সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৪ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আজ মীর মশাররফ হোসেনের ১০৫তম মৃত্যুবার্ষিকী

dsmirmusharrofডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
আজ (সোমবার) প্রখ্যাত সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেনের ১০৫তম মৃত্যুবার্ষিকী। দিবসটি উপলক্ষে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রশাসন, বালিয়াকান্দি মীর মশাররফ হোসেন সাহিত্য পরিষদ, মীর মশাররফ হোসেন কলেজসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

মীর মশাররফ হোসেন ছিলেন একাধারে ঔপন্যাসিক, নাট্যকার ও প্রাবন্ধিক। ঊনবিংশ শতাব্দীর দ্বিতীয়ার্ধে বাংলা গদ্যের শুরুতে তিনি বিশেষ ভূমিকা রেখেছিলেন। বিষাদ সিন্ধু নামক ঐতিহাসিক রচনার জন্য তিনি সুপরিচিত ও জনপ্রিয়।

১৮৪৭ সালে ১৩ নভেম্বর নানা বাড়ি কুষ্টিয়ার লাহিনীপাড়া গ্রামে সৈয়দ মীর মুয়াজ্জেম হোসেন ও মা দৌলতন নেছার ঘরে জন্মগ্রহণ করেন মীর মশাররফ হোসেন।

তার লেখাপড়ার জীবন কাটে প্রথমে কুষ্টিয়ায়, পরে ফরিদপুরের পদমদীতে ও শেষে কৃষ্ণনগরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে। তার জীবনের অধিকাংশ সময় ব্যয় হয় ফরিদপুরের নবাব এস্টেটে চাকরি করে। তিনি কিছুকাল কলকাতায় বসবাস করেন।

১৯১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর তিনি রাজবাড়ির বালিয়াকান্দি উপজেলায় মৃত্যুবরণ করলে সেখানেই তাকে সমাহিত করা হয়।

মীর মশাররফ হোসেনের সমাধিস্থল ঘিরে বাংলা একাডেমি ‘মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতি কমপ্লেক্স’ নামে একটি সুসজ্জিত ভবন নির্মাণ করেছে।

মীর মশাররফ হোসেন তার বহুমুখী প্রতিভার মাধ্যমে উপন্যাস, নাটক, প্রহসন, কাব্য ও প্রবন্ধ রচনা করে আধুনিক যুগে মুসলিম রচিত বাংলা সাহিত্যে সমৃদ্ধ ধারার প্রবর্তন করেন। সাহিত্যরস সমৃদ্ধ গ্রন্থ রচনায় তিনি বিশেষ কৃতিত্ব দেখান। কারবালার বিষাদময় ঘটনা নিয়ে লেখা উপন্যাস “বিষাদসিন্ধু” তার শ্রেষ্ঠ রচনা। তার সৃষ্টিকর্ম বাংলার মুসলমান সমাজে আধুনিক সাহিত্য ধারার সূচনা করে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: