সর্বশেষ আপডেট : ১৮ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১৯ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘সামাদ আজাদে’ ফিরছে সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগ !

1-samad

অহী আলম রেজা ::
জেলা পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে ‘সামাদ আজাদে’ ফিরছে সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগ। ইতোমধ্যে বিভিন্ন উপজেলায় ছড়িয়ে থাকা সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা আবদুস সামাদ আজাদের একান্ত ঘনিষ্ঠদের এক করতে দফায় দফায় বৈঠক করছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী নুরুল হুদা মুকুট। যেদিকে যাচ্ছেন সাড়াও পাচ্ছেন আগের মতো। অনেকে বাসায় এসেও সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন। যেখানে যাচ্ছেন সেখানেই আবেগঘন বক্তব্য দিয়ে বলছেন, সারা জীবন লিডারের নির্দেশে দলের জন্য কাজ করেছি। কোনোদিন নির্বাচন করিনি, ভোটও চাইনি। এবার সুযোগ দিলে শেষ জীবনে মানুষের সেবা করতে চাই।

তবে আবদুস সামাদ আজাদের রক্তের উত্তরাধিকার আজিজুস সামাদ আজাদ ডন এ নির্বাচনে ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছেন বলে ভোটার ও সাধারণ নাগরিকরা জানিয়েছেন। বিভিন্ন উপজেলায় তার কর্মী সমর্থকরা জানান, ডন যেদিকে নির্দেশ দেবেন সেদিকেই আমরা ভোট দেব। বিশেষ করে জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জের অধিকাংশ ভোটার আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থী নুরুল হুদা মুকুট ও ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমনকে সাফ এ কথা জানিয়ে দিয়েছেন। এ কারণে নুরুল হুদা মুকুটও ডনকে কাছে টানার চেষ্টা করছেন।
অন্যদিকে চেয়ারম্যান প্রার্থী ব্যারিস্টার এনামুল কবীর ইমনও আওয়ামী লীগ প্রার্থী হিসেবে আজিজুস সামাদ আজাদ ডনের সাথে যোগাযোগ করছেন। শুধু ডনই নয়; তাঁর পক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান ও অন্যান্য নেতাকর্মী মাঠে নামবেন বলে আশাবাদী। তিনি অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি সিদ্দিক আহমদসহ প্রথম সারির নেতাদের সাথে দফায় দফায় বৈঠক ও পরামর্শ নিচ্ছেন।

ইমনের ভরসা একটাই, মানঅভিমান থাকলেও শেষ মুহূর্তে সবাই মাঠে নামবেন। মন্ত্রী এমপি ছাড়াও আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদেরও পাশে পাবেন। তাঁর কর্মী-সমর্থকরা বলছেন, দলীয়প্রধান শেখ হাসিনার প্রার্থীর ভরাডুবি হতে পারে না।
অন্যদিকে দলীয় সমর্থন না পেলেও মাঠের লড়াইয়ে নূরুল হুদা মুকুট একা নন। সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগের অনেকেই মুকুটের সুহৃদ। দাপুটে নেতা সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ছায়ায় বেড়ে ওঠা মুকুটের প্রতি তৃণমূলের অনেকেরই দুর্বলতা রয়েছে। তাই নির্বাচনি লড়াইয়ে মাঠে নামার ঘোষণা দেয়ার পর অনেককেই পাশে পান। প্রথমদিকে নেপথ্যে থাকলেও এবার গণসংযোগেও অংশ নিচ্ছেন। এমনকি ইমন দলের মনোনয়ন পাওয়ার পরও মুকুটের কাছছাড়া হননি দলের অনেক নেতাই। এ কারণে শীর্ষ নেতৃত্বের ক্ষোভের মুুখেও পড়তে হয়েছে কাউকে কাউকে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আইয়ুব বখত জগলুল, ছাতক পৌরসভার মেয়র কালাম চৌধরীকে ইতোমধ্যে কেন্দ্র থেকে ‘শাসন’ও করা হয়েছে।

এরপরও নুরুল হুদা মুকুটের পক্ষে কাজ করছেন জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আবদুল মনাফ, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম শামীম, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম, দিরাই আওয়ামী লীগের আলতাব উদ্দিন, বিশ্বম্ভরপুর আওয়ামী লীগের মানিক মিয়া, দিলীপ বর্মন, তাহিরপুর আওয়ামী লীগের আবুল হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল মোমেন, ডেপুটি কমান্ডার মকসুদ মিয়া।
আওয়ামী লীগের ভোটে ভাগ বসানোর পাশাপাশি বিএনপির ভোটগুলো যদি মুকুট নিজের করে নিতে পারেন, তাহলে তাঁর বেশ ভালোই সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমন কাছে পাচ্ছেন সংসদ সদস্য ছাড়াও দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইদ্রিছ আলী, সুনামগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগ নেতা সিরাজুর রহমান সিরাজ, ছাতক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, দিরাই পৌরসভার মেয়র মোশারফ মিয়া, ছাতক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাদাত লাহীন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদির আহমদ মুক্তাসহ অনেককে।

samad-azad-daily-sylhet-0-1

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: