সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৬ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২২ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

৫৩ লাখ টাকা ব্যয় : সোবহানিঘাটে দৃষ্টিনন্দন রোড ডিভাইডার

01vvvvvvvvvvvvvvনুরুল হক শিপু ::
একটি রোড ডিভাইডার ও মধ্যখানে বৃক্ষরোপণ বদলে দিয়েছে নগরীর মিরের ময়দান এলাকা। সড়কটিতে ফুটে ওঠেছে সৌন্দর্য। মিরের ময়দানের পর এবার সিলেট নগরীর প্রবেশমুখ সোবহানিঘাটে চলছে একই রকমের সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ। সিলেট সিটি কর্পোরেশন ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ওই এলাকার সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য সড়কের মাঝখানে নির্মাণ করছে রোড ডিভাইডার। গাছের নকশায় পৌনে ১ কিলোমিটার এলাকায় এ রোড ডিভাইডারের কাজ শেষ হবে চলতি মাসের শেষের দিকে। সিসিক সূত্র জানায়, মেন্দিবাগস্থ জালালাবাদ গ্যাস অফিসের সামন থেকে সোবহানিঘাট পয়েন্ট পর্যন্ত পৌনে ১ কিলোমিটার সড়কের ডিভাইডারে সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য গাছের নকশা করা হচ্ছে।
এ কাজ বাস্তবায়ন করার জন্য গত ৬ সেপ্টেম্বর দরপত্র আহ্বান করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক)। লটারির মাধ্যমে কাজটি পায় মেসার্স মুমু এন্টারপ্রাইজ। ২৯ সেপ্টেম্বর কার্যাদেশ হলে মেন্দিবাগ থেকে সোবহানিঘাট পয়েন্ট পর্যন্ত রোড ডিভাইডার নির্মাণের কাজ শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। পৌনে ১ কিলোমিটার সড়কে ডিভাইডার করা হচ্ছে স্টিলের এমএস অ্যাঙ্গেল দিয়ে। অ্যাঙ্গেলের উপর সিমেন্ট দিয়ে করা হচ্ছে আস্তরণ। আস্তরণের উপরে গাছের নকশা করে ওই এলাকার সৌন্দর্য বাড়নো হচ্ছে। চলতি মাসের শেষের দিকে এ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সিসিকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পরিচালক। সড়কটির রোড ডিভাইডার নির্মাণ কাজ শেষ হলে ওই এলাকার সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করছেন সিসিক কর্মকর্তারা।

01-1সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, এ সড়কে অত্যাধুনিক রোড ডিভাইডার করা হচ্ছে। ডিভাইডারের ভেতরে বিভিন্ন প্রজাতির বৃক্ষরোপণ করা হবে। ওই গাছগুলো প্রাকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করবে। ডিভাইডার নির্মাণ কাজ শেষ হলে মেন্দিবাগ থেকে সোবহানিঘাট এলাকার পরিবেশ অনেক সুন্দর থাকবে। নগরের প্রবেশমুখ হিসেবে এ সৌন্দর্যবর্ধনের কাজটি জরুরি ছিল বলে মনে করছেন এ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ডিভাইডার আলোকিতকরণ করারও পরিকল্পনা রয়েছে সিটি কর্পোরেশনের। আলোকিত হলে গাছের নকশা করা ডিভাইডারটি রাতের সময় অন্যরকম সৌন্দর্য ছড়াবে।

সিসিকের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান বলেন, ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে এ কাজ করানো হচ্ছে। ডিসেম্বরের মধ্যেই কাজ শেষ করার জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ৬০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।
মেসার্স মুমু এন্টারপ্রাইজ পরিচালক মামুনুর রশিদ বখশ জানান, নগরীর সৌন্দর্যবর্ধনের একটি অংশ হচ্ছে সোবহানিঘাট সড়কে ডিভাইডার নির্মাণ। এই ডিভাইডার হবে মিরের ময়দানের ডিভাইডারের মতো। নকশার কাজের উপর সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য রং করা হবে। রং করার পরই ওই এলাকায় সৌন্দর্য ফুটে উঠবে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: