সর্বশেষ আপডেট : ৫৫ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২৩ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আইভী-সাখাওয়াতের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে!

09নিউজ ডেস্ক: দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই রং পাল্টাচ্ছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের। আর মাত্র ৫ দিন বাকী নির্বাচনের। নাসিক নির্বাচনটি দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়ায় পাল্টে যাচ্ছে পূর্বের সকল সমীকরণ।

সাখাওয়াতের ভোটের মাঠে পরিচিতি নেই। আর আইভীর পরিচিত। এমন সমীকরণ থেকে প্রথমে আইভী এগিয়ে থাকলেও বর্তমানে পরিস্থিতি ভিন্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হতে যাওয়ায় দু’দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের দ্বারা জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা। সাখাওয়াতের ধানের শীষের পরিসংখ্যানিক দিকটি দিনের পর দিন উর্ধ্বমুখী হচ্ছে বিধায় এখন আর একতরফা ভোটের সমীকরণ চলছে না। বর্তমান পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করে কেউই আগাম বলতে পারছে না কার হবে জয়, আর কার হবে পরাজয়। তবে সংশ্লিষ্টরা এমন পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করে বলছেন নির্বাচনে আইভী-সাখাওয়াতের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে।

নাসিক মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভীকে দল থেকে মনোনয়ন দেয়ার পর মহানগরীর সর্বত্র তার গণজোয়ার ছিল। বিএনপি দলীয় মনোনয়ন নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানকে দেয়ার পর তাকে নিয়ে ভোটারদের মাঝে এবং বিভিন্ন মহলে প্রথমে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠান। নাসিকের দ্বিতীয় পর্বের এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী চলছে আলোচনা এবং বিভিন্ন সমীকরণ। প্রথম নাসিক নির্বাচনে সাবেক মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সিনিয়র সহ সভাপতি ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভী স্বতন্ত্র থেকে নির্বাচন করে আওয়ামী লীগের সাবেক ও বর্তমান সাংসদ একেএম শামীম ওসমানকে বিপুল ভোটে পরাজিত করে দেশব্যাপী সুপরিচিতি পায়।

আইভীও নির্বাচিত হয়ে উন্নয়নকে প্রাধান্য দিয়ে চলায় বেড়ে যায় তার জনপ্রিয়তা। নাসিকের দ্বিতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়নের জন্য শামীম বলয় মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের জন্য মাঠে নেমে ব্যর্থ হন। দলীয় প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেষতক নৌকা আইভীর হাতে তুলে দেন তাকে নিশ্চিত সম্ভাবনাময়ী ভেবে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া নাসিকের দ্বিতীয় নির্বাচনে জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. তৈমূর আলম খন্দকার, সাবেক সাংসদ এড. আবুল কালাম, গিয়াস উদ্দিনদের মনোনয়ন দেয়ায় ইঙ্গিত দিলে তারা অনীহা দেখালে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানের হাতে শেষতক তুলে দেন ধানের শীষ।

আইভীকে নৌকা দেয়ার পর মহানগরীতে প্রথমে শুধুই তার গণজোয়ার পরিলক্ষিত হয়। বিগত দিনের সমীকরণ থেকে বিশ্লেষকরা প্রথমে আইভীকেই এগিয়ে রাখেন। আর সাখাওয়াতকে প্রথমে খাটো করেই দেখা হয়। নির্বাচন উপলক্ষে দুইদলেরই কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্বাচনী প্রচারণা জমে ওঠা শুরু করে। বিশেষ করে বিএনপির মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নারায়ণগঞ্জ যাবার পর সাখাওয়াতের অবস্থান পরিবর্তন হয়ে যায়।

আগামী ২০ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ যাবেন বেগম জিয়া। তখন আরো পরিবর্তন দেখা যাবে। পূর্বের সমীকরণ বদলে যাচ্ছে দিনের পর দিন। সাখাওয়াতের পরিসংখ্যানিক দিকটি দিনে দিনে উর্ধ্বমুখী হতে দেখে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন আসন্ন নাসিক নির্বাচনের ফলাফল দলীয় প্রতীকের কারণে বিশাল ব্যাবধানের হবে না। আইভী-সাখাওয়াতের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: