সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

থার্টিফার্স্ট নাইটে আতশবাজি ও সন্ধ্যার পর সমাবেশ নিষিদ্ধ

atoshbaziডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
থার্টি ফার্স্ট নাইটে সন্ধ্যা ৬টার পর উন্মুক্ত স্থানে সব ধরনের সমাবেশ নিষিদ্ধ বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। গতকাল সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বড়দিন উদযাপন এবং থার্টি ফার্স্ট নাইটের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার লক্ষ্যে আয়োজিত সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী।

উন্মুক্ত স্থানে অনুষ্ঠানে নিষেধাজ্ঞা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেও কার্যকর হবে কি না- এমন প্রশ্নেরও জবাবে মন্ত্রী বলেন, ছাদহীন যে কোনো জায়গাই হচ্ছে উন্মুক্ত স্থান। সুতরাং যেখানেই এমন জায়গা আছে, সেখানে অনুষ্ঠান করা যাবে না। মন্ত্রী বলেন, ওই রাতে গোটা শহরেই নিরাপত্তা বাড়ানো হবে। গোয়েন্দা তৎপরতার পাশাপাশি মোতায়েন থাকবে অতিরিক্ত পোশাকধারী পুলিশ। আর কূটনীতিক এলাকায় নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা।থার্টি ফার্স্ট নাইটে কোনো ধরনের নাশকতার আশঙ্কা থেকে সরকার এসব ব্যবস্থা নিচ্ছে কি না-জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের এ ধরনের কোনো তথ্য নেই, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আমরা এই পদক্ষেপগুলো নিয়েছি।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নববর্ষকে আমন্ত্রণ জানাতে ওই রাতে কোনো ধরনের আতশবাজি করা যাবে না। আর ওই রাতে সকল মদের দোকান বা বার বন্ধ থাকবে।

এদিকে, বড়দিন ও থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপনকে কেন্দ্র করে মাদক পাচার, মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার ও মাদক সংক্রান্ত অপরাধ যাতে সংঘটিত না হয় সে জন্য সংশিষ্টদের নির্দেশেনা দিয়েছে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অধিদপ্তরের পরিচালক (অপারেশ ও গোয়েন্দা) তৌফিক উদ্দিন আহমেদ।সংবাদ সম্মেলনে ২০১৫ ও ২০১৬ সালে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সামগ্রিক তৎপরতার চিত্র তুলে ধরা হয়। তৌফিক উদ্দিন আহমেদ বলেন, বড় দিন ও থার্টিফার্স্ট নাইটকে কেন্দ্র করে রাজধানীসহ সারাদেশে মাদক পাচার, মাদক দ্রব্যের অপব্যবহার ও মাদক সংক্রান্ত অপরাধ দমনে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকবে। এজন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।এ ব্যাপারে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সর্বোচ্চ জনবল নিয়োগ করবে বলেও জানান তিনি।

তৌফিক উদ্দিন বলেন, ঢাকা মেট্রো উপ অঞ্চল, ঢাকা জেলা কার্যালয় এবং বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয় ঢাকার সমন্বয়ে মাদক রোধে অপারেশন কার্যক্রম পরিচালিত হবে। ঢাকার বাইরেও সারা দেশে বিভাগীয় কার্যালয়ের তত্ত্বাবধায়নে অনুরূপ অভিযান পারিচালনা করা হবে।তিনি বলেন, সাধারণত এসব উৎসবের কিছু দিন আগে থেকেই বিভিন্ন বারগুলোতে মাদক দ্রব্য মজুদের কাজ করে থাকে। বিভিন্ন সংস্থা ঠিক এ সময় বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করে থাকে। তবে আমরা ধারণা করছি, এসব মাদক ব্যবসায়ীরা এরও আগে থেকে অর্থাৎ এক-দুই মাস আগেই মজুদ করে থাকে।সারাদেশে মাদক বিরোধী বিভিন্ন অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। এবার শক্তভাবে মাদক পাচার ও মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধে কার্যক্রম পরিচালিত হবে, যোগ করেন তৌফিক উদ্দিন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: