সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছাতকে ব্র্যাক ম্যানেজার লাঞ্ছিত থানায় অভিযোগ

01-daily-sylhet-chhatak-news2-11ছাতক প্রতিনিধি:: ছাতকে প্রতারণা ও ঘুষ দাবির অভিযোগে ঋণ গ্রহীতার স্বজনের কাছে লাঞ্ছিত হয়েছেন ব্র্যাকের এক আঞ্চলিক কর্মকর্তা। সোমবার বিকেলে উপজেলার দোলারবাজারে এ অপ্রীতিকর ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ব্রাকের পক্ষে বারগোপী নতুনপাড়া গ্রামের সিএনজি চালক সফাতুলের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে  মঙ্গলবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ব্র্যাকের দোলারবাজার আঞ্চলিক শাখার একজন সুবিধাভোগি হিসেবে দু’বছর ধরে ঋণ গ্রহন ও প্রদান করে আসছেন দোলারবাজার ইউনিয়নের বারগোপি-নতুনপাড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী ছায়াদ মিয়ার স্ত্রী সাবিনা বেগমে। প্রথম দু’দফা যথাক্রমে ১০ হাজার ও ২৫ হাজার টাকা ঋণ হিসেবে উত্তোলন করে নিয়মিত কিস্তির মাধ্যমে সাবিনা বেগম তা পরিশোধও করেছেন। ৩য় দফা ৩০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহনের জন্য ব্র্যাক অফিসের নিয়ম অনুযায়ি প্রতি হাজারে ৫০টাকা করে মোট ১হাজার ৫শ’ টাকা ব্র্যাকের মাঠকর্মী নীপা রাণীর কাছে সঞ্চয় হিসেবে জমা দেন ঋণ গ্রহীতা সাবিনা বেগম। পাস বই ব্র্যাক অফিসে জমাসহ ঋণ গ্রহনের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ২৪ নভেম্বর ঋণ উত্তোলনের দিন ধার্য়্য করে দেন শাখা ম্যানেজার। ওইদিন টাকা না থাকার কথা বলে শাখা ম্যানেজার ২৭ নভেম্বর ঋণ নেয়ার জন্য আসতে বলেন গ্রহীতাকে।

কিন্তু ২৭ নভেম্বর ঋণ নিতে এসে বিপাকে পড়েন সাবিনা বেগম। ঋণ গ্রহীতা সাবিনা বেগম ও তার দেবর সফাতুলকে সারাদিন অপেক্ষায় রেখে সন্ধ্যায় ঋণ দেয়া যাবে না বলে ম্যানেজার তাদেরকে বিদায় করে দেন। ব্র্যাক কর্মকর্তার এমন অমানবিক আচরনের কারনেই সোমবার এ অপ্রীকর ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা মনে করছেন। সফাতুল জানান, সোমবার বিকেলে দোলারবাজার পয়েন্টে শাখা ম্যানেজার ফরহাদ হোসেন ঋণ পেতে হলে তাকে দু’হাজার টাকা ঘুষ দিতে হবে বলেন। এসময় ঋণের বইটি ফেরত চাইলে ম্যানেজারের সাথে তার বাগ-বিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

ব্র্যাকের এরিয়া ম্যানেজার খলিলুর রহমান জানান, এলাকায় সব শ্রেনী-পেশার মানুষের সাথেই ব্র্যাক আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে কোন রকম উস্কানী ছাড়াই সরাসরি শারীরীকভাবে আক্রমন করা হয়েছে। বিষয়টি নিরাপতাজনিত কারনে আইনের আশ্রয় নেয়া হয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে আপোষে নিষ্পত্তি করতেও তার কোন আপত্তি নেই তিনি জানান।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান জানান, দু’পক্ষই তাকে বিষয়টি জানিয়েছেন। উভয় পক্ষ চাইলে ইউনিয়ন পরিষদেবসে বিষয়টি নিষ্পত্তি করা যেতে পারে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: