সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নিউইয়র্কে মিয়ানমার দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ

unnamed-11এনা, নিউইয়র্ক:: মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর অমানুষিক নির্যাতন, নির্বিচারে গণহত্যা ও ধর্ষণসহ জোরপূর্বক দেশত্যাগে বাধ্য করার প্রতিবাদে নিউইয়র্কের বিভিন্ন কমিম্যুনিটি ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যানারে প্রবাসী বাংলাদেশীসহ মুসলিম কম্যুনিটি বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন নিউইয়র্ক সিটির ম্যানহাটনে অবস্থিত মায়ানমার দূতাবাসের সামনে। রোহিঙ্গাদের জাতিগত নিধনের প্রতিবাদে গত ৩০ নভেম্বর বুধবার দুপুরে (নিউইয়র্ক সময়) দূতাবাসের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রচন্ড বৃষ্টি ও বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে প্রায় দুই শতাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করে। এসময়ে মিয়ানমারের গণহত্যা বন্ধে জাতিসংঘ ও যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ারও দাবি জানানো হয়। বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে আয়োজকদের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গা মুসলমানদের গণহত্যা বন্ধে মিয়ানমার দূতাবাসে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর গণহত্যা বন্ধের দাবিতে দুপুর ১২ টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত ইউনাইটেড আমেরিকানদের উদ্যোগে আয়োজিত এই বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন মানবাধিকার-সামাজিক,সাংস্কৃতিক, রাজনীতিক সংগঠনসহ দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের প্রবাসী মুসলমানরা অংশ নেন। বিক্ষোভকারীরা মায়ানমারের মুসলিম রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠীর ওপর বর্বর অত্যাচার, গণহত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার এবং তাদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আর্কষণ করেন। তারা জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং যুক্তরাষ্ট্রসহ সকল বৃহৎ রাষ্ট্রকে মানবিক বিবেচনায় রোহিঙ্গাদের সহযোগিতা এবং এই সংকটের স্থায়ী সমাধানের জন্য আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ-আমেরিকান কম্যুনিটি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও ব্রঙ্কস কমিউনিটি বোর্ডের ফাস্ট ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এন মজুমদারের পরিচালনায় এ বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড রোহিঙ্গা অর্গানাইজেশন ইনকের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ইউসুফ, বিশিষ্ট মানবাধিকার কর্মী ও আইনজীবী সানফোর্ড রোবিন স্টিন, মূলধারার রাজনীতিক মেরি সিলভার, জেমস কিগান, বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম হাওলাদার, সহ সভাপতি ফারুক হোসেন মজুমদার, নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সিদ্দিকী, সহ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ এম কে জামান, বর্তমান সহ সাধারণ সম্পাদক ওসমান চৌধুরী, নব নির্বাচিত এীড়া সম্পাদক নওশাদ হোসেন, নব নির্বাচিত সমাজ কল্যাণ সম্পাদক নাদের এ আইয়ুব, নব নির্বাচিত সাহিত্য সম্পাদক নাসির উদ্দিন আহমদ, রফিকুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশী আমেরিকান ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক সোসাইটির সভাপতি আব্দুস সহিদ, চট্টগ্রাম সমিতির সাবেক সভাপতি কাজী শাখাওয়াত হোসেন আজম, বাংলাবাজার জামে মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ গিয়াস উদ্দিন, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম বাদশা, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ স¤্রাট, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি গিয়াস আহমেদ, মূলধারার রজনীতিক হাসান আলী, ইকবাল আহমেদ মাহবুব, আঞ্জুমানে আল ইসলাহ ইউএসএ’র সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাবাজার জামে মসজিদের খতীব মাওলানা আবুল কাশেম ইয়াহইয়া, ইউনাইটেড ইমাম-উলামা কাউন্সিল ইউএসএ’র হাফেজ লুৎফুর রহমান কাসেমী, মাওলানা রফিক আহমেদ, হাজী খবির উদ্দিন, মনির হোসেন, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট সাখাওয়াত আলী, নজরুল হক, আবদুল গাফফার চৌধুরী খসরু, মঞ্জুর চৌধুরী জগলুল, আকসাদ আলী বাবুল, আলমাস আলী, রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, মানবাধিকার সংগঠন ড্রামের এক্সিকিউটিভ কাজী ফৌজিয়া, সাংবাদিক ইমরান আনসারী, মীরসরাই সমিতির সভাপতি কাজী নয়ন প্রমুখ।
সমাবেশে মানবাধিকার আইনজীবী সানফোর্ড রোবিন স্টিন মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গণহারে হত্যা-নির্যাতনের তীব্র নিন্দা জানিয়ে এ বিষয়ে মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করা যায় কিনা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন বলে তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর হামলা, নির্যাতন, জ্বালাও পোড়াও, গণহত্যার ঘটনা বিশ্বে সর্বকালের জঘণ্যতম ঘটনা। এ হত্যাকান্ডের বিরুদ্ধে বিশ্বের সকল শান্তিকামী মানুষকে রুখে দাঁড়াতে হবে। নির্যাতিত, অসহায় রোহিঙ্গাদের রক্ষায় দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করার আহ্বান জানান তারা।
বক্তারা মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সুচির তীব্র সমালোচনা করেন। তারা বলেন, মিয়ানমার সরকার সেখানকার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সকল অধিকার কেড়ে নিচ্ছে। রোহিঙ্গাদের পাইকারীভাবে হত্যা করা হচ্ছে। এসব ঘটনায় নীরব ভূমিকা পালনের জন্য মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচির নোবেল পুরস্কার ফেরত নেয়ারও আহ্বান জানান তারা।

বক্তারা রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পরিচালিত গণহত্যা এবং নির্যাতন এই মুহূর্তেই বন্ধ করার জন্য মিয়ানমারের সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। বিদেশে বসবাসরত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেয়ারও আহ্বানও জানান।

তারা আরো বলেন, বাংলাদেশের মানুষ এবং সরকারকে বিপন্ন রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। শুধুমাত্র প্রাণে বাঁচানোর জন্য হলেও বাংলাদেশকে রোহিঙ্গাদের সাময়িক আশ্রয় দিতে হবে। বাংলাদেশের সীমান্ত খুলে দেয়ার আহ্বান জানান তারা। বক্তারা অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের বিষয়টি সমাধানে সংশ্লিষ্ট দূতাবাসের কর্মকর্তাদের প্রতি দাবি জানান। অন্যথায় আরো বড় পরিসরে ঘেরাও কর্মসূচির হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন প্রতিবাদকারিরা।
সমাবেশে আয়োজকরা জানান, একই দাবিতে নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সামনে আগামী ৬ ডিসেম্বর বিকেল ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে। ওই কর্মসূচি সফল করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: