে একটি শহরের গভর্নর কার্যালয়ের সামনে এক গাড়িবোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে দুইজন নিহত হয়েছে।

গত ১১ ডিসেম্বর তুরস্কের সবচেয়ে বড় শহর, ইস্তাম্বুলের একটি ফুটবল স্টেডিয়ামের কাছে দুটি বিস্ফোরণে ২৯ জন নিহত হয়েছে।

সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় আঙ্কারায় বন্দুকধারীর গুলিতে রুশ রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কার্লভ নিহত হওয়ার ঘটনায় দেশটিতে নতুন করে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ঘটনায় রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ছিন্ন হতে পারে বলে আশঙ্কা বাড়ছে।

এই হামলার প্রতিক্রিয়ায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, সিরিয়ার শান্তি প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করতেই তুরস্কে রুশ রাষ্ট্রদূতকে গুলি করে হত্যা হরা হয়েছে। এ ঘটনায় রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ছিন্ন করবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় দেয়া এক ভাষণে পুতিন বলেন, এই হত্যাকাণ্ড স্পষ্টই উত্তেজনাকর। যা তুরস্ক-রাশিয়ার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং মধ্যপ্রাচ্যে সিরিয়ার শান্তি প্রক্রিয়া ক্ষুণ্ন করবে। মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য কাজ করেছে রাশিয়া, তুরস্ক, ইরানসহ অন্যান্য দেশ।

পুতিন বলেন, এই হত্যাকাণ্ডের একমাত্র প্রতিক্রিয়া হলো, মস্কো সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ থেকে সরে আসবে।

সব মিলিয়ে তুরস্কের সঙ্কট আরো ঘনীভূত হচ্ছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: